মঙ্গল গ্রহে থ্রিডি বাড়ি তৈরির প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে ভার্টিকাল পড বাড়ি!                      মঙ্গল গ্রহে থ্রিডি বাড়ি তৈরির প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে ভার্টিকাল পড বাড়ি!

ভার্টিকাল পডই হবে মঙ্গল গ্রহে মানুষের বাড়ি!

পৃথিবীর বাইরে বাড়ি বানানোর ও সেখানে জীবন যাপনের স্বপ্ন মানুষের অনেক আগ থেকেই ছিলো। আর সেই স্বপ্ন মনে হয় এবার সত্য হতে যাচ্ছে! মঙ্গলে বাড়ি তৈরি করে এখানে মানুষের বসবাস নিশ্চিত করার কথা মাথায় রেখে নাসা গত ৪ বছর ধরে থ্রিডি বাড়ি নির্মানের প্রতিযোগিতা বিচার বিশ্লেষণের পর সেখানে ভার্টিকাল পড নামের থ্রিডি বাড়িকে নির্বাচিত করেছে! পৃথিবীর গতানুগতিক বাড়ি ঘর যেভাবে নির্মাণ করা হয় মঙ্গলে কিন্তু সেভাবে বাড়ি নির্মাণ করা হবে না! তাহলে কিভাবে বাড়ি বানানো হবে মঙ্গলে?

২০১৫ সালে শুরু হয়ে ২০১৯ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ৪ বছর সারা বিশ্ব থেকে অনেক টিম নাসার মঙ্গল গ্রহে থ্রিডি বাড়ি নির্মাণের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে যেখান থেকে ফাইনালে মাত্র ২টি টিম উত্তীর্ণ হয়! সেখান থেকে সকল বিবেচনায় থ্রিডি ভার্টিকাল পড নামক বাড়ির ডিজাইনটি প্রথম হয়! চলুন জানা যাক কিভাবে এই বাড়ি নির্মাণ করা হবে এবং এর সাথে সংশ্লিষ্ট অন্যন্য মজাদার বিষয়গুলো। 

প্রতিযোগিতা কেমন ছিলোঃ

২০১৫ সালে শুরু করা হয়েছিলো এই প্রতিযোগিতাটি যা ৩ টি ধাপে বিভক্ত ছিলো যথাক্রমে- ডিজাইন, ম্যাটরিয়াল টেকনোলজি বা বিষয়বস্তুগত প্রযুক্তি এবং নির্মাণ। চুড়ান্তভাবে ২ টি দল ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়। পেনসিলভেনিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটি ও এ আই স্পেস ফ্যাক্টরি ছিল ফাইনালে স্থান করে নেয়া দুটি দল।মঙ্গলের নির্মিত হবে সেই মূল বাড়ীর এক তৃতীয়াংশ আকারের বাড়ি নির্মাণের জন্য তাদের মোট ৪ দিন সময় দেয়া হয়েছিল।এ আই স্পেস ফ্যাক্টরির তৈরি করা ভার্টিকাল পড ডিজাইনটি প্রথম পুরস্কার জিতে নেয়। তাদের এই থ্রিডি বাড়িটি প্রিন্ট করতে ৩০ ঘন্টা লেগেছিল। তাদের এই আইডা কম্পিটিশানে জেতার জন্য নাসার পক্ষ থেকে ৫,০০,০০০ ডলার পুরস্কার দেয়া হয়। 

কেমন ছিলো বাড়ীটিঃ 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

ভার্টিকাল পডটির নাম দেয়া হয়েছে মার্শা'স থ্রিডি ভার্টিকাল পড।এই ভার্টিকাল পডের এর আদর্শ প্রটোটাইপটিকে শক্তিশালী এবং হালকা ওজনের হতে হবে অনেকটা বিমানের মতো! 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

এই ভার্টিকাল পডের জানালাগুলো ভেতরে বসবাসকারী মানুষকে সোলার রেডিয়েশান বা আলোক বিকিরণ থেকে সুরক্ষা প্রদানের ক্ষমতা আছে!  

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

এই ভার্টিকাল পডের ভেতর বেষ্টনী বিশিষ্ট ছোট কক্ষ রয়েছে যেখান থেকে স্পেস সুট বের করা হয় এবং এটা মঙ্গলে গবেষণারত রোভার যানের পোতাশ্রয় হিসেবে ব্যবহৃত হবে। 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

ঘুমানো ও কাজ করার জন্যও এই পডে স্থান রয়েছে। বাগান, রান্নাঘর, এক্সারসাইজ কক্ষ এবং বিনোদনের ব্যবস্থা ও রয়েছ এত ভার্টিকাল পডের ভেতর! 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

বাহিরের অংশে অর্থাৎ এই পডের দেয়াল দুটি স্তর বিশিষ্ট যার ফলে ভেতরের তাপমাত্রা একটা নির্দিষ্ট মাত্রায় ধরে রাখা যাবে। বাসিন্দারা বাড়ির ভেতরে প্রজ্বালিত সিঁড়ি বেয়ে পরবর্তী তলায় যেতে পারবেন! 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

চূড়ান্ত পর্বে দর্শকদের সামনেই একটি ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল রোবট ১৫ ফুট লম্বা ৫৫০ স্তর বিশিষ্ট উপাদান দিয়ে  মাত্র ৩০ ঘন্টায় ভার্টিকাল পড বাড়িটি নির্মাণ করেছে।

© AI SpaceFactory/ Materials collected from Mars

© AI SpaceFactory/ Materials collected from Mars

এক্ষেত্রে বাড়িটি বানানোর জন্য কোম্পানিটি মঙ্গল গ্রহ থেকে সংগৃহীত উপাদান ব্যবহার করে নিজস্ব পদ্ধতি তৈরি করেছে।মজার বিষয় হচ্ছে এই পদ্ধতিতে পানির কোন ব্যবহারই নেই। 

© AI SpaceFactory/Durability test

© AI SpaceFactory/Durability test

নাসার ডিউরেবিলিটি ও ক্রাশ টেস্টে বাড়িটি উত্তীর্ণ হয়েছে। বাড়িটি কোন ধরণের আঘাত থেকে নিজেকে কতটা সুরক্ষিত রাখতে পারে, এটায় কোন ছিদ্র বা লিক আছে কিনা, এটার শক্তি কেমন ইত্যাদি পরীক্ষা নিরীক্ষার মাধ্যমে নাসা এই ডিজাইনকে স্বীকৃতি দিয়েছে।যদিও প্রচণ্ড শক্তি দিয়ে চাপ দেয়ার ফলে বাড়িটির বাইরের আস্তরের সামান্য কিছু অংশ ভেঙ্গে খশে পড়েছিলো, তবে তা বড় কোন সমস্যা নয়। 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

যেখানে অন্যন্য দলগুলো কম উঁচু গম্বুজ আকৃতির বাড়ি ডিজাইন করেছিল, এ আই স্পেস ফ্যাক্টরি বলেছে ভার্টিকাল পড ডিজাইনই মঙ্গলে সবচেয়ে আদর্শভাবে বায়ুমণ্ডলীয় চাপ সামলাতে পারবে। ভার্টিকাল পড প্রিন্টিং এ ব্যবহৃত ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল রোবট মঙ্গলের ভূমিতে এদিক সেদিক না ঘুরেই এক জায়গায় দাঁড়িয়ে পুরো বাড়িটি নির্মাণ করতে পারেবে। 

© AI SpaceFactory

© AI SpaceFactory

এ আই স্পেস কোম্পানি শুধু মঙ্গল গ্রহেই না বরং পৃথিবীর বুকেও এই ধরণের ভার্টিকাল পড বাড়ি পৃথিবীর আবহাওয়ার উপযোগী করে বানানোর পরিকল্পনা করছে, এক্ষেত্রে তারা নাসার জন্য বানানো ভার্টিকাল পডের প্রটোটাইপ কাঠামোটির উপাদানগুলো পুনরায় ব্যবহার করে একই ধরণের বাড়ি পৃথিবীর জন্যও নির্মাণ করবে। মঙ্গলের জন্য তৈরি করা হবে মার্শা (Marsha) আর পৃথিবীর জন্য যে ভার্টিকাল পড বাসস্থান বানানো হবে তার নাম রাখা হয়েছে- টেরা (Tera)। 

আগামি সেপ্টেম্বারের শুরুতেই টেরা নামক মঙ্গলের আদলে পৃথিবীর ব্যবহার উপযোগী বাসস্থান বিখ্যাত ইন্ডিগোগো কোম্পানিতে লঞ্চ বা চালু করা হচ্ছে। এ বিষয়ে এ আই স্পেস কোম্পানির সিইও এবং প্রতিষ্ঠাতা ডেভিড মেলোট বলেন, " আমরা এই এই প্রযুক্তিগুলো মহাশূণ্যে ব্যবহারের জন্য তৈরি করে থাকি, তবে পৃথিবীর বুকে আমরা যেভাবে বাড়ি ঘর নির্মাণ করে থাকি সেক্ষেত্রে এই প্রযুক্তির একটা রূপান্তর ঘটানোর জন্য যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে! তিনি এক বিবৃতিতে আরো জানান যে, " আমরা শস্য থেকে তৈরি প্রাকৃতিক ও প্রকৃতিতেই জৈব বিকৃয়া সম্পন্ন উপাদান ব্যবহার করে বাড়ি নির্মাণ করতে পারবো এর ফলে বর্তমান সময়ে যে নির্মাণ কাজে অবশিষ্ট থাকা বিপুল পরিমাণ অজৈব আবর্জনা সংক্রান্ত সমস্যাকে চিরতরে বিলুপ্ত করতে পারবো।" 

বন্ধুরা আয়োজন সম্পর্কে আপনাদের মতামত জানাতে ভুল করবেন না যেন! 

Source: www.businessinsider.com and 

Picture Credit: © AI SpaceFactory 



জনপ্রিয়