বরফ মানব ও সত্যিকারের সামুরাই!                   বরফ মানব ও সত্যিকারের সামুরাই!

অতি প্রাকৃতিক শক্তির অধিকারী এই মানুষগুলোর ক্ষমতা দেখে চমকে যাবেন!

কখনো কি দেয়ালের ওপাশে কি আছে তা ওপাশে না গিয়েই দেখার সাধ জেগেছে? কিংবা একটা আস্ত গাড়ি শক্তি দিয়ে উপরে উঠানোর ইচ্ছা হয়েছে? কনকনে শীতে উদাম শরীরে বাহিরে বসে থাকার ইচ্ছা হয়েছে? বেশ! আমরা আজ এমন কিছু অতি প্রাকৃতিক শক্তির অধিকারী মানুষের কথা আপনাদের জানাবো যাদের ক্ষমতা দেখে আপনি ঈর্ষান্বিত হবেন না হয় চমকে যাবেন!

১০. উইম হোফ- বরফ মানব! 

টাম্মো হচ্ছে তিব্বতের সাধুদের একটি ধ্যান বা তপস্যা। এর সাহায্যে মানসিক এক ধরণের বিশেষ ক্ষমতা দিয়ে পুরো শরীরের ওপর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে আসা হয়! যে সকল মানুষ এই পদ্ধতি জানেন তারা তাদের পুরো শরীরজুড়ে তাপ উৎপন্ন করতে পারেন! ডেনমার্কের ডেয়ারডেভিল বা ডানপিঠে এই ব্যক্তির নাম হচ্ছে উইম হুফ, তিনি প্রথম পশ্চিমা কোন ব্যক্তি যিনি এই অতি প্রাচীন ধ্যান পদ্ধতি বা কৌশল রপ্ত করেছেন! এই পদ্ধতি এত সহজ নয় যে আপনি চাইলেই এক দিনে বা অতি সহজে শিখে ফেলতে পারবেন! এর জন্য চাই অক্লান্ত পরিশ্রম ও সুদীর্ঘ সাধনা! 

প্রচণ্ড বরফের কনকনে ঠান্ডায় ধরতে গেলে উদাম শরীরেই এভাবে দীর্ঘ সময় অনায়াশেই বসে থাকতে পারেন তিনি! তাপমাত্রা যেখানে  মাইনাস ২০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের ও কম! একটু ভেবে দেখুন তো আপনি কত ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় শীতে কাথা বা কম্নল গায়ে না দিয়ে থাকতে পারবেন! আপনার রক্ত চলাচল বন্ধ হয়ে মরতে বেশি সময় লাগবে না যদি এমন পরিবেশে আপনাকে ১০/১২ মিনিট শীতের কাপড় ছাড়া রাখা হয়! 

HighExistence

HighExistence

শুধু বরফের ওপর না, কনকনে বরফের নিচে সঞ্চিত পানিতেও তিনি খুব স্বাভাবিক থাকতে পারেন! 

Medium

Medium

গবেষকরা তাকে বরফে ঢেকে শরীরের ভেতরে কি ঘটে সেটা জানার গবেষণা চালিয়েছিলেন। এখন পর্যন্ত তাঁর কমপক্ষে ২০টি বিশ্ব রেকর্ড রয়েছে! 

Ed Latimore

Ed Latimore

৯. লুইস সিয়ার- ইতিহাস অনুযায়ী এখন পর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী মানুষ! 

কানাডার কুইবেকে জন্মগ্রহণকারী লুইস সিয়ারকে এখন পর্যন্ত ইতিহাসের সবচাইতে শক্তিশালী মানুষ হিসেবে গন্য করা হয়।তাঁর করা ভার উত্তোলনের রেকর্ড এখনো কেউ ভাঙতে পারে নি! তিনি এক আঙ্গুল দিয়ে ৫৩৫ পাউন্ড বা ২৫০ কেজি ওজন উত্তোলন করেছিলেন এবং ব্যাক লিফটিং এ ৪,৩৩৭ পাউন্ড বা ১৯৭০ কেজি ভার উত্তোলন করেছিলেন! 

The Globe and Mail  

The Globe and Mail

মূলত তাঁর এই প্রবল শক্তির পেছনে তাঁর পিতা মাতার শারীরিক ও স্বাস্থ্যবান শরীর অনেকটা সাহায্য ৬'১'' দীর্ঘদেহী এমাজনিয়ান মা যার ওজন ছিল ২৬৫ পাউন্ড এবং ৬'৪'' লম্বার দীর্ঘদেহী বাবা যার ওজন ছিল ২৬০ পাউন্ড! 

Viral X Files

Viral X Files

শক্তিমান এই মানুষটির মৃত্যু হয়েছিল কিডনির রোগে আক্রান্ত হয়ে! তাঁর স্মৃতি রক্ষার্থে কানাডার কুইবেকে একটি ভাস্কর্য নির্মাণ ও করেছে!  

ipernity/ Louis Cyr statue

ipernity/ Louis Cyr statue

৮. নিনা কুলাগিনা- মনের শক্তি দিয়ে কোন বস্তু সড়াতেন! 

নিনা কুলাগিনাকে আপনি আট দশ জন সাধারণ গৃহিণীর মতো ছিলেন না! তিনি দাবি করেছিলেন যে তাঁর মনের শক্তি দিয়ে কোন বস্তু উত্তোলন কিংবা নড়ানোর ক্ষমতা রয়েছে! তাঁকে নিয়ে গবেষণা করার পর এ বিষয়ে সত্যতা উন্মোচিত হয়েছিল! গবেষণায় দেখা গিয়েছিল যে তিনি একটি ব্যাঙের হৃদপিন্ডের স্পন্দন তাঁর মনের ইচ্ছা মত স্বাভাবিকের তুলনায় দ্রুত করে দিচ্ছিলেন এবং সাথে সাথে কমিয়েও দিচ্ছিলেন এবং পুরো স্পন্দন বন্ধ ও করে দিয়েছিলেন! অনেকেই বলতে নিছক ফটকাবাজি ছাড়া আর কিছু না! কিন্তু ঘটনা কোন চোখের ভেলকিবাজি ছাড়া আর কিছুই না! 

Collective Evolution/Nina Kulagina

Collective Evolution/Nina Kulagina

উনি রাশিয়ার সোভিয়েত ইউনিয়িনের এক গোপন অস্ত্র ছিলেন! অনেক অসাধ্য কাজ তাকে দিয়ে করিয়েছে বলে জানা যায়! ওনাকে নিয়ে ইউটিউবে এবং ইন্টারনেটে অসংখ্য ডক্যুমেন্টারি রয়েছে চাইলে জেনে নিতে পারেন! 

James A. Conrad

James A. Conrad

৭. স্টিগ সেভারিনসেন- মানব ডলফিন! 

স্টিগ সেভারিনসেনকে মানব ডলফিন বলে আখ্যা দিলে ভুল হবে না! পাশাপাশি তিনি দীর্ঘ সময় ধরে শ্বাস আটকে রাখার জন্য ও বিখ্যাত! তিনি পানির নিচে ২২ মিনিট পর্যন্ত নিজের শ্বাস আটকে রাখতে পারেন! একটু ভেবে দেখুন এত লম্বা সময় ধরে শ্বাস ধরে রাখা চাট্টিখানি কথা না! চরম ঠান্ডা বরফের পানির নিচে তিনি শুধু অন্তর্বাস আর ডাইভিং গ্লাস দিয়ে ২৩৬ ফুট পথ একটানা পাড়ি দিয়েছিলেন! 

YouTube

YouTube

অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়াই এভাবে দীর্ঘ সময় ঠান্ডা পানির নিচে ডুবে থাকতে পারেন তিনি! 

Guinness World Records

Guinness World Records

পানির নিচে সেলফি তোলার চেষ্টা! 

Zi 字媒體

Zi 字媒體

৮. ঈসাও মাচসি- সত্যিকারের সামুরাই!

ঈসাও মাচসি কোন সাধারণ সামুরাই নন, নিনজাদের মূভি নিশ্চয়ই দেখেছেন! উনি সত্যিকারের নিনজা! ওনার দিকে আপনি যাই ছুড়ে মারএন না কেন, তিনি তলোয়ার দিয়ে সব কেটে টুকরো টুকরো করে ফেলেন! 

Swords of Northshire

Swords of Northshire

তিনি বন্দুকের ছোড়া গুলিকে ও দ্বিখণ্ডিত করতে পারেন! এতে চোখ আর সেন্স ছাড়া কিছুই ব্যবহার করেন না! 

Swords of Northshire

Swords of Northshire

৯. ড্যানিয়েল ব্রাউনিং স্মিথ- রাবার বালক!

বিস্ময়কর এই মানুষটি রাবার বালক হিসেবেই পরিচিত।তিনি নিজের শরীরকে এত বেশি নমনীয় করতে পারেন যে তিনি নিজেকে ছোট্ট বাক্সে ও ঢুকিয়ে ফেলতে পারেন! 

pinterest.com

pinterest.com

বাক্সের ভেতর রাবার বালক! 

Real life Superhumans

Real life Superhumans

হাত, পা তিনি চাইলেই স্থানচ্যুত করতে পারেন সেকেন্ডের ও কম সময়ে! ধড়কে ১৮০ ডিগ্রিতে ঘোরাতে পারেন!  

youtube.com

youtube.com

১০. নাতাশা ডেমকিনা- এক্স রে দৃষ্টি সম্পন্ন বিস্ময়কর মেয়ে! 

রাশিয়ার এই বিস্ময়কর মেয়ে ১০ বছর বয়সে দাবি করে যে, সে মানুষের শরীরের ভেতরের হাড় ও অন্যান্য অঙ্গ এবং চামড়ার নিচে কি আছে সব খালী চোখে দেখতে পারে! ডিসকভারি চ্যানেল একটি প্রতিবেদনে বিষয়টি প্রমাণ করেছিল যে, নাতাশা বাস্তবেই মানুষের শরীরের ভেতরের সব কিছুই দেখতে পান। হাড়ের কোথায় ফ্র্যাকচার আছে, কিংবা কোথাও কোন ধাতু আটকে আছে সেটা স্পষ্ট করেই দেখে বলে দিতে পারে নাতাশা! বর্তমানে সে একটি মেডিক্যালে কাজ করছে! 

Freak Lore

Freak Lore

১১. স্টিফেন উইল্টশায়ার- সেরা ফোটোগ্রাফিক মেমরি

স্টিফেন উইল্টশায়ার ১৯৭৪ সালে লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি শূন্য থেকে ভূদৃশ্য একবার দেখেই হুবহু অঙ্কন করতে পারেন! আশ্চর্যজনক হলেও সত্য ্তিনি জন্মগতভাবেই বোবা এবং প্রতিবন্ধী। ৫ বছর বয়সে তার অঙ্কনের সুপ্ত প্রতিভা বাবা মার নজরে আসে! যখন তার বয়স ৯ সে তখন প্রথম পেপার নামক শব্দটি উচ্চারণ করে যখন তার শিক্ষক তার কাছ থেকে অংকনের জিনিসগুলো নিয়ে যাচ্ছিলেন! শুধুমাত্র সংক্ষিপ্ত একটি হেলিকপ্টারের ভ্রমণ শেষেই তিনি পুরো শহরের ছবি হুবহু এঁকে ফেলতে পারেন! 

ddnews.gov.in

ddnews.gov.in

ইতিমধ্যে তিনি নিউ ইয়র্ক সিটি, রোম, দুবাই, হংকং, মাদ্রিদ, ফ্রাঙ্কফুর্ট এবং সিঙ্গাপুরের ল্যান্ডস্কেপ চিত্র বিশাল ক্যানভাসে এঁকেছেন! 

Good Times

Good Times

বন্ধুরা, আমাদের এই আয়োজনটি কেমন লাগলো? আপনার মূল্যবান মতামত অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না! সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ... 



জনপ্রিয়