বিখ্যাত কিছু ছবি যা আসলে সম্পূর্ণ মিথ্যা ছিল    বিখ্যাত কিছু ছবি যা আসলে সম্পূর্ণ মিথ্যা ছিল

বিখ্যাত কিছু ছবি যা আসলে সম্পূর্ণ মিথ্যা ছিল

ইন্টারনেটের সুবাদে এখন যেকোন তথ্যই মানুষের কাছে সহজেই পৌছে যাচ্ছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া এমন কিছু ছবির কথা যা আসলে সম্পূর্ণ মিথ্যা ছিলো।

 

মনোনয়ন ছাড়া মনোনীত ছবি

© better-find

© better-find

এটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া কুখ্যাত একটি ছবি। ছবি যা দেখছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

এখানে দুইটি সম্পূর্ণ আলাদা ছবিকে অত্যন্ত সুনিপুণ ভাবে একত্রিত করা হয়েছে।

 

দ্বীপের মধ্যে দূর্গ নাকি দূর্গের মধ্যে দ্বীপ?

© facebook   © pixabay   © pixaba

© facebook © pixabay © pixaba

এই ছবিটি সম্পূর্ণই মিথ্যা। মূলত এই ধরনের কোন জায়গায় নেই।

ফটোশপের মাধ্যমে তৈরি করা এই পুরনো ছবিটি অনেকেই সত্য বলে বিশ্বাস করেছিল।

 

এমন একটি ফল যার জন্য আপনার মৃত্যু হতে পারে! 

© naturalchocolate

© naturalchocolate

এটি সম্পূর্ণই মিথ্যা একটি ছবি। এই ধরনের কোন ফলের অস্তিত্ব নেই।

 

বিগ ব্যাং থিওরি

© snopes

© snopes

আপনি যদি বিখ্যাত কোন বিজ্ঞানী হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ছবি যেকোন জায়গায় স্থান পাবে। ছবি সেখানে মানাক আর নাই মানাক।

১৯৬২ সালে নেভাদাতে হওয়া নিউক্লিয়ার বিস্ফোরণের সময় সেখানে বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইন কোন সাইকেল চালাননি। কেননা তার ৭ বছর আগেই ১৯৫৫ সালের এপ্রিল মাসে তিনি মারা যান!

 

ভালুকের চেয়ে ভয় বড়

© gizmodo

© gizmodo

আপনি যদি ছবিটিকে বিশ্বাস করে থাকেন তাহলে আপনাকে হতাশ হতে হবে। কেননা এই ছবিটি সম্পূর্ণই মিথ্যা। এটি করা হয়েছে ফটোশপের মাধ্যমে।

 

ফটোশপে তৈরি করা মিথ্যা ছবি

© reddit   © pikabu

© reddit © pikabu

ছবিটি দেখার পর অনেকে বন্য প্রাণীর স্বাধীনতার জন্য আন্দোলন করেন। তবে এটি ছিল সম্পূর্ণই মিথ্যা একটি ছবি। আসলে সিংহটি অসুস্থ থাকায় তাকে এম.আর.এ করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। আর ছবিটি তখন তোলা হয়।

 

ফটোশপের দারুণ কারসাজী

© snopes

© snopes

২০১৬ সালে “হোয়াইট ন্যাশনাল জিওগ্রাফি ফটো অফ দ্যা ইয়ার” শিরোনামের এই শার্কের ছবিটি দারুণ সাড়া  ফেলেছিল।

 

কালো রঙের সিংহ

© paulie-svk   © hoaxes

© paulie-svk © hoaxes

কালো রঙের এই সিংহটি ইন্টারনেটে অত্যন্ত জনপ্রিয়তা পায়। শত শত লাইক এবং কমেন্ট আসে ছবিটির জন্য। তবে এটি ছিল আসলে মিথ্যা একটি ছবি।

 

শক্তিশালী বাচ্চা

© flickr

© flickr

একজন গর্ভবতী মহিলা তার গর্ভের সন্তানকে অনুভব করতে পারেন। তবে এভাবে সন্তানের পায়ের ছাপ ভাসাটা অবশ্যই কিছুটা অবাস্তব।

কেননা পায়ের যে ছাপ দেখা যাচ্ছে, গর্ভে থাকা বাচ্চার পা এতটা বড় হয় না। আর ছবিটির উৎস এখনও অজানা।

তবে এই ছবিটিও তৈরি করা হয়েছে।

 

ছবিটিও আসলে বেমানান

© freewoodpost   © slappedham

© freewoodpost © slappedham

জর্জ ডব্লিউ বুশের বই উল্টো করে ধরার ছবিটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছিল। অনেক গণমাধ্যমেও ছবিটি প্রকাশ করা হয় রাষ্ট্রপতির মানসিকতাকে বুঝানোর জন্য। তবে বুশ বইটি ঠিক ভাবেই ধরেছিলেন।

   

ঘটনার কয়েক সেকেন্ড আগে তোলা

© snopes

© snopes

ছবিটি ইন্টারনেটে অনেক সাড়া ফেলেছিল। অনেকে জানতে আগ্রহী ছিলেন ক্যামেরাটি কিভাবে সেখান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ফটোগ্রাফার কেন ছবির ছেলেটিকে পিছন থেকে আসা প্লেনের কথাটা জানাননি। তবে সকল প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায় যখন ছবির ছেলেটিকে খুঁজে পাওয়া যায়।

ছবিটি টুইন টাওয়ারে তোলা হয়েছিল ৯ সেপ্টেম্বরের ঐতিহাসিক ট্র্যাজেডির কয়েক সপ্তাহ আগে। আর প্লেনের চিত্রটা ফটোশপে করা হয়েছে।  

 

ব্যাটম্যান এন্ড জোকার

© twitter   © reddit

© twitter © reddit

ছবিটি টুইটারে অত্যন্ত জন্যপ্রিয়তা পায়। তবে এটি ছিল সম্পূর্ণই মিথ্যা।

 

তাই ইন্টারনেটে আমরা যে ছবিগুলো দেখি তার সবগুলো বিশ্বাস করা উচিত না। সবকিছু জেনে আমাদের বিশ্বাস করা উচিত।

আমাদের আয়োজন ভালো লাগলে লাইক, কমেন্ট, শেয়ারের মাধ্যমে আমাদের সাথেই থাকুন। আমাদের পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ। 



জনপ্রিয়