৫০০ বছর আগের ৭ টি ভবিষ্যৎ বাণী যা সত্য হয়েছিল! ৫০০ বছর আগের ৭ টি ভবিষ্যৎ বাণী যা সত্য হয়েছিল!

৫০০ বছর আগের ৭ টি ভবিষ্যৎ বাণী যা সত্য হয়েছিল!

এখন পর্যন্ত নস্ত্রাদামুসকে ইতিহাসে সর্বশ্রেষ্ঠ ভবিষ্যৎ বিশ্লেষক বলে গণ্য করা হয়। তা না হলে তার ১৫৫৫ সালে লেখা ভবিষ্যৎ পূর্বাভাস সংক্রান্ত বই এখনো সমান গুরুত্বের সাথে বিশ্লেষণ করা হয়। সবচেয়ে মজার বিষয় হলো তিনি তার এই বিখ্যাত বইয়ে প্রত্যেকটি ভবিষ্যৎ বাণী মাত্র ৪ লাইনের ছড়া আকারে বর্ণনা করেছেন যার মর্মার্থ অনেক বেশি ও ব্যপ্ত। আপনাকে এই অনুচ্ছেদটি পড়ার আগে বলে রাখছি এখানে প্রত্যেকটা ভবিষ্যতবাণী কিন্তু রূপক অর্থ বহন করছে।  চলুন দেখা যাক তার করা ৭ টি ঐতিহাসিক ভবিষ্যৎ বাণী যা হুবহু মিলে গিয়েছিল।

৭. ফ্রান্সের রাজা ২য় হেনরির মৃত্যুর ভবিষ্যৎ বাণী 

The Royal Family

The Royal Family

ভবিষ্যৎ বানীঃ

"তরুণ সিংহ বয়স্ক সিংহ বয়স্ক সিংহকে পরাস্ত করবে,

যুদ্ধের ময়দানে একক যুদ্ধে।

সে একটি সোনালী খাঁচা ভেদ করে তার চক্ষুদয় বিদীর্ন করবে,

দুটি আঘাত এক হবে তার নির্মম মৃত্যু হবে ।" 

ব্যাখ্যাঃ ১৫৫৯ সালের গ্রীষ্মে ফ্রান্সের রাজা ২য় হেনরি (বয়স্ক সিংহ) তার চেয়ে ৬ বছরের ছোট কমেট ডি মন্টগোমারিকে (তরুণ সিংহ) পরাস্ত করতে যুদ্ধে জড়ান। তাঁদের দুজনের ঢালে সিংহ খচিত ছিল। যুদ্ধের চূড়ান্ত মুহুর্তে মন্টগোমারির বল্লমের আঘাতে হেনরির ধাতব মুখোস ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়। দুটো আঘাত একটা তার চোখে বিদ্ধ হয়েছিল আরেকটা তারা মাথায় বিধেছিল। এর পর আহত হেনরি ১০ দিন প্রচন্ড কষ্টে ভুগেছিল তারপর তার নিদারুণ মৃত্যু হয়েছিল।

৬. "লন্ডনের ভয়াবহ বিশাল অগ্নিকান্ড"  বা "দ্যা গ্রেট ফায়ার অফ লন্ডন"  

Wikipedia

Wikipedia

ভবিষ্যৎ বানীঃ

" লন্ডনের নিরীহদের রক্ত দাবি করা হবে

'৬৬ সালের আগুনে ্পুরে

আগের কত্রীর অবনমন হবে

এবং একই গোত্র বিশিষ্ট অনেকেই মারা যাবে।" 

ব্যাখ্যাঃ  ১৬৬৬ সালের সেপ্টেম্বর ২ তারিখে ('৬৬ সালের) একটা ছোট বেকারিতে সামান্য আগুন লাগে আর পুরো শহরে তা ছড়িয়ে পড়েছিল। এবং গোটা শহর জ্বালিয়ে ছারখার করে দিয়েছিল। নিরীহের প্রাণ বলতে লক্ষ লক্ষ ইঁদুরকে বোঝানো হয়েছে যারা আগুনে পুরে। 

৫.ফরাসি বিপ্লব 

 www.history.com

www.history.com

ভবিষ্যৎ বানীঃ

"যখন রাজা ও রাজপুত্রকে কারাগারে বন্দি রাখা হবে

ক্রীতদাসী প্রজারা গাইবে ও ফুর্তি করবে এবং এমন ই দাবী করবে

এটাই মস্তকবিহীন নির্বোধগুলোর সাথে ভবিষ্যতে ঘটবে 

যা হবে স্বর্গীয় প্রার্থনা।" 

ব্যাখ্যাঃ  প্রজারা (ক্রীতদাসী প্রজারা) প্যারিসের ওপর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছিল যখন কিনা তাঁরা কপোর্দকশুন্য রাজ্য শাসনে বিরক্ত হয়ে গিয়েছিল।  রাজা ও রাজপুত্রকে ক্ষমতাচ্যুত করে কারাগারে বন্দী করা হয়। এবং তাঁদের (মস্তকবিহীন নির্বোধগুলোর) শিরশ্ছেদ করা হয়।

৪. হিটলার 

History on the Net

History on the Net

ভবিষ্যৎ বানীঃ

“ইউরোপের পশ্চিমের গভীর থেকে

গরিবের ঘরে জন্মাবে একটা শিশু

যে বাকপটুতা দিয়ে বিশাল সৈন্য বাহিনীর নেতৃত্ব দেবে

তার খ্যাতি পূর্বের দেশগুলোতেও ও ছড়িয়ে পরবে।”

“ক্ষুদার্ত হিংস্র পশুরা নদী পার হবে

এবং যুদ্ধের অধিকাংশই হবে হিস্টারের বিরুদ্ধে

মহান সেই ব্যক্তিকে লোহার তৈরি খাঁচায় নেয়া হবে

যখন জার্মানির সন্তানদের দেখা ছাড়া করার কিছুই থাকবে না।” 

ব্যাখ্যাঃ হিটলার ইউরোপের পশিমাঞ্চলে খুবই দরিদ্র পরিবারে জন্মেছিলেন।  হিটলারের যে বাগপটুতা ছিল তেমনটা আর কারো ছিল বলে মনে হয় না। ১ম বিশ্বযুদ্ধের পর ই হিটলার জার্মানিতে চলে গিয়েছিলেন এবং তার বাগপটুতার জন্যই তিনি বিশাল সৈন্য বাহিনীর নেতা হতে পেরেছিলেন। হিটলার পূর্বে অবস্থিত জাপানের সাথে মিত্রতা করে ফেলেন। তারপর জার্মান আর্মি ফ্রান্সে আক্রমণ চালায় এবং মিত্রবাহিনীর আক্রমণে পরাজয় বরণ করে।

০৩. পারমাণবিক বোমা

Wikipedia

Wikipedia

ভবিষ্যৎ বানীঃ

“ দুটো শহরের প্রবেশদ্বারের সন্নিকটে

এমন ভোগান্তি হবে যা কেউ দেখেনি আগে

মানুষ নিশ্চিহ্ন হবে ভারী অস্ত্রের আঘাতে,দুর্ভিক্ষ সাথে মহামারী

অমর ঈশ্বরের কাছে মুক্তির জন্য কাঁদতে থাকবে ”

ব্যাখ্যাঃ ১৯৪৫ সালে আমেরিকা দুটো শহর হিরোশিমা ও নাগাসাকির ওপর পারমাণবিক বোমা হামলা চালায়। সেখানকার মানুষ এখন ও সৃষ্টিকর্তার কাছে মুক্তির প্রার্থনা করে।

০২. জন এফ কেনেডি এবং রবার্ট এফ কেনেডির গুপ্তহত্যা

WTTW

WTTW

ভবিষ্যৎ বানীঃ

“ মহান মানুষটি সেই দিন লুটিয়ে পড়বে আকস্মিক আঘাতে

কুকর্ম সাধনের কথা যা গুপ্তহত্যাকারী পূর্বেই দিয়েছিল

পুর্বাভাস অনুযায়ী, অন্যজন মরবে রাতে

টুসকানির দীর্ঘ  ক্ষত, রেইমসের দ্বন্দ্বে ”

ব্যাখ্যাঃ জন এফ কেনেডিকে বহুবার মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়েছিল এবং তাঁকে ১৯৬৩ সালের ২২ নভেম্বর আকস্মিকভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়। রবার্ট এফ কেনেডিকে ১৯৬৮ সালের ৫ জুন মধ্যরাতে হত্যা করা হয়েছিল।

০১. নিউইয়র্কের টুইন টাওয়ার হামলা

DW

DW

ভবিষ্যৎ বানীঃ

“ পৃথিবী কাঁপানো আগুন যার উৎপত্তি হবে পৃথিবীর কেন্দ্রে

যা নিউ সিটিকে কাঁপিয়ে দেবে।

দুটো বিশাল পাথরের দীর্ঘ সময় ধরে সংঘর্ষ হবে

এরেথুসা (একটি লাল রঙের ফুল) নিউ রিভারকে রক্তিম করবে ”

ব্যাখ্যাঃ ২০০১ সালে আমেরিকার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের দুটো বিশাল ভবন আক্রমণ করা হয়েছিল যাতে নিউইয়র্ক (নিউ সিটি) শহর কেঁপে উঠেছিল।  

নস্ত্রাদামুসের মত এমন দূরদর্শী মানুষ সম্পর্কে আপনি এর আগে কি জানতেন? যদি যেনে থাকেন আমাদের আয়োজন সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্ট বক্সে জানান। পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ। 



জনপ্রিয়