এই ১৮টি বিষয় যারা মেনে চলতে পারে তারা সুখী সম্পর্ক ধরে রাখতে পারে!    এই ১৮টি বিষয় যারা মেনে চলতে পারে তারা সুখী সম্পর্ক ধরে রাখতে পারে!

এই ১৮টি বিষয় যারা মেনে চলতে পারে তারা সুখী সম্পর্ক ধরে রাখতে পারে!

সঙ্গীকে খুশি রাখার উপর নির্ভর করে একটি সম্পর্কের স্থায়ীত্ব ও সুখী জীবন। একে অন্যের উপর খুশী না থাকলে সহজেই সম্পর্কে ভাঙ্গন আসে, সম্পর্ক আস্থাহীন হয়ে পরে। সম্পর্কে খুশি না থাকার কারণে বর্তমান দিনে তালাকের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আপনার সঙ্গী আপনার সাথে সুখী রয়েছেন কিনা তা সম্পর্ক ধরে রাখতে অনেক বেশি জরুরী। আপনার ছোট ছোট কাজের মাধ্যমে সঙ্গী ও সম্পর্ক নিয়ে অনেক বেশি সুখে থাকতে পারেন।  

তাই আপনি যদি কোন সমস্যায় পড়ে থাকেন, তাহলে আপনার সম্পর্কটি পর্যালোচনা করার জন্য সময় নিন এবং সঙ্গীকে বুঝতে চেষ্টা করুন। আজকে আমরা দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের কিছু লক্ষণ আপনাদের সামনে উপস্থাপন করছি। আপনি যদি এই মতামতের সাথে একমত হন তাহলে এগুলো অনুশীলন করুন, তাহলে আপনার আর একা থাকতে হবে না। 

 

১. আপনি আপনার সঙ্গীকে পুরোপুরি এবং মনেপ্রাণে বিশ্বাস করেন।

Time Magazine

Time Magazine

আপনাদের দুজনের মধ্যে কোন লুকানো বিষয় নেই এবং আপনারা একে অপরকে মিথ্যা কথা বলেন না।

 

২. আপনি রাগের বশে কাজ করেন না।

HuffPost Canada

HuffPost Canada

হঠাৎ করে ঝগড়া বেঁধে গেলেও আপনি শান্ত থাকার চেষ্টা করেন এবং বিষয়টাকে নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে দেন না।

 

৩. অন্তরঙ্গতার বিষয়ে আপনি এবং আপনার সঙ্গী একই লেভেলের 

Giphy

Giphy

আপনাদের দুজনের মধ্যে ভালো বুঝাপড়া রয়েছে এবং স্নেহ ভালবাসা প্রদর্শনে একই মত রয়েছে। এছাড়াও আপনারা কখনোই একে অপরকে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়তে দেন না। 

 

৪. আপনি সত্যিকারে কথা বলতে এবং শুনতে আগ্রহী।

আপনাদের সম্পর্কের মধ্যে একজন কথা বললে আরেকজন সেটা অগ্রাহ্য করেন না। আপনারা ধৈর্য সহকারে একে অপরের কথা শুনেন এবং একটি কার্যকর পদ্ধতিতে যোগাযোগ করেন।

 

৫. আপনারা প্রতিদিন একে অপরকে ‘আই লাভ ইউ’ বলেন

Giphy

Giphy

এটা আপনার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ! মেজাজ থাকা সত্ত্বেও আপনারা একে অপরের কাছে কৃতজ্ঞ।

 

৬. আপনারা দুজনই সম্পর্কের প্রত্যাশা কি তা জানেন।

Univision

Univision

আপনারা দুজনের প্রত্যাশা নিয়ে নিয়ে আলোচনা করেন, যা আপনাকে দুঃখ, কষ্ট এবং হতাশা থেকে আসলেই রক্ষা করতে সহায়তা করে।   

 

৭. আপনি আপোসে যান

Bustle

Bustle

আপনারা দুজনই জানেন যে, জীবনটা ফুলশয্যা নয়- তাই কোন অনুশোচনা ছাড়াই মেনে নিতে এবং আপোসে যেতে ইচ্ছা পোষণ করেন।

 

৮. আপনি আপনার সম্পর্কটাকে অগ্রাধিকার দেন

This Northern Native

This Northern Native

আপনাদের দুজনের কাছে জীবনটা উন্মত্ত অস্থির। কিন্তু তারপরও আপনারা প্রতিদিন একে অপরকে সময় দেওয়ার সময় যথেষ্ট সময় বের করেন।

 

৯. আপনারা দুজন একে অপরকে সাপোর্ট করেন।

Giphy

Giphy

আপনারা যেকোন পরিস্থিতিতে একে অপরকে সাপোর্ট করেন। যাইহোক, আপনি যেকোন বিষয়ের সীমা কতটুকু তা জানেন এবং কোন ভুল খুঁজে পেলে আনন্দিত হন না।

 

১০. আপনি সর্বদা সঠিক হওয়ার প্রয়োজন বোধ করেন না এবং কিভাবে ক্ষমাপ্রার্থী হতে হয় তা জানেন।

www.huffpost.com

www.huffpost.com

আপনারা প্রথমে আপনাদের ইগোকে রাখতে চান না, পরিবর্তে একে অপরকে প্রথমে রাখতে চান।

 

১১. আপনি ব্রেকআপ ছাড়াই ভিন্ন মত পোষণে বিশ্বাসী

Giphy

Giphy

আপনারা দুজনই ভালভাবে জানেন যে সববিষয়ে দুজনের মতামত সবসময় এক হবে না এবং এটা আপনাদের জন্য ঠিক আছে। আপনি ছোটখটো ঝগড়ার পর ব্রেকআপ করার জন্য খালি হুমকি দেন না।

 

১২. আপনারা একে অন্যের প্রশংসা করেন

Johns Hopkins Medicine

Johns Hopkins Medicine

ছোট বা বড় যাই হোক না কেন, আপনারা সেই কাজে একে অপরকে প্রশংসা করেন। আপনারা সত্যিকারে একে অপরকে মূল্যায়ন করেন এবং সেটা প্রকাশ করতে লজ্জাবোধ করেন না।

 

১৩. আপনি প্রতিদিন কিস করেন

Today Show

Today Show

চুম্বন একে অপরকে এমনকি একটা কথা না বলেও অনুভব করার একটা সেরা উপায়। এটা একে অপরকে বিশেষ করে তোলার এবং ভালবাসার একটা ছোট উপায়।

 

১৪. আপনি সৎ এবং উদার

ravi singh

ravi singh

আপনার দুজনের মধ্যে বিচার করার কোন বিষয় নেই। আপনারা একে অপরকে একটি নিরাপদ স্থান হিসেবে মনে করেন, যেখানে গভীরতম ইচ্ছা এবং অস্পষ্ট বিষয় সহজেই শেয়ার করা যেতে পারে।

 

১৫. আপনারা একে অপরের বেস্ট ফ্রেন্ড

Bustle

Bustle

আপনারা দুজন একে অপরের বেস্ট ফ্রেন্ড। আপনারা শুধুমাত্র রোমান্স করেন না, বরং মজাও করেন!

 

১৬. আপনারা একে অপরকে ব্যক্তিগত স্পেস দেন

আপনারা আপনাদের সম্পর্কের মধ্যে হীনতাকে স্থান দেন না। আপনারা বুঝতে পারেন যে, আপনাদের মধ্যে কখন একা থাকার জন্য কিছুটা সময়ের প্রয়োজন।

 

১৭. অর্থনৈতিক এবং জীবনের লক্ষ্যের বিষয়ে একই মত

Giphy

Giphy

আপনারা পরিবারে সমানভাবে অবদান রাখেন এবং জানেন যে টাকার ব্যাপারে বেপোয়া হওয়া উচিৎ নয়।

এছাড়াও কিছু ভিন্নতা থাকা সত্ত্বেও আপনারা একই জীবনের লক্ষ্য গুরুত্বের সাথে শেয়ার করেন এবং একই ভবিষ্যৎ গড়ার স্বপ্ন দেখেন।

 

১৮. আপনি আপনার সম্পর্কের অসম্পূর্ণটা স্বীকার করেন এবং কাজ করে যান।

Billy Graham Evangelistic Association

Billy Graham Evangelistic Association

 

আপনি কি এই মতামতের সাথে একমত? যদি হন তাহলে এগুলো অনুশীলন করুন, দেখবেন পরে আপনাকে আর একা থাকতে হবে না। 
 

 



জনপ্রিয়