সহজ সম্পর্কের সত্য প্রত্যেকেরই জানা উচিৎ  সহজ সম্পর্কের সত্য প্রত্যেকেরই জানা উচিৎ

সহজ সম্পর্কের সত্য প্রত্যেকেরই জানা উচিৎ

একটি সম্পর্ক নিয়ে এতো কিছু লেখা হয়েছে যে, কোনটা সত্য বা কোনটা সঠিক-বেঠিক তা নির্ধারণ করা কঠিন। 

আজকে আমরা সম্পর্কের কিছু বাঁধাধরা প্রচলিত নিয়মগুলো সংগ্রহ করেছি যা আপনাকে অবিলম্বে বাতিল করতে হবে।  

 

১. সম্পর্কের শুরুতে আবেগ থাকতে হবে

© brightside

© brightside

সব সম্পর্কই অবিশ্বাস্য মোহের সাথে শুরু হয় না। সঙ্গীর প্রতি মনোযোগ দেয়াটা শুধুমাত্র আবেগ এবং প্রাণবন্তই নয় বরং এটি আপনার প্রতি পাশের ব্যক্তির নিরাপত্তা এবং স্বাচ্ছ্যন্দ অনুভব করার একটা অনুভূতি। একটি দৃঢ় সম্পর্ক স্থাপনের জন্য, আপনারা দুজন একসাথে কোন বিষয়ের জন্য হাসতে পারেন এবং আপনাদের একে অপরকে বিশ্বাস করাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

 

২. সুখী সঙ্গীদের আগ্রহ একই থাকবে

© brightside

© brightside

প্রত্যেক ব্যক্তির নিজস্ব আগ্রহ এবং শখ আছে। এমনটা কখনোই আশা করবেন না যে, আপনি যা করতে  পছন্দ করেন তা আপনার সঙ্গীরও পছন্দ হতে হবে! অথবা আপনাদের পছন্দের মধ্যে মিল না থাকলে আপনাদের মধ্যে কথা বলার কিছু থাকে না এবং এতে আপনারা দুজন সুখী হবেন না এমনটি মনে করতে নেই। বিপরীতভাবে, ব্যক্তিগত আগ্রহগুলো আপনাকে আপনার সঙ্গীর চোখে আরও আকর্ষণীয় করে তুলবে।

 

৩. সুখী দম্পতিরা কখনোই ঝগড়া করে না

© brightside

© brightside

যারা কখনোই ঝগড়া করেন না তারা সাধারণত কোন কিছুর কেয়ার করেন না। সমস্যা ছাড়া দম্পতিরা সাধারণত তাদের নিজ গতিতে ব্রেকআপের দিকে অগ্রসর হন। তাই বলে আমরা বলছি না যে, খারাপ ভাষায় গালিগালাজ করা বা নির্যাতন করা ঠিক, কিন্তু ছোটখাটো ঝগড়া হওয়ায় চিন্তার কিছু নেই। এটা প্রত্যেকের জীবনেই ঘটে এবং এইভাবেই আপনি এবং আপনার সঙ্গী একে অপরকে বুঝতে শিখবেন। অভাবপূরণ সবসময় সুন্দর হয়।

 

৪. সুখী দম্পতিরা একে অপরের আত্মীয়-স্বজন এবং বন্ধুদের খুব পছন্দ করে

© brightside

© brightside

আপনার সঙ্গীকে নিঃশর্তভাবে আপনার পরিবার এবং বন্ধুদের পছন্দ করতে হবে এমনটি আশা করবেন না। আপনাকেও আপনার সঙ্গীর পরিবারের ভক্ত হতে হবে না। আপনারা সম্পর্কের জন্য শুধুমাত্র একে অপরকে বাছাই করেছেন। এর পর, আপনাকে শুধু অন্যদের সাথে পারস্পরিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে যাতে কেউ অপমানিত না হয়।

 

৫. সুখী দম্পতিরা সবসময় একসাথে থাকে

© brightside

© brightside

আপনি যদি মনে করেন যে সুখী দম্পতিরা কখনো আলাদা হয় না, তাহলে এটি আপনার একটি বিভ্রম। অতি শীঘ্রই বা পরে, প্রত্যেক ব্যক্তিই কিছু সময় একা অতিবাহিত করতে চায়। সুসংগত সম্পর্কের সঙ্গীরা এটা বুঝতে পারে এবং একে অপরকে অকাতরে ব্যক্তিগত স্থানের সুযোগ দিয়ে থাকে। এই চাওয়ার জন্য নিজেকে কখনো দোষারোপ করবেন না। পারিবারিক কর্তব্য থেকে কিছু বিশ্রামের প্রয়োজন হয়। এর মানে এই নয় যে আপনার সঙ্গীর প্রতি আপনার ভালোবাসা কমে যাবে।

 

বোনাসঃ

© brightside

© brightside

অনেক সময় আমরা মুভি বা বিজ্ঞাপন থেকে "নিখুঁত" সম্পর্কের বৈশিষ্ট্যগুলি শিখি। কিন্তু সেগুলো বাস্তবতার সাথে কতটুকু মিল আছে?

 

 



জনপ্রিয়