জেদি মানুষদের বাড়ি...             জেদি মানুষদের বাড়ি...

অত্যন্ত জেদি মানুষগুলো কোন অবস্থাতেই বাড়ি সরাতে রাজি হয়নি!

আমরা সকলে সমাজের দূর্বল মানুষটিকে ভালোবাসি, তাই না? কেউ যাদের নিপীড়ন করা হবে না, যারা যে কোন অন্যায়ের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়াবেন হোক সেটা ক্ষমতাশালী প্রতিষ্ঠান কিংবা সরকারের বিরুদ্ধে, এই মানুষগুলোই আমাদের জন্য অনুপ্রেরণা যোগায় এবং আশা দেখায় যে, ছোট হলেও আমরা দূর্বল নই!

সাধারণত যারা কোন নির্মাণ কাজের প্রয়োজনে তাদের ভিটা বাড়ি সরকার কিংবা অন্য কোন নির্মাণ সংস্থার কাছে মোটা অংকের টাকার প্রস্তাব স্বত্তেও বিক্রি করেন না, তাদের ইংরেজিতে বলা হয় Stubborn Nails যার বাংলা অর্থ হচ্ছে অদম্য বা অনমনীয় পেরেক। এর অর্থ হচ্ছে যে পেরেক কোথাও এমনভাবে আটকে আছে সেটা বাঁকানো কিংবা দাবানো কারো পক্ষেই সম্ভব না! আমরা আজ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের এমন কিছু জেদি মানুষের বাড়ির ছবি আপনাদের কাছে উপস্থাপন করছি যারা সরকারী কিংবা শক্তিশালী রিয়েল এস্টেট কোম্পানির মোটা অঙ্কের টাকার কাছে নিজেদের বাড়ি বিক্রি করেনি, যার ফলাফল ছিল অত্যন্ত হাস্যকর! 

 

“সালাহ অধজানি” তার কফি হাউসটি বিক্রি করতে রাজি হননি। তিনি বিগত ৪৬ বছর ধরে এই কফি হাউসটি পরিচালনা করছেন। এটি ফ্রান্সের উত্তরাংশে বর্তমানে একাই দাঁড়িয়ে আছে। এর কারণে কতৃপক্ষকে বাড়িটিকে রেখেই রাস্তা ঘুরিয়ে নির্মাণ করতে হয়েছিল! 

Getty Images

Getty Images

 

মিসেস উ পিং নামের একজন ভদ্র মহীলা এই বাড়িটি কোনমতেই কনট্রাক্টরের কাছে বিক্রি করেন নি, মোট ২৪১ জন মালিক ছিলেন এই পুরো জায়গাটির বিভিন্ন স্থানে যারা বাড়ি বিক্রি করে অন্যত্র চলে যান। পরে তার বাড়িটিকে ঘিরেই খনন কাজ শুরু করে নির্মাতারা! প্রশ্ন হছে তিনি কি করে এত উঁচু স্থান থেকে নিচে নামেন! 

venture160

venture160

 

সেলুনের মালিক এতই একরোখা যে তার সেলুনটি চড়া দামেও নির্মাতার কাছে বিক্রি করতে রাজি হয় নি, বাধ্য হয়ে নির্মাতা তার সেলুনের অংশএর চারপাশে ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করে! 

AllCarsEatGas

AllCarsEatGas

 

 সাংহাই শহরের প্রধান একটি রাস্তার মাজখানে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে এই বাড়িটি, আর এজন্যই এখানে প্রচুর জানযট তৈরি হয়! 

Internet

Internet

 

চীনের কুনমিং এ অবস্থিত এই বাড়িটির মালিক বিল্ডার্স কোম্পানির কাছে বাড়ি বিক্রি করে নি, এখন বিল্ডার্স কোম্পানি তার বাড়ির চারপাশে গভীর খাঁদ তৈরি করেছে। বাড়িওয়ালাকে এই খাঁদ পার হয়ে মূল সড়কে যেতে হয়! 

AllCarsEatGas

AllCarsEatGas

 

চীনের ন্যানিং শহরে মূল রাস্তার মাঝখানে অবস্থিত এই বাড়ির মালিকের সাথে চুক্তি ঠিকভাবে হয়নি, এজন্য তিনি ও বাড়ি ছাড়েন নি। ফলাফলস্বরূপ বাড়িটিকে রেখেই সড়ক বানাতে হয়েছে! 

China Stringer Network / Reuters Report

China Stringer Network / Reuters Report

 

জাপানের নারিটা বিমানবন্দরের রানওয়ে এই কৃষকের আবাদি জমিকে নিয়েই করতে হয়েছে! কারণ তিনি জমি ছাড়বেন না! ওনার জন্যই রানওয়েকে আঁকাবাঁকা করে ঘুরিয়ে তৈরি করতে হয়েছে! বাংলাদেশে হলে এই লোক এতদিন জেলহাজতে থাকতেন! 

Google Maps Report

Google Maps Report

 

টিলার উপরে একটা বাড়ি নিশ্চয়ই দেখতে পাচ্ছেন! এই বাড়ির মালিক ও তার বাড়ি ডেভলপারদের কাছে বিক্রি করতে রাজি হননি এজন্য এখন চারপাশ খুঁড়ে তার বাড়ি আকাশে তুলে দিয়েছে! 

China Stringer Network / Reuters

China Stringer Network / Reuters

 

একটু খেয়াল করে দেখুন, একটু অদ্ভুত লাগছে না ব্যাপারটা। বিশাল অট্টালিকার মাঝে ছোট্ট একটি বাড়ি! আসলে এই বাড়িটির মালিক হচ্ছেন এডিথ মেইসফিল্ড। বাড়িটি প্রায়  ১০০ বছরের ও পুরোনো। ভবন নির্মাতা এডিথকে বাড়িটি বিক্রির জন্য প্রায় ১ মিলিয়ন ডলারের বেশী দিতে রাজি হয়েছিল। কিন্তু অনেক চেষ্টা করা সত্ত্বেও নাছোড়বান্দা “ইদিথ ম্যসিফিল্ড” তাঁর বাড়িটি বিক্রি করতে রাজি হননি। পরবর্তীতে তাঁর এই গল্পে অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি করা হয় এ্যানিমেশন মুভি “আপ”।   

Internet

Internet

 

প্রথমে দেখে মনে হতে পারে দুপাশ থেকে বিশাল দুটি অট্টালিকার মাঝখানে ছোট্ট বাড়িটিকে চেপে মেরে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে! মেরি কুক নামে একজন নারী এই বাড়িটির মালিক। তাঁর প্রতিবেশীরা সবাই নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের কাছে তাদের বাড়ি ও জমি চড়া দামে বিক্রি করে দেয়। কিন্তু সকলে স্রোতের সাথে গা ভাসালে ও মেরি তেমনটা করেন নি। বাধ্য হয়ে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ছোট্ট বাড়িটিকে সমীহ করেই এর দুপাশে ভবন নির্মাণ করে!

Internet

Internet

 

পাকা হোক তবু ভাই পরের বাসা, নিজ হাতে গড়া মোর কাঁচা ঘর খাসা! এই বাড়ির মালিক ভেরা ককিং এর সাথে কবিতার চয়নের ভারী মিল রয়েছে। বাড়িটির ডানে যে অট্টালিকা দেখতে পাচ্ছেন সেটা আমেরিকার ধনকুবের ও রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের! ভেরা ককিং এর কাছে বাড়িটি কেনার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়েছিল বব গুচিওন এবং ডোনাল্ড ট্রাম্প! কিন্তু ভেরা তাঁর সিদ্ধান্তে এতটাই অটল, শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প ভবন করলেও তাঁর বাড়ি নিরাপদ রেখেই সব কিছু করতে হয়েছিল!

 ©Library of Congress , Press of Atlantic City

©Library of Congress , Press of Atlantic City

 

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নের এই সুবিশাল দালানটা হওয়ার কথা ছিল সমান্তরাল, কিন্তু মাঝখানের দিকে বেঁকে যাওয়ার কারণ ছোট্ট বাড়িটির একঘুঁয়ে মালিক। কারণ অন্য সবাই তাঁদের ভিটাবাড়ি বিক্রি করলেও সে করেনি!

 ©EddieAteDynamite

©EddieAteDynamite

 

কানাডার টরন্টোর এই দোতালা বাড়ির জেদি মালিক তাঁর বাড়ি বিক্রি করতে রাজি হয় নি, ফলাফল স্বরূপ বাড়িটি মাঝখান দিয়ে কেটে দু ভাগ করা হয়েছিল! 

 ©The Huffington Post

©The Huffington Post

 

আমার ভয় হচ্ছে, রাতের বেলা গাড়িগুলো কি করবে! চীনা সরকার এক জেদি বাড়ি মালিকের বাড়িকে মাঝখানে রেখেই হাইওয়ে রাস্তা নির্মাণ করতে বাধ্য হয়েছে! বাড়িটিতে এখন আর কেউ থাকেনা। তবে মজার বিষয় হচ্ছে, এই বাড়িটিতে এখন কেউ থাকে না! কিন্তু তাতে কি! বাড়িটি কিন্তু ঘাড় ত্যাড়া করে চোখ রাঙিয়ে গৌরবে দাঁড়িয়ে আছে!  

 ©news.nationalpost.com

©news.nationalpost.com

 

রেন্ডাল এ্যাকার তার ছোট্ট বাড়িটি বিক্রি করতে রাজি হননি। এটি পোর্টল্যান্ডের ডাউনটাউনে অবস্থিত। পরবর্তীতে বাধ্য হয়েই কতৃপক্ষ বাড়িটিকে অক্ষত রেখেই তাঁদের ক্রয়কৃত অংশে পোর্টল্যান্ড স্টেট ইউনিভার্সিটির আবাসিক হল নির্মাণ করে! 

 ©ackerlaw.com , commons.wikimedia.org

©ackerlaw.com , commons.wikimedia.org

 

 তিনটি বাড়ির মালিকই মনে হয় জাতভাই! কেউ ই সরকারের কাছে তাদের বাড়ি বিক্রি করতে রাজি হয় নি! পরে কর্তৃপক্ষকে তাদের রাস্তা ও ফ্লাইওভার বানানোর পুরো ডিজাইনটাই পরিবর্তন করে গোলাকার রাস্তা ও ফ্লাইওভার নির্মাণ করতে হয়েছে।  

 ©chinadaily

©chinadaily

 

বাড়িটি বিক্রি করতে রাজি হননি। তবে বাড়িটির মাথার উপর দিয়ে ব্রিজ তৈরি হয়ে গেছে।

 ©Dom Dada

©Dom Dada

 

 প্রথমে বাড়ির মালিককে ৩ মিলিয়ন ডলার দেয়ার প্রস্তাব দেয় নির্মাতা প্রতিষ্ঠান, কিন্তু রাজি হয়নি বাড়ির জেদি মালিক। পরে ৪ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি করে অন্য কারো কাছে! 

thecityfix , zusin Report

thecityfix , zusin Report

বন্ধুরা, আমাদের আয়োজনটি আপনাদের কেমন লাগলো? কমেন্ট করতে ভুলবেন না! সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ.... 



জনপ্রিয়