যারা বেশি ব্যস্ত তাদের জন্য এই টিপস গুলো অতি জরুরি... যারা বেশি ব্যস্ত তাদের জন্য এই টিপস গুলো অতি জরুরি...

প্রতিদিন মাত্র ১০ মিনিট ব্যয় ৪ সপ্তাহে পুরো শরীর পরিবর্তন করুন

এই ৭ টি ব্যায়াম আপনার পুরো শরীর পরিবর্তন করে দিতে পারে মাত্র ৪ সপ্তাহে। শরীর চর্চা আমাদের সুস্থ থাকার অন্যতম একটি উপায়। আমাদের অনেকেই এত পরিমান ব্যস্ত থাকে যে শরীরের স্থূলতার দিকে আমরা লক্ষ্য করার সময় ই পাই না। আজ আমরা এমন সহজ কিছু টিপস নিয়ে এসেছে যা অনুসরণের মাধ্যমে আপনি কোন জিম কিংবা বিশেষ সরঞ্জাম এর পেছনে অর্থ খরচ না করে মাত্র ৪ সপ্তাহে প্রতিদিন মাত্র ১০ মিনিট পরিশ্রম করে আপনার শরীরকে কাঙ্ক্ষিত অবস্থায় নিয়ে যেতে পারবেন।

১. প্লাঙ্ক

files.brightside.me

files.brightside.me

প্লাঙ্ক হচ্ছে এমন একটি ব্যায়াম যার নিয়ম হচ্ছে আপনার শরীরকে সঠিকভাবে সরলরেখার মত ধরে রাখা। আপনার শরীরের পেছনের অংশ একদমই সোজা অবস্থানে রাখতে হবে কোন ধরনের ভাঁজ করা যাবে না। ছবিতে যেভাবে দেখানো রয়েছে ঠিক সেভাবেই আপনাকে এ কাজটি করতে হবে। দুটো হাতের ওপর ভর দিয়ে পুরো শরীরকে সম অবস্থানে নিয়ে যেতে হবে। যদি এটা সঠিক ভাবে আপনি করতে পারেন তাহলে আপনার অ্যাবস, শরীরের পেছনের অংশ, নিতম্ব, পা এবং বাহু এ সকল জিনিসের বিন্যাস এবং আপনার পেশীর সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

 

২. পুশ আপ

files.brightside.me

files.brightside.me

পুশ আপ এর প্রাথমিক ধরণ হচ্ছে প্লাঙ্ক যেখানে আপনি আপনার হাতগুলোকে শুধু সোজা রাখতে হবে। এভাবে উপর থেকে আপনি হাতের উপর ভর দিয়ে নিচ পর্যন্ত যতটুকু পারেন যাওয়ার চেষ্টা করুন। অবশ্যই খেয়াল রাখুন যে আপনার পেছনের অংশ পা এবং পেট সরলরেখার অবস্থানে আছে। এভাবে আবার আগের জায়গায় ফিরে আসুন। এর ফলে আপনার বক্ষ, বাহু এবং পেটের পেশী গুলো প্রভাবিত হবে।

 

৩. উরু এবং নিতম্বের পেশীর ব্যায়াম

files.brightside.me

files.brightside.me

প্রথমে আপনার দুটি হাত মেঝেতে রেখে এবং দুই হাটুতে ভর করে ছবিতে দেখানো উপায়ে চেষ্টা করুন। এবার আপনার ডান হাত এবং বাম পা দুটোকে একসাথে নিয়ে আসুন। যেভাবে আপনি একই সময়ে ডান হাত এবং বাম পা কে নিয়ে আসছেন এ কিভাবে বাম হাতের উপর ভর দিয়ে আপনি ডান হাত এবং বাম পা দুটোকে একদম সরলরেখার অবস্থানে নিয়ে যান। ডান বাম বাম ডান এভাবে করতে থাকুন। এটা আপনার ধড় এবং নিতম্বের পেশীগুলোকে শক্তিশালী করবে পাশাপাশি কোমর নিতম্ব এবং পিছনের পেশিগুলোকে শক্তিশালী করবে।

 

৪. স্কোয়াটস

files.brightside.me

files.brightside.me

সোজা হয়ে দাঁড়ান আপনার পদ যুগল এবং কাঁধকে প্রশস্ত করুন। পুরোপুরি পায়ের উপর ভর দিয়ে দাঁড়ান। কল্পনা করুন আপনি একটি চেয়ারে বসছেন আপনার হাঁটু এবং পায়ের উপর ভর দিয়ে ফটোগুলো ভাঁজ করে বসুন এবং পেছনের অংশটা কে সোজা রাখুন।আপনি আপনার ভারসাম্য ঠিক রাখার জন্য হাতগুলোকে ছবিতে দেখানো উপায় সামনের দিকে উত্তোলন করে বসতে পারেন। এবং যত ধীরে সম্ভব দাঁড়ানোর চেষ্টা করুন একইভাবে বসুন।

 

৫. অ্যাবস এর ব্যায়াম

 files.brightside.me

files.brightside.me

প্রথমে পেছনে ভর করে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। পাগল ওকে ভাঁজ করে রাখুন এবং হাত দুটোকে মাথার উপরের দিকে সোজা করে টান টান রাখুন। এবার আপনার শরীরের উপর অংশটাকে ধীরে ধীরে ওপরে উঠান। হাতগুলোকে টানটান অবস্থায় শরীরের সাথে সাথে নিয়ে আপনার দুই পায়ের আঙ্গুলগুলো ছোঁয়ার চেষ্টা করুন। এ কিভাবে আগের অবস্থায় ফিরে যান পুনরায় একই কাজটি করুন। এর ফলে আপনার শরীরের বাড়তি মেদ গুলোর চর্বি গলে যাবে।

 

৬. অ্যাবস এবং নিতম্ব

files.brightside.me

files.brightside.me

আপনার শরীরের ভার রাখুন হাত ও পায়ের ওপর ভর করে যাতে আপনার পেছনের দিকে চাপ অনুভূত হয়। এবার আপনার একটি পা সোজা উপরে ওঠান। একই সাথে আপনার শরীরের উপরের অংশ যতটা সম্ভব পা উঠানোর সাথে সাথে মেঝের কাছা কাছি আনার চেষ্টা করুন। অবশ্যই আপনার যে পায়ের অপর ভর করে ব্যায়ামটা করছেন সেটা যাতে মেঝের উপরে না উঠে সেটা খেয়াল রাখুন। একবার ডান পা অন্যবার বাম পা এভাবে ব্যায়াম করুন। এর ফলে আপনার অ্যাবস ও নিতম্ব শক্তিশালী হবে পাশাপাশি বাড়তি চর্বি গলতে শুরু করবে।  

 

৭. কোমর

files.brightside.me

files.brightside.me

মেঝে বরাবর মুখমণ্ডল রেখে উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন এক্ষেত্রে আপনার দুটি হাত কে কোন এর কাছ থেকে ভাঁজ করে কপালে রাখুন পাশাপাশি আপনার দুটো পা কে সোজা এবং টানটান রাখুন এবং চেষ্টা করুন আপনার পা জোড়াকে ছবিতে দেখানো উপায় রাখুন। কোমরের উপরের অংশটা কে যতটা সম্ভব উপরে উঠানোর চেষ্টা করুন। এবং ধীরে ধীরে প্রাথমিক অবস্থায় ফিরে যান। এর ফলে আপনার মেরুদন্ডের পেশীগুলো এবং অবয়ব গুলো শক্তিশালী হবে।

files.brightside.com

files.brightside.com

 

brightside.com

brightside.com

এই অল্প পরিশ্রমে আপনি ঘরে বসেই মাত্র ১০ মিনিট সময় অতিবাহিত করে ১৪ দিনের মধ্যে আপনার শরীরকে লাইনে নিয়ে আশ্তে পারবেন।আমাডেড় এঈ আয়োজনটি কেমোণ লাগ্ল বন্ধুরা? এ বিষয়ে কোন ইছু জানতে চাইলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানানোর অনুরোধ রইল।সুস্থ্য জীবনের প্রত্যাশা রইল.... সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ... 



জনপ্রিয়