বাচ্চা প্রসবের খন্ডচিত্র!          বাচ্চা প্রসবের খন্ডচিত্র!

গর্ভবতী মায়েদের সম্পর্কে অত্যন্ত চমৎকার এই তথ্যগুলো যে কাউকেই অবাক করে দেবে!

প্রতিদিন প্রায় ৩,৫০,০০০ শিশু পৃথিবীতে জন্মলাভ করে! গর্ভবতী নারীদের সংখ্য এত বেশি হওয়ায়, অনেকেই মনে করেন যে, গর্ভধারণ সম্পর্কে সবকিছুই জানা হয়ে গেছে! কিন্তু ব্যাপারটা আসলে তেমন না! গর্ভকালীন সময়ে একজন হবু মা'কে বিভিন্ন পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়, যে পরিবর্তনগুলোর মধ্যে কিছু পরিবর্তন সত্যি বিস্ময়কর!  আজ আপনাদের আমরা গর্ভাবস্থা সম্পর্কে এমন ৯ টি চমৎকার ও বিস্ময়কর তথ্য জানাচ্ছি যা খুব কম মানুষই জানেন! 

১. সবচেয়ে দীর্ঘতম গর্ভধারণ সময় ছিল ১ বছর ১০ দিন! 

© Depositphotos.com

© Depositphotos.com

লস এঞ্জেলসের ২৫ বছর বয়সী একজন মা ২৮০ দিনের পরিবর্তে ৩৭৫ দিনের মাথায় বাচ্চা প্রসব করেছিলেন! 

২. গর্ভবতী মা কিংবা নব্য মায়েরা যে কোন বাচ্চার ক্রন্দন শোনার সাথে সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে  বুকের দুধ নিঃসরিত করতে পারেন ( এমনকি বাচ্চা নিজের না হলেও!)

© Depositphotos.com

© Depositphotos.com

অক্সিটোসিন নামে একটি হরমোনের উপস্থিতির কারণেই মায়েদের বুকে দুধ তৈরি হয়! শুধুমাত্র বাচ্চা স্তন চুষলেই যে মায়ের বুকের দুধ আসবে তেমনটা না বরং বাচ্চার কথা মনে পড়লে, কোন বাচ্চার কান্না শুনলে কিংবা বাচ্চার ছবি দেখলেও মায়ের বুকের দুধ নিঃসরিত হতে পারে! 

৩. গর্ভাবস্থার সময়কালে জরায়ু একটা জামের গোটার আকৃতি থেকে প্রসারিত হয়ে তরমুজের আকৃতিতে পরিণত হতে পারে! 

© Depositphotos.com

© Depositphotos.com

গর্ভাবস্থার প্রথম দিকে এটা একটা জামের বিচির মত থাকে যা ২য় অবস্থায় একটা পেঁপের আকৃতিতে পৌছায় এবং ৩য় ও শেষ ধাপে একটা বড় তরমুজের আকৃতিতে পৌছায়! 

৪. জুতার আকারে পরিবর্তন!

Women's Health

Women's Health

গর্ভাবস্থায় শরীরে বাড়তি তরলের এবং রক্তের উপস্থিতি থাকায় গর্ভবতী মায়ের শরীর ফুলে যায়! বাচ্চার বিকাশের শর্ত পূরণের জন্য গর্ভবতী মায়ের শরীরে ৫০% বেশি তরল উৎপন্ন হয়! মুখমন্ডল, হাত, পা, গোড়ালী এসব স্থান ফুলে যেতে পারে! অনেক ক্ষেত্রে এক সাইজ বড় জুতা প্রয়োজন হয়! 

৫. অধিকাংশ নারীদের মাথায় গর্ভাবস্থায় স্বাভাবিকের তুলনায় চুল বেশি দ্রুত বড় হয়! 

Popsugar

Popsugar

হরমোন সংক্রান্ত পরিবর্তনের ফলে গর্ভবতী মায়ের মাথায় চুলের পরিমাণ স্বাভাবিকের তুলনায় বেড়ে যায়, এবং দ্রুত বড় হয়, পাশাপাশি চুল পড়া অনেকটা কমে যায়! শুধু তাই নয় শরীরের বিভিন্ন স্থানে যেখানে তেমন কোন চুল বা পশম ছিল না সেখানেও চুল বা পশম হতে পারে! 

৬. মায়ের মস্তিষ্ক মৃত ঘোষণা দেয়ার পর ও বাচ্চা প্রসব করা সম্ভব! 

© Depositphotos.com

© Depositphotos.com

যদিও এটা একদমই গতানুগতিক নয়, তবে মায়ের মস্তিষ্ক মৃত ঘোষণা দেয়ার পর ও তার শরীর বাচিয়ে রেখে বাচ্চা প্রসব করা সম্ভব!

৭. এপিডোরাল এনেস্থেসিয়া ছাড়াই ১৪ পাউন্ডের কাছাকাছি বাচ্চা প্রসব সম্ভব!

instagram.com/heraldsunphoto

instagram.com/heraldsunphoto

নরমাল ডেলিভারি যথেষ্ট যন্ত্রণাদায়ক, এজন্যই অনেক নারীরা এপিডোরাল এনেস্থেসিয়া গ্রহণে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন যার সাহায্যে ব্যাথা অনেকটা কমানো সম্ভব! অস্ট্রেলিয়ান একজন মা কোন এপিডোরাল এনেস্থেসিয়া ছাড়াই ১৪ পাউন্ডের কাছাকাছি বাচ্চা প্রসব করতে সক্ষম হয়েছেন! 

৮. গর্ভাবস্থায় রক্ত দ্রুত জমাট বাঁধে! 

© Depositphotos.com   © Depositphotos.com

© Depositphotos.com © Depositphotos.com

বাচ্চা ডেলিভারির সময় মায়ের শরীরের রক্ত স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক দ্রুত জমাট বাঁধে যার ফলে রক্ত ক্ষরণের সমস্যা বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই নিইয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়!

৯. আপনি এবং আপনার বাচ্চার একই খাবারের প্রতি ভালোবাসা থাকতে পারে!

© Shutterstock.com   © Depositphotos.com

© Shutterstock.com © Depositphotos.com

মা যে সকল খাদ্য সাধারণত গ্রহণ করেন সে সব খাদ্যের স্বাদই বাচ্চার কাছে পৌছায় যার ফলে ভুমিষ্ট হবার পর বাচ্চা নির্ধারিত সময় অতিবাহিত করার পর মায়ের পছন্দের খাদ্যই খেতে বেশি পছন্দ করে! 

প্রত্যেক মায়েরই গর্ভকালে এক স্বতন্ত্র অভিজ্ঞতা তৈরি হয়! আপনাদের নিজস্ব অভিজ্ঞতা আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন! 



জনপ্রিয়