পানি বিশুদ্ধকরণের কয়েকটি সহজ উপায়

পানি বিশুদ্ধকরণের কয়েকটি সহজ উপায় পানি বিশুদ্ধকরণের কয়েকটি সহজ উপায়

পানি আমাদের নিত্যদিনের সঙ্গী। দৈনিক ৩-৪ লিটার পানি পানে শরীর যেমন থাকে সুস্থ, তেমনি চেহারাও থাকে উজ্জ্বল। তবে সবসময় হাতের কাছে পাওয়া পানি যে বিশুদ্ধ থাকে তার কোন নিশ্চয়তা নেই। বর্তমান পৃথিবীতে পানিবাহিত রোগের সমস্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। দূষিত পানি সবসময় ফুটিয়ে পান করলেই সমস্যার সমাধান হয়না। নিম্নোক্ত উপায়ে পানি বিশুদ্ধ করে নিলে পানিবাহিত বহু সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়

 

Michaelheim /ShutterstockMichaelheim /Shutterstock

 

ফুটিয়ে পান করা

অধিকাংশ মানুষ এই প্রক্রিয়া অবলম্বন করে এবং সবচেয়ে সহজ উপায়ও কিন্তু এটি। আপনি যদি পানি সর্বোচ্চ তাপে ফুটিয়ে থাকেন তাহলে পানিতে থাকা জীবাণুগুলো মারা যায়।

 

ক্লোরিন

প্রতি এক লিটার পানিতে ৪ ফোঁটা ক্লোরিন ব্লিচ ভালোভাবে মিশিয়ে দিন এবং আধা ঘন্টা অপেক্ষা করুণ। এতে পানিতে লুকিয়ে থাকা ভাইরাস এবং ব্যাক্টেরিয়াগুলো মারা যায়।

 

আয়োডিন

প্রতি এক লিটার পানিতে একটি আয়োডিন ট্যাবলেট দিয়েও পানি বিশুদ্ধ করা যায়। ট্যাবলেটটিকে পানিতে ভালোভাবে গুলিয়ে ফেলুন এবং আধা ঘন্টা অপেক্ষা করুণ।

 

ইউভি রে

ইউভি রে বা সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি দিয়েও পানি বিশুদ্ধ করা সম্ভব। এজন্য পানিকে এমনভাবে রাখা উচিত যাতে পানির পাত্রটির চারিদিকে সূর্যের আলো পৌছায়। কমপক্ষে ৩ থেকে ৪ ঘন্টা অপেক্ষা করুন। তারপরও যদি বিশুদ্ধ হয়নি বলে মনে হয় তাহলে কয়েক চিমটি লবণ মিশিয়ে দিন।

 

মাইক্রোফিলট্রেশন

জরুরি মুহূর্তে বিশুদ্ধ পানি পানের জনের একটি মাইক্রোফিল্টার কিনে রাখা অনেক উত্তম। তবুও পানিতে জমে থাকা কিছু ব্যাক্টেরিয়া এমনও আছে যারা এতটাই ক্ষুদ্র যে মাইক্রোফিল্টারের ভিতর দিয়েও বিশুদ্ধ পানিতে মিশে যেতে সক্ষম। আর এই ঝামেলা থেকে মুক্তির জন্য একটি আয়োডিনের ট্যাব্লেট গুলিয়ে আধা ঘন্টা অপেক্ষা করতে পারেন। এই প্রক্রিয়ায় পানি প্রায় ৯৯ শতাংশ বিশুদ্ধ করা সম্ভব।

Share This Post