সিনেমাকে ও হার মানায় এমন ১০ টি গুপ্তহত্যার অপচেষ্টা সিনেমাকে ও হার মানায় এমন ১০ টি গুপ্তহত্যার অপচেষ্টা

সিনেমাকে ও হার মানায় এমন ১০ টি গুপ্তহত্যার অপচেষ্টা

ইতিহাসের যেমন সফল গুপ্তহত্যার বহু উদাহরণ রয়েছে তেমনি ব্যার্থ গুপ্তহত্যার উদাহরণ ও কম নয়। যারা গুপ্তহত্যা থেকে বেঁচে গিয়েছেন তাঁদের আসলেই ভাগ্যবান বলাটা ভুল হবে না। আজ আমরা এমন ১০ টি গুপ্তহত্যা প্রচেষ্টা সুম্পর্কে জানবো যা ব্যার্থ হয়েছিল। 

১০. ২০০৬ সালে ছবিতে প্রদর্শিত মহিলাকে তাঁর স্বামী ভাড়াটে খুনি দিয়ে হত্যা করতে পাঠায় কিন্তু খুনিকেই এই মহিলা মেরে ফেলেন। স্ত্রী তাঁকে তালাক দিয়েছিল আর এর প্রতিশোধ নিতেই ভাড়াটে খুনি দিয়ে এই মহিলাকে হত্যা করতে চেয়েছিল তাঁর স্বামী।

Photo credit: Nurse.org

Photo credit: Nurse.org

০৯. ২০১৭ সালে এই নিষ্পাপ চেহারার পেছনে লুকিয়ে আছে এক ভয়ানক অপরাধী। এই ব্যাক্তি তাঁর স্ত্রীকে হত্যা করার জন্য একটা খুনি ভাড়া করেছিল যার সাথে নিয়মিত তাঁর বার্তা আদান প্রদান হত। কিন্তু ভুলবশত সেই বার্তাগুলো খুনির কাছে না গিয়ে তাঁর অফিসের বসের কাছে চলে গিয়েছিল। এ জন্যই তাঁর কু পরিকল্পনা আর সফল হয়নি। মুলত তাঁর স্ত্রীর নামে অনেকে বড় অঙ্কের জীবন বীমা করা ছিল যা তাঁর মৃত্যু হলে পাওয়া যেত। এই বদমায়েশ নিজের মেয়েকেও হত্যা করার সুপারি দিয়েছিল ঐ খুনিকে। কাজ হলে বীমার টাকার আধাআধি ভাগ হত।

Photo credit: Jeff Lytle/Facebook

Photo credit: Jeff Lytle/Facebook

০৮. ২০১৮ সালে ইজিপ্টের নাগরিক মোহাম্মদ হাঊসটনের এক পুলিশ সদস্যকে হত্যার জন্য সেই পুলিশ সদস্যের ই সহকর্মীকে ভাড়া করেছিল। কারণ তাঁকে না মারলে তাঁর ব্যাবসায়িক কার্যক্রমে মোহাম্মদের প্রচুর ডলার খরচ হচ্ছিল । কিন্তু তাঁকে পরবর্তিতে সোয়াত টিম গ্রেফতার করে কারণ সেই সহকর্মী বিষয়টা জানিয়ে দেয়। যদিও একটা নাটক করা হয়েছিল এটা বোঝাতে যে ঐ পুলিশ সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে।

Photo credit: Brett Coomer, Houston Chronicle

Photo credit: Brett Coomer, Houston Chronicle

০৭. ২০১৭ সালে ছবিতে মারিয়া নামের মহিলা তাঁর স্বামীকে হত্যার জন্য স্বামীর একজন বন্ধুকে ভাড়া করে। কিন্তু সেই বন্ধু মারিয়ার অবর্তমানে  তাঁর স্বামীকে বিষয়টা জানায়। মারিয়াকে কৌশলে সেই বন্ধু একজন গোয়েন্দা পুলিশের সাথে বিষয়টা রফা দফা করিয়ে দেয়। এর পর একটা নাটক সাজানো হয় যেখানে মারিয়ার স্বামীকে হত্যা করা হয়েছে দেখানো হয়। এর পর মারিয়া ২০০০ ডলার দিয়ে দেয় চুক্তি অনুযায়ী আর বর্তমানে মারিয়ার ২০ বছরের সাজা হয়েছে অন্যদিকে তাঁর স্বামী দিব্যি জীবন উপভগ করছে।

Photo credit: Houston Chronicle

Photo credit: Houston Chronicle

০৬. ২০১২ সালে ছবির এই মানুষ জন ফ্রাঙ্কলিন তাঁর নিজ স্ত্রীকে হত্যার জন্য একজন খুনিকে ভাড়া করে। এবং খুনি সফল ও হয়েছিল সে ন্যান্সিকে গুলি করে যা তাঁর বাম চোখ হয়ে ফুসফুসের ডান দিকে আঘাত করে। তবে ন্যান্সি বেঁচে যাওয়াতে পরে পুলিশের তদন্তে জানতে পারে যে এই ঘটনা তাঁর হারমী স্বামী ই ঘটিয়েছে। না হলে সে মরে গেলেও এটা জেনেই মরত যে তাঁকে কোন ডাকাত হামলা করেছিল।

Photo credit: Denton County Records

Photo credit: Denton County Records

০৫. ২০১৫ সালে ছবির মহিলাকে তাঁর স্বামী হত্যা করার জন্য একটা প্রফেশনাল অপহরণকারী দল ভাড়া করে। পরবর্তীতে তাঁরা এই মহিলাকে চোখ বেঁধে পূর্বপরিকল্পনা অনু্যায়ী অপহরণ করে নিয়ে যায়। কিন্তু তাঁরা মহিলার চোখ খুলে তাঁকে জিজ্ঞাস করলো তোমার স্বামী কেন তোমাকে হত্যা করতে চায়? মহিলা এ কথা কিছুতেই বিশ্বাস করতে চাইলেন না। তখন ছিনতাইকারীরা তাঁর সামনে তাঁর স্বামীকে ফোন করে বিষয়টা প্রমাণ করে। সেই মুহুর্তে মহিলা কিছুক্ষনের জন্য অজ্ঞান হয়ে পড়েন। কিন্তু মজার বিষয় ছিল এটা যে ঐ দল কোন নারী বা শিশু হত্যা করে না। তাঁরা তাঁকে ছেড়ে দেয় এবং সব প্রমাণ ও দিয়ে দেয়। অন্য দিকে তাঁর স্বামীকে স্ত্রীর মিথ্যা মৃত্যুর ছবি পাঠায়। যাই হোক তাঁর স্বামী এখন অস্ট্রেলিয়ায় কারাদন্ড ভোগ করছেন।  

Photo credit: BBC News

Photo credit: BBC News

০৪. ২০১৩ সালে ছবির নারী তাঁর স্বামীকে হত্যার বন্দোবস্ত করে এর কারণ ছিল তাঁর ঋণ পরিশোধের জন্য ১ লাখ ডলার প্রয়োজন ছিল। আর এই অর্থের ব্যাবস্থা তাঁর স্বামীকে হত্যা করলে জীবন বীমার টাকা থেকে হয়ে যেত। তাঁর স্বামীকে সে লহত্যা করতে সফল হয়েছিল। কিন্তু তাঁর স্বামীর বীমার অর্থের নমিনি ছিল প্রাক্তন স্ত্রী। কি হল? স্বামী ও টাকা দুটাই হারালো এখন জেল খাটতে হচ্ছে।

Photo credit: Cuyahoga County Prosecutor’s Office

Photo credit: Cuyahoga County Prosecutor’s Office

০৩. ২০১৩ সালে  ভরা মজলিসে যেখানে অনেক টেলিভিশন চ্যানেল সরাসরি সম্পচার করছিল পাশাপাশি জোরদার নিরাপত্তা ও ছিল। হঠাত ই বক্তার দিকে একজন গুপ্তঘাতক দৌড়ে যায় এবং পিস্টল বের করে তাঁর মাথার ওপর তাক করে গুলি করার চেষ্টা করে। তবে সে ব্যার্থ হয় এবং দ্রুত নিরাপত্তা কর্মীরে তাঁকে ধরে ফেলে। মজার বিষয় হল যেই পিস্তল  সে ব্যবহার করেছিল তা ছিল একটি আগুন ধরানোর দিয়াশলাই। সে মুলত বিখ্যাত হওয়ার জন্য এমন টা করেছে। এটা বুল্গেরিয়ায় ঘটেছিল।

Internet

Internet

০২. ২০০৮ সালে কানাডার নীকলি নামক এই নারী তাঁর স্বামীকে হত্যা করার জন্য একজন গোয়েন্দা পুলিশ সদস্যকে ভাড়া করেন। সে সেই গোয়েন্দা পুলিশকে জানায় যে গত ৯ মাস ধরে সে তাঁর স্বামী মাইককে হত্যা করার চেষ্টা করছে। কিন্তু যাদের এ পর্যন্ত সে ভাড়া করেছিল সবাই টাকা নিয়ে ভাগছে। পরে এই নারীকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁর স্বামীর কিছু হয় নি।

Photo credit: CTV News

Photo credit: CTV News

০১. ২০১৭ সালে   ডেভিড হারিস যে কিনা বিল নামের বৃটিশ একটি নাটকের পরিচালক ছিলেন। ওনার বয়স ৬৮ বছর এবং সে একজন গোয়েন্দা পুলিশ সদস্যকে ২ লাখ ডলারে তাঁর স্ত্রীকে হত্যার জন্য ভাড়া করেছিল। কারণ তাঁর স্ত্রীর সম্পত্তি বিক্রি করে ৮ লাখ ডলার পাওয়া যেত। শুধু তাই নয় সে এটা করতে চেয়েছিল একটা ২৮ বছরের পতিতার জন্য যার সাথে সে একটা পতিতালয়ে পরিচিত হয়েছিল এবং পরিকল্পনা করেছিল দুজন একসাথে সংসার করবে। তবে সে সফল হয় নি, তাঁকে সেই পুলিশ সদস্য তাঁর দলবল নিয়ে গ্রেফতার করেন। তার এই কর্মের জন্য তাঁর ১৭ বছরের সাজা হয়েছে।

Photo credit: Sky News

Photo credit: Sky News

আপনাদের আনন্দ দিতেই আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। যদি আমাদের আয়োজন ভালো লাগে তাহলে লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।



জনপ্রিয়