ধান কাউর ও ভগবান সিং বর্তমানের এই সময়ের মানুষের জন্য এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত...  ধান কাউর ও ভগবান সিং বর্তমানের এই সময়ের মানুষের জন্য এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত...

পৃথিবীর সবচাইতে প্রবীণ এই দম্পতি প্রমাণ করেছেন সত্যিকার ভালোবাসা অমর!

পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক দম্পতি যারা তাদের ১০০ তম বিবাহ বার্ষিকী উদযাপন করেছে- সত্যিকারে ভালোবাসা এখনো রয়েছে। দুজন মানুষের মধ্যে বিয়ে সবচাইতে বিশেষ একটা বন্ধন। এটা সর্বোত্তম সম্পর্ক। স্বামী স্ত্রী পৃথিবীতে যতদিন বেঁচে থাকে তারা একসাথে বেঁচে থাকার প্রার্থনা করেন। 

www.entertales.com

www.entertales.com

এই দম্পতি আমাদের গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য প্রদান করেছে। ভারতের বাথিন্ডার হারারাঙ্গাপুড়া গ্রামে এই প্রবীণ দম্পতি বসবাস করেন যারা সাম্প্রতিক সময়ে তাঁদের ১০০ তম বিবাহ বার্ষিকী পরিবারের সকল সদস্যদের সাথে উদযাপন করেছেন। যাই হোক, দাপ্তরিক নথি অনুযায়ী ভগবান সিং এর বয়স ১১৮। তাদের আধার কার্ডে এই বয়সে লেখা রয়েছে।

 

প্রবীণ এই ব্যক্তির আধার কার্ড অনুসারে জন্ম তারিখ ১ জানুয়ারি, ১৯০০ সন। কিন্তু তিনি দাবি করেন তার জন্ম ১৮৮৯ সালে এবং তার স্ত্রী ধান কাউর জন্মগ্রহণ করেন ১৮৯৬ সালে। ভারতের স্বাধীনতার আগে জন্মগ্রহণ করায় তার বয়স সম্পর্কে তেমন কোনো উপযুক্ত প্রমাণ নেই। তবে তার পরিবারের সদস্য এবং গ্রামের অন্যান্য বয়স্ক ব্যক্তিদের কাছ থেকে আমরা এটাই জানতে পারি যে তার জন্ম ১৮৯৮ সালের দিকেই হয়েছিল।

www.entertales.com

www.entertales.com

ভগবান সিং এবং ধান কাউর এর পরিবার

ভগবান সিং এবং ধান কারের পাঁচটি কন্যা সন্তান এবং একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। তাদের বড় কন্যার বয়স ৯০ বছর যেখানে তাদের সবচেয়ে কনিষ্ঠ পুত্রের বয়স ৫৫ বছর। কিছু জানাশোনার অভাবে তারা গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লিখাতে পারেনি।ভগবান সিং এর মতে দীর্ঘ জীবন লাভের পেছনে গোপন রহস্য হচ্ছে মদ থেকে দূরে থাকা, স্বাভাবিক খাদ্য গ্রহণ করা এবং ১০০ বছর বয়সের আগ পর্যন্ত কঠোর পরিশ্রম করা।

www.entertales.com

www.entertales.com

তার সন্তান নাথা সিং দাবি করেন যে, তার বাবা জন্মেছিলেন ১৮৯৮ সালে। তার বাবার জীবনের মন্ত্র হচ্ছে শুরু থেকে স্বাভাবিক খাদ্য গ্রহণ এবং নেশামুক্ত জীবন যাপন। তিনি আরও দাবি করেন বর্তমানে তার বাবা স্পষ্ট ভাবে কথা বলতে পারেন না, কিন্তু তিনি তার মাকে নিয়ে ১০০ বছর বয়সের আগ পর্যন্ত ক্ষেতে কাজ করতেন। নাথা সিং আরো বলেন, তার বাবা ১৯৪৭ এর দেশ বিভাজন নিয়ে পুরোপুরি অসন্তুষ্ট। তিনি সব সময় ইতিবাচক চিন্তা করতেন।

www.entertales.com

www.entertales.com

বর্তমানের প্রজন্মটি এই পরিবারের চতুর্থ তম প্রজন্ম। বর্তমানে এই পরিবারে ১২ জন সদস্য রয়েছে। লড সিং এবং ধান কাউর চতুর্থ প্রজন্মকে দেখভাল করেন। পুত্র নাথা সিং, যার স্ত্রীর দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে, এবং তাদের দুজন পুত্রবধূ এবং চারজন নাতি-নাতনি রয়েছে। এই দম্পতির সত্যিকার অর্থেই অনেক ভাগ্যবান যারা দীর্ঘ একটি শতাব্দি একত্রে কাটিয়েছেন। কখনো কেউ কাউকে ছেড়ে যাননি। আমরা প্রার্থনা করি সৃষ্টিকর্তা তাদের আরও বেশি সময় পৃথিবীতে বাঁচিয়ে রাখুন।

সুপ্রিয় বন্ধুরা আপনাদের মতামত অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবেন। আমাদের সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।



জনপ্রিয়