পৃথিবীর সেরা ১০ জন ক্ষুদে বিজ্ঞানী পৃথিবীর সেরা ১০ জন ক্ষুদে বিজ্ঞানী

পৃথিবীর সেরা ১০ জন ক্ষুদে বিজ্ঞানী

পৃথিবীতে কিছু মানুষ আছে যারা তাঁদের ক্ষমতা সম্পর্কে জানাতে বছরের পর বছর সময় নেয় না। বরং খুব কম বয়েসেই তাঁরা হয়ে ওঠে সাধারণ থেকে অসাধারণ এবং অচেনা থেকে চিরচেনা। আজ জানবো তেমন কিছু অসাধারণ কিশোর-কিশোরীর সাথে যারা বর্তমানেই অনেক সুপরিচিত বিজ্ঞানী। 

১০. জেক এন্ডরাকা নামের ছবির এই খুদে বিজ্ঞানী মাত্র ১৫ বছর বয়েসে এমন একটি যন্ত্রের আবিষ্কার করেছে যার মাধ্যমে বর্তমানের চেয়েও ১৬৮ গুন দ্রুতগতিতে,  ২৬,৬৬৭ গুন কম খরচে এবং ৪০০ গুন সুক্ষ্মভাবে অগ্নাশয়, ফুসফুস এবং ডিম্বাশয়ের ক্যান্সার নির্ণয় করা যাবে । এই যন্ত্রকে বলা হচ্ছে বায়োসেন্সর।

Internet

Internet

০৯. সারা ভলজ নির্বাচিত জলজ ঊদ্ভিদ থেকে বাণিজ্যিকভাবে জ্বালানী তৈরির পরীক্ষা চালাচ্ছে। এবং এই ধারণার জন্য সে ১০০০০০ ডলার পুরুস্কার ও পেয়েছে। সে তাঁর গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে।

Internet

Internet

০৮. এলানা সাইমন যে মাত্র ১২ বছর বয়েসে fibrolamellar hepatocellular carcinoma নামের এক ধরনের যকৃতের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। যখন তাঁর বয়স ১৫ সে বিভিন্ন ধরণের টিউমার এর জেনম নিয়ে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও তাঁর বাবা মিলে গবেষণা চালিয়ে খুব গুরুত্বপূর্ন প্রতিবেদন তৈরি করেছে যা আমেরিকার বিখ্যাত সাময়িকী "সায়েন্স" এ প্রকাশ করা হয়েছে। এবং সে জুনিয়র ক্যান্সার রিসার্চ এ বিজেতার পুরস্কার লাভ করে।

Internet

Internet

০৭. ডেনিয়েল বার্ড গবেষণা করছে কি করে প্লাস্টিক দ্রুত পঁচানো যায়। আমরা জানি যে, প্লাস্টিক বছরের পর বছর সময় নেয় পঁচে মাটির সাথে মিশে যেতে। সে ৪৩% প্লাস্টিক মাত্র ৬ সপ্তাহের মধ্যে পঁচিয়ে মাটির সাথে সক্ষম হয়েছে। সে এক ধরনের ছত্রাকের মাধ্যমে এটা করতে সক্ষম হয়েছে। এবং সে দাবি করেছে বাকি প্লাস্টিক গলতে হয়তো ৩ মাস লাগতে পারে। এবং এই পদ্ধতি পরিবেশ বান্ধব।

Internet

Internet

০৬.  এশা খারে এমন একটা ক্যাপাসিটর বানিয়েছে যা দিয়ে একটা এলিডি মাত্র ২০ সেকেন্ডে চার্জ দেয়া যাবে। এবং যেখনে বাজারের ক্যাপাসিটরেরে আদর্শ চার্জের ক্ষমতা ১০০০ সেখানে এশার ক্যাপাসিটরে ১০০০০।

Internet

Internet

০৫. মার্ক রবার্জ ইস্ত্রির সাহায্যে ৫ মিনিটের মধ্যে একটা খামের ওপর এন্থ্রাক্স নামক ব্যাক্টেরিয়া ধ্বংস করতে সক্ষম হয়েছে। যেখানে এই জীবাণু তাপের মাত্রা বাড়ানোর সাথে সাথে আরো বেশি শক্তিশালী হয়ে ওঠে। এটা সত্যিই আরো গভীর গবেষণায় সাহায্যে করবে।

Internet

Internet

০৪. টেইলর উইলসন ই পৃথিবীর সর্বকনিষ্ঠ বিজ্ঞানী  যে পারমাণবিক একীভবন নিয়ে কাজ করছে। মুলত সে পর্যায় সারণীর তেজস্ক্রিয় মৌল নিয়ে গবেষণা করছে। এবং সে পারমাণবিক চুল্লি মাত্র ১৪ বছর বয়েসে বানিয়ে ফেলেছে। তাঁকে এজন্য ১০০০০০ ডলার বৃত্তি দেয়া হয়েছে।

Internet

Internet

০৩. ইস্টার্ণ লা চ্যাপ্লি একটি কৃ্ত্রিম হাত তৈরি করেছে যা বহুবিধ কার্য সাধনে সক্ষম। এটা বাজারের যেকোন কৃত্রিম হাতের চেয়ে অধিক কার্যকর এবং খুব কম খরচে এটা বানানো সম্ভব। সে বর্তমানে নাসার বিজ্ঞানীদের সাথে কাজ করছে কিভাবে পৃথিবী থেকেই নভোচারীরা মহাকাশে রোবট নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন?

Internet

Internet

০২. ব্রিটনি ভেনগার নামের এই খুদে বিজ্ঞানি এমন একটা কম্পিউটার প্রোগ্রাম বানিয়েছে যার সাহায্যে মহিলাদের মারাত্নক স্তন ক্যান্সারগুলোর ৯৯% শনাক্ত করা সম্ভব।

Internet

Internet

০১. শ্রী বোস ২০১১ সালে ক্যান্সার গবেষণার জন্য পুরষ্কার লাভ করে। সে কোন প্রোটিনের কারণে ক্যান্সার কোষ গুলো আরো শক্তিশালী হয় সেটা খুঁজে বের করেছে। যা ভবিষ্যতে উন্নত গবেষণায় রোড ম্যাপ হিসেবে কাজ করবে।

Internet
আপনাদের আনন্দ দিতেই আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। যদি আমাদের আয়োজন ভালো লাগে তাহলে লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

Internet



জনপ্রিয়