থাই ধনকুবের মেয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন, পাত্রকে দেবেন লাখো ডলার! থাই ধনকুবের মেয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন, পাত্রকে দেবেন লাখো ডলার!

থাই ধনকুবের মেয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন, পাত্রকে দেবেন লাখো ডলার!

থাইল্যান্ডের ধনকুবের আরনন রদথং তার ২৬ বছর বয়সী মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার জন্য পাত্র খুঁজছেন অভিনব এক পন্থায়। মেয়েকে কোনো পাত্র বিয়ে করতে রাজি হলেই সে পাবে লাখ লাখ ডলার।

Source:Internet

Source:Internet

ধনকুব আরনন রদথংয়ের বাড়ি চুমফুন প্রদেশে। মেয়ে কার্নসিতারকে বিয়ে করতে চাওয়া পাত্র বিয়েতে রাজি হওয়া ছেলেকে তিনি ১০ লাখ থাই বাথ (২ লাখ ৪০ হাজার পাউন্ড) দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

মূলত মেয়ের নিরাপদ ভবিষ্যতের কথা ভেবে তিনি মেয়ের জামাইকে তিনি ৩ লাখ মার্কিন ডলার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। কার্নসিতার কৃষি খামারের কাজে বাবাকে সাহায্য করেন। সে ইংরেজী ভাষায় পারদর্শী।

Source:Internet

Source:Internet

বিস্ময়কর ব্যাপার হলো পাত্রের যোগ্যতা তেমন কিছু চাননি তিনি। শুধু বলেছেন, যে ছেলে তার মেয়েকে বিয়ে করতে চাইবে, তাকে অবশ্যই পরিশ্রমী হতে হবে এবং তার মেয়েকে সুখে রাখতে হবে।

আরনন রথদং একই সাথে তাঁর মেয়ের ভবিষ্যৎ জামাইকে সুবিশাল ফলের বাগানের মালিকানাও লিখে দেবেন। তাঁর ফলের বাগানটি থাইল্যান্ডের ওই অঞ্চলের মধ্যে সবচেয়ে বড়। ফলের বাগানের বাজারমূল্য কয়েক মিলিয়ন ব্রিটিশ পাউন্ড।

Source:Internet

Source:Internet

রথদং এর মতে স্নাতক ডিগ্রি, মাস্টার্স ডিগ্রি করা ছেলের তার মেয়েকে বিয়ে করুক তিনি এমনটা চাইছেন না, তিনি চাইছেন কঠোর পরিশ্রমী ছেলে। আরনন রদথংয়ের ছেলেসহ আরও সন্তান আছে। কিন্তু তিনি বলেছেন, তার সব সম্পদ কার্নসিতার ভবিষ্যৎ স্বামীকেই তিনি দেবেন।

Source:Internet

Source:Internet

থাইল্যান্ডের বেশ কিছু এলাকার ঐতিহ্যই আছে যে, বিয়েতে পাত্র পক্ষ কনে পক্ষকে সাধ্যমতো যৌতুক দিয়ে থাকে। রদথং মূলত এই প্রথা ভাঙতে ইচ্ছুক। কার্নসিতা ইংরেজি ও চীনা ভাষায় অনর্গল কথা বলতে পারেন।

কার্নসিতা বাবার এই ঘোষণা সম্পর্কে জানতেন না। জানার পর তিনি অবশ্য আশঙ্কায় আছে অর্থলোভী কেউ তার বাবাকে পটিয়ে তাকে বিয়ে করতে পারে।

Source:Internet

Source:Internet

আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ... 



জনপ্রিয়