এই কৌশল্গুলো ঝটপট রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে উপকারে আসবে।  এই কৌশল্গুলো ঝটপট রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে উপকারে আসবে।

ঝটপট রাগ নিয়ন্ত্রণ করার কিছু সহজ বৈজ্ঞানিক কৌশল।

আবেগ অনুভুতি নিয়ন্ত্রন করা সহজ ব্যাপার নয়। মাঝে মাঝে আমারা সবাই প্রচন্ড রেগে যাই। কোনো কিছুর ওপর কিংবা কোনো ব্যক্তির উপর প্রচন্ড রাগের কারণে অনেক সময় আমরা নিজেদেরই ক্ষতি করে বসি। অথবা হুট করে এমন কিছু করে ফেলি কিংবা বলে ফেলি যা উচিৎ নয়। ফলে মানুষের সাথে সম্পর্ক নষ্ট হয় এবং রাগ কমে গেলে পস্তাতে হয়।

তাই রাগ নিয়ন্ত্রণ বা কমানো অত্যাবশ্যক। আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরছি এমন কিছু  বৈজ্ঞানিক কৌশল যেগুলো ঝটপট আপনার রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে উপকারে আসবে। আসুন কৌশল্গুলো জেনে নিই-

জোরে শ্বাস নিন

internet

internet

 

জোরে জোরে শ্বাস নিন এবং ছাড়ুন। এর ফলে মস্তিষ্কে অক্সিজেনের সরবরাহ বাড়ে। এতে দেহ ও মন কিছুটা শিথিল হয় এবং রাগ কমে যায়।

 

হেঁটে আসুন

iStock/PeopleImages

iStock/PeopleImages

 

রাগারাগিতে কোনো পক্ষেরই লাভ হয় না। মেজাজ ধরে রাখতে না পারলে ঘটনাস্থল থেকে দূরে সরে যান এবং কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করুন। এতে রাগারাগি আর বাড়ার সুযোগ থাকে না এবং আপনার মনও কিছুটা শান্ত হওয়ার সুযোগ পায়।

 

গণনা

internet

internet

 

রেগে গেলে তা প্রকাশে বিরত থাকার চেষ্টা করুন। রাগ নিয়ন্ত্রণের মনে মনে ১০ থেকে ১ পর্যন্ত উল্টো করে গুণতে থাকুন। এতে রাগ কিছুটা কমে যাবে।

 

ব্যায়াম

internet

internet

 

ব্যায়াম শুধু দেহই সুস্থ রাখে না, স্নায়ুতন্ত্রও শান্ত রাখতে সহায়তা করে। রাগ উঠলে কিছুক্ষণ ব্যায়াম করে নিতে পারেন বা বাইরে থেকে দৌড়ে আসতে পারেন। এতে আপনার মন শান্ত হবে, রাগ উবে যাবে অনেকটাই।


টাইমার সেটিং

iStock/BraunS

iStock/BraunS

 

হুট করে রেগে যাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে ঘড়িতে নির্দিষ্ট সময় ধরে নিন এবং  প্রতিজ্ঞা করুন, এই সময়টুকুতে কোনোভাবেই আপনি রাগ প্রকাশ করবেন না। এভাবে কিছুদিন করলে আপনার রাগ নিয়ন্ত্রণ সহজ হয়ে উঠবে।

 

চুপচাপ থাকা

iStock/Constantinis

iStock/Constantinis

 

আচমকা রাগ উঠলে চুপচাপ থাকার চেষ্টা করুন, বাড়তি কথা বলা বন্ধ করুন, নিজেকে সময় দিন। এতে রাগ কমে যাবে। এছাড়াও রাগের মাথায় বলে ফেলা কথা আরো খারাপ করে ফেলতে পারে।

 

আয়নার সামনে দাড়ান

internet

internet

 

অনেক বেশি রাগ উঠে গেলে আয়নার সামনে দাঁড়ান এবং নিজের রাগী চেহারাটি আয়নায় দেখুন। আয়নার সামনে নিজের রাগী রূপ কারোর পছন্দ হবে না। তাই রাগ কিছুটা নয়, বেশ খানিকটাই কমে যায়। এমনকি নিজেকে দেখে আপনি হেসেও ফেলতে পারেন।

 

শুয়ে পরুন

internet

internet


অতিরিক্ত রাগ উঠে গেলে শুয়ে পরা উচিত। প্রচন্ড রাগের মাথায় শুয়ে পড়লে রাগ নেমে যায় অনেকটাই। আশেপাশে শুয়ে পরার সুযোগ না থাকলে বসে পরুন। বসে পড়লে কিছুটা রাগ কমে যায়। বসা অবস্থায় যদি রাগ হয় তাহলে দাঁড়িয়ে যান। পায়চারী করুন। এতেও রাগ কমবে।

 

ঠান্ডা পানি পান করুন

internet

internet

 

খুব বেশি রাগ উঠে গেলে এক-দুই গ্লাস ঠান্ডা পানি খেয়ে নিতে পারেন। ঠান্ডা পানি খেলে কিছুটা হলেও রাগ নেমে যাবে। এটা রাগ নিয়ন্ত্রনের জন্য অব্যর্থ ও পরীক্ষিত একটি উপায়। ঠাণ্ডা পানি শরীরে এক রকমের প্রশান্তি ছড়িয়ে দেয় যা মন শান্ত করতে সাহায্য করে।

 

সুপ্রিয় দর্শক, আমাদের আয়োজন কেমন লেগেছে তা কমেন্টে জানান। আর আমাদের মাধ্যমে কোনো কিছু শেয়ার করতে চান তাহলে আমাদের পেইজের ইনবক্সে যোগাযোগ করতে পারেন।

সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ!



জনপ্রিয়