৪৪ সন্তান জন্ম দেয়া মায়ের অবিশ্বাস্য গল্প   ৪৪ সন্তান জন্ম দেয়া মায়ের অবিশ্বাস্য গল্প

৪৪ সন্তান জন্ম দেয়া মায়ের অবিশ্বাস্য গল্প

ভাবুন তো একবার, এক মহিলা তার গর্ভে জন্ম দিয়েছে ৪৪-টি সন্তান! ভুল দেখছেন না, সংখ্যাটা ৪ নয়, ৪৪! এই ৪৪ সন্তানের ৩৮ জন এখনো বেঁচে আছে, বাকী ৬ জন মারা গেছে জন্মের পর। এই ৩৮ সন্তানকে নিয়ে একই ছাদের নিচে বাস করছেন সেই মহিলা। অবিশ্বাস্য না? চলুন আজকের আয়োজনে আরও কিছু অবিশ্বাস্য সত্য জেনে নিই এই মহিলার জীবন সম্পর্কে-

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

৪৪ সন্তানের জন্ম দেয়া এই জননীর নাম মরিয়ম নাবাতানজি, বাড়ী আফ্রিকার দেশ উগান্ডায়। তার বয়স যখন ১৩ বছর তখন তাকে এক প্রকার বিক্রি করে দেয় তার বাবা-মা। বিয়ে হয় ২৭ বছর বয়সী এক ব্যাক্তির সাথে। এর এক বছর শুরু হয় অবিশ্বাস্য ঘটনার শুরু।

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

এক বছর পর ভদ্র মহিলা জন্ম দেয় দুই জমজ সন্তানের। তার পরের বছর এক সাথে তিন সন্তানের জন্ম দেন এবং বিস্ময়করভাবে এর পরের বছর চার সন্তানের জন্য দেন একসাথে! এছাড়াও তার স্বামীর পূর্বের স্ত্রীর রেখে যাওয়া অনেক সন্তান ছিলো। সন্তান জন্ম দিয়েই তো শেষ না, নিজের সন্তানদের সাথে সতীনের সন্তানদেরও দেখা-শোনা করতে হতো তাকে। আর তার স্বামী মহাশয় ছিলেন বৌ পেটানোয় ওস্তাদ, তাই সুযোগ পেলেই স্ত্রীকে পিটিয়ে পৌরষ্য দেখাতেন।

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

একসময় যখন এভাবে সন্তান জন্ম দিতে দিতে মরিয়ম ক্লান্ত হয়ে গেলেন, ততদিনে আবিষ্কার করলেন তার সন্তানের সংখ্যা ২৩। এবার তিনি বন্ধ করতে চাইলেন চিরতরে সন্তান জন্মদান। কিন্তু না, ডাক্তার সাফ জানিয়ে দিলেন এখন সন্তান জন্মদান বন্ধ করে জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি গ্রহণ করলে তার শরীরের ওপর বাজে প্রভাব পড়বে।

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

প্রাকৃতিকভাবেই সন্তান গর্ভে নেয়ার ক্ষমতা তার অনেক বেশি তাই এত সন্তান জন্ম হচ্ছিলো। এরপর তার সন্তানের সংখ্যা গিয়ে ঠেকেছে ৪৪-এ। ৬টি জমজ সন্তান, ৪ বার একসাথে তিনটি সন্তান, তিন বার চারটি করে সন্তান এবং দুবার শুধু একটি করে সন্তান জন্ম দিয়েছেন মরিয়ম। তিনি এসব নিয়ে আফসোস করেন না, ভাবেন এসব সৃষ্টিকর্তার আশির্বাদ।

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

তবে আফসোস যে একদম নেই, তা কিন্তু নয়। এই সন্তানগুলো বাবার আদর ছাড়া বড় হতে হচ্ছে। তার স্বামী কিছুদিন পর পর পালিয়ে যেতো কয়েক মাসের জন্য। আবার ফিরে এসে কিছুদিন থেকে আবার লুকিয়ে পড়তেন! সন্তান জন্মদান ছাড়া তার স্বামী আরেকটি কাজ ঠিক মতো করতো, তা হলো সন্তান জন্মের খবর শুনে ফোন করে সন্তানদের নাম নিজে রাখতো! এখন লম্বা সময়ের জন্য পালিয়ে আছে তার স্বামী। মরিয়মের প্রথম সন্তান এখন ২৩ বয়স বয়সী। ১৩ বছর বয়সের পর নাকি সে তার পিতার চেহারা দেখতে পায়নি এখনো!

© Kassim Kayira / facebook

© Kassim Kayira / facebook

আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ...



জনপ্রিয়