পরিত্যক্ত এই জিনিসগুলো দিয়েও আমরা অর্থ উপার্জন করতে পারি  পরিত্যক্ত এই জিনিসগুলো দিয়েও আমরা অর্থ উপার্জন করতে পারি

পরিত্যক্ত এই জিনিসগুলো দিয়েও আমরা অর্থ উপার্জন করতে পারি

আপনি কি এক বাণ্ডিল টাকা উপার্জন করার স্বপ্ন দেখছেন? তাহলে আপনার পরিত্যক্ত বা অপ্রয়োজনীয় জিনিস অস্বাভাবিক স্টোর বা চিলেকোঠায় নজর রাখুন।

আজকে আমরা পরিত্যক্ত জিনিসগুলো দিয়ে অর্থ উপার্জনের উপায় সম্পর্কে আপনাদের জানাবো।  

 

১. খালি বক্স

© cable_iphone_rm39 / Instagram   © knoxjk11 / Ebay

© cable_iphone_rm39 / Instagram © knoxjk11 / Ebay

বিশ্বব্যাপী মানুষ সাধারণ জিনিসের জন্য টাকা দিতে প্রস্তুত থাকে। উদাহরণস্বরুপ- একজন আমেরিকান মেয়ের পুতুলের একটি খালি বক্স ইবে স্টোরে $৪৫ ডলারে বিক্রি করবে। প্রশ্ন হলো- এটা কার দরকার? তাছাড়া আইফোনের খালি বক্স মডেলের উপর নির্ভর করে ইন্টারনেটে নিলামে প্রায় $১০ ডলারে বিক্রি হয়।

 

২. পেপার আর্টিফেক্ট

© dibeninc / Ebay   © finn2366 / Ebay

© dibeninc / Ebay © finn2366 / Ebay

অতীত কালের ছবি প্রিন্ট করা উপকরণ উচ্চ মূল্যে বিক্রি করা যায়। সিনেমা ভক্তরা পুরানো পোস্টার, প্রোগ্রাম বুকলেট এবং টিকিটের জন্য টাকা দিতে প্রস্তুত থাকে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ের পোস্টারগুলো সংগ্রহকারীরা প্রায় কয়েক ডলার দিয়ে সেটা বিক্রি করেছে।

 

৩. অস্বাভাবিক ফ্লেভারের সাথে বন্ধ হয়া পণ্য এবং খাবার

© Morouz / Pikabu   © pop_sweets / Instagram

© Morouz / Pikabu © pop_sweets / Instagram

ইন্টারনেটে অচল পণ্য বিক্রি করে অর্থ উপার্জন কর সম্ভব। তাই বলে এটিকে মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্যের সাথে মিশ্রিত করবেন না। ক্রেতারা চুলের রঙ, খেলনা এবং প্রসাধনী পণ্যের জন্য যেকোন পরিমাণ টাকা দিতে প্রস্তুত থাকে। আপনার কাছে যদি কোন দুর্লভ জিনিস থাকে, তাহলে তা বিক্রি করে দিতে পারেন।

 

৪. টয়লেট পেপার রোলস এবং কিন্ডার সারপ্রাইজ ডিম

© Depositphotos   © Depositphotos

© Depositphotos © Depositphotos

টয়লেট পেপার রোল এবং চকোলেট ডিমের খোসা ফেলে দিবেন না। পৃথিবীতে এমন মানুষও রয়েছে, যারা এইসব জিনিসের জন্য টাকা দিতে প্রস্তুত থাকে। ১০০ পেপার রোলের প্যাকেট ইবেতে ১৫ ডলার এবং কিন্ডার সারপ্রাইজ ডিমের ৫০টি ক্যাপসুল ৪ ডলারে বিক্রি করা যায়।

 

৫. পারফিউম এবং কসমেটিক

© nofantazy88 / eBay   © booth126 / eBay

© nofantazy88 / eBay © booth126 / eBay

অতীত কাল থেকেই মানুষেরা কসমেটিক এবং পারফিউম পছন্দ করে। এভাবেই, ৭০ দশকের পারফিউম নতুন প্রতিরূপের চেয়ে ১০ গুণ বেশি মূল্য হয়ে থাকে। ইউরোপের ক্লাসিক্যাল ভক্তরা প্রায়শই একটি পুরানো চ্যানেল কিনে থাকে। মাঝেমধ্যে আধুনিক পারফিউমের মাস্টারপিসের চেয়ে পুরানো বোতলের দাম বেশি।

 

৬. জাঙ্কের একটি বক্স   

© Grant Hutchinson / Flickr

© Grant Hutchinson / Flickr

মজা করছি না। আপনি ঠিকই পড়েছেন। ক্রেতারা ইন্টারনেটে ‘জাংক ড্রয়ার’ নামে অনেক সার্চ করা চিহ্নিত করতে পেরেছে। এক ব্যক্তি এটিকে আবর্জনা হিসেবে বিবেচনা করতে পারে, কিন্তু অন্য কারো জন্য এতি সম্পদ হতে পারে।

 

৭. ইলেকট্রনিক্স

© kk82425 / Ebay   © anitybg / Ebay

© kk82425 / Ebay © anitybg / Ebay

ক্যাসেট প্লেয়ার, ভিএইচএস ক্যাসেট এবং বুমবক্সের যুগ ইতোমধ্যে অতিক্রম করেছে, তবে এই আইটেমগুলোর প্রতি অনেকের আগ্রহ এখনো রয়েছে। বর্তমান সম্যে এগুলো ৪০০ ডলার পর্যন্ত বিক্রি করা যেতে পারে। অনেকে এগুলো সংগ্রহে রাখার জন্য বা অনেকে মেরামত করার জন্য কিনে থাকে।

 

৮. স্পোর্টস জুতা এবং স্নিকার্স

© dimitrb / Ebay   © tyjahn / Ebay

© dimitrb / Ebay © tyjahn / Ebay

পুরানো জিনিস বিক্রির জন্য কিছু অনলাইন সাইট রয়েছে, যেখানে পুরানো জুতা বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করা যায়।

 

৯. খেলনা

© popvtg_japan / eBay   © yvdelkka / eBay

© popvtg_japan / eBay © yvdelkka / eBay

সংগ্রহকারীরা শৈশবের খেলনা সংগ্রহ করার জন্য অনেক টাকা দিতে প্রস্তুত থাকে। নস্টালজিয়া আক্রান্ত ব্যক্তিরা ৭০ এবং ৮০ দশকের খেলনা সংগ্রহ করে তার শৈশবকাল মনে রাখার জন্য অনেক অর্থ দিতে প্রস্তুত থাকে।

 

আপনি কি কখনো পরিত্যক্ত জিনিস বা আপনার অপ্রয়োজনীয় জিনিস অনলাইনে বিক্রি করেছেন? আপনার অভিজ্ঞতার কথা আমাদের কমেন্টে শেয়ার করে সবাইকে জানার সুযোগ দিন। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।   



জনপ্রিয়