আইএমডিবি এর মতে হলিউডের সেরা রোমান্টিক সিনেমাগুলো।   আইএমডিবি এর মতে হলিউডের সেরা রোমান্টিক সিনেমাগুলো।

হলিউডের সেরা রোমান্টিক সিনেমাগুলো।

হলিউড এর কথা বললে প্রথমেই আমাদের অ্যাকশন, থ্রিলার ও হরর মুভির কথাই মনে পড়ে। তবে পাশাপাশি বক্স অফিস কাঁপিয়ে বেড়ায় চমৎকার সব রোমান্টিক ছবিগুলোও। অনেক সিনেমাই যুগে যুগে ভালোবাসার বার্তা দিয়ে জনপ্রিয়তা পেয়েছে হলিউডে। শত শত রোমান্টিক সিনেমার ভিড়ে চলচ্চিত্রের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য সাইট দ্য ইন্টারনেট মুভি ডাটাবেজ (আইএমডিবি) তালিকা করেছে সেরা ১০ রোমান্টিক সিনেমার।
এই তালিকায় স্থান হয়নি জর্জ ক্যামেরনের কালজয়ী চলচ্চিত্র "টাইটানিক" এর। যে প্রেম ও প্রেমের জন্য ত্যাগ এর গল্প কাঁদিয়েছিলো কোটি কোটি দর্শককে।
চলুন সিনেমাগুলো সম্পর্কে জেনে নিই।


ইটস এ ওয়ান্ডারফুল লাইফ(রেটিং- ৮.৭/১০)

internet

internet

১৯৪৬ সালে মুক্তি পাওয়া বিখ্যাত সিনেমা ‘ইটস এ ওয়ান্ডারফুল লাইফ’। একজন ব্যবসায়ীকে একটি পরীর নানাভাবে পরামর্শ দিয়ে বিষণ্ণ জীবন থেকে ফেরাতে পথ দেখানোর গল্প নিয়েই এই সিনেমা। এর অভিনয়ে ছিলেন জেমস স্টুয়ার্ট, ডোন্না রিড, লিওনেল বেরিমোর।

ক্যাসাব্ল্যাঙ্কা(রেটিং- ৮.৭/১০)

internet

internet

‘ক্যাসাব্ল্যাঙ্কা’ সিনেমাটি ১৯৪২ সালে মুক্তি পায়। সিনেমার কাহিনি গড়ে উঠেছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শুরুর দিকের  প্রেক্ষাপটে। এর পরিচালনায় ছিলেন মাইকেল কার্টিজ। ছবিতে অভিনয় করেছেন হামফেরি বোগার্ট, ইনগ্রিড বার্গম্যান ও পল হেনরিড।

 

রোমান হলিডে(রেটিং- ৮.১/১০)

internet

internet

অভিভাবকদের চোখ ফাঁকি দিয়ে ঘর থেকে পালানো রাজকুমারীর সাথে রোমে আসা এক আমেরিকান নিউজম্যানের প্রেমকাহিনী নিয়ে ‘রোমান হলিডে’ সিনেমাটি নির্মান করা হয়েছিলো। যাতে অভিনয় করেছেন জর্জ পিক ও অদ্রি হেপবার্ন। ১৯৫৩ সালের এ সিনেমা পরিচালনা করেছিলেন উইলিয়াম হুইলার।

 

লাইফ ইজ বিউটিফুল(রেটিং-৭.৮/১০)

internet

internet

১৯৯৭ সালে মুক্তি পাওয়া ‘লাইফ ইজ বিউটিফুল’ সিনেমাটি দর্শকদের কাছে অন্যতম সেরা একটি ছবি হিসেবে স্থান লাভ করে। এটি পরিচালনা করেছেন রবার্ট বেনিগি। এই সিনেমায় অভিনয় করেছেন রবার্ট বেনিগ ও নিকোলেট ব্রাশি।

 

গন উইদ দ্য উইন্ড(রেটিং- ৮.২/১০)

internet

internet

‘গন উইদ দ্য উইন্ড’ সিনেমাটি ১৯৩৯ সালে মুক্তি পাওয়া অন্যতম সেরা একটি রোমান্টিক সিনেমা। যার পরিচালনায় ছিলেন ভিক্টর ফ্লেমিং। সিনেমাতে অভিনয় করেছেন ক্লার্ক গ্যাবেল ও থমাস মিশেল।


হলিডে(রেটিং-৭.৮/১০)

internet

internet

জর্জ কুকার এর পরিচালিত সিনেমা ‘হলিডে’ মুক্তি পেয়েছিলো ১৯৩৮ সালে। এই সিনেমায় অভিনয় করেছেন ক্যাথেরিন হেপবার্ন, ক্যারি গ্রান্ট ও ডোরিস নোলান।

 

প্রীটি ওম্যান( রেটিং-৭.৮/১০)

internet

internet

‘প্রীটি ওম্যান’ সিনেমার কাহিনি গড়ে উঠেছিলো একজন যৌনকর্মীকে কেন্দ্র করে। ১৯৯০ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমাটিতে অনবদ্য অভিনয় করে সবার মন জিতে নিয়েছিলেন রিচার্ড গেরে, জুলিয়া রবার্টস ও জেসন আলেকজান্ডার।

 

রোমিও এ্যান্ড জুলিয়েট(রেটিং-৭.৭/১০)

internet

internet

উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের বিখ্যাত উপন্যাস অবলম্বনে ‘রোমিও এ্যান্ড জুলিয়েট’ সিনেমাটি ১৯৬৮ সালে মুক্তি পায়। যা পরিচালনা করেছিলেন ফ্রাঙ্কো জেফ্রিলি। সিনেমাতে রোমিও এর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন লিওনার্দ হুইটনিং এবং ও জুলিয়েটের ভূমিকায় অলিভিয়া হাসি।

 

লাভ এফেয়ার(রেটিং- ৭.২/১০)

internet

internet

‘লাভ এফেয়ার' সিনেমাটি ১৯৩৯ সালে মুক্তি পায়। ফ্রেঞ্চ প্লেবয়ের সঙ্গে আমেরিকান এক মেয়ের প্রেমের গল্প নিয়েই ছবিটি এগিয়েছে।

 

হোয়াইল ইউ ওয়ার স্লিপিং(রেটিং- ৬.৫/১০)

internet

internet

১৯৯৫ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হোয়াইল ইউ ওয়ার স্লিপিং’সিনেমাতে অসাধারণ অভিনয় করেছিলেন সান্দ্রা বুলক, বিল পুলম্যান ও পিটার পয়েল।

 

সুপ্রিয় দর্শক, আমাদের আয়োজন কেমন লেগেছে তা কমেন্টে জানান। আর আমাদের মাধ্যমে কোনো কিছু শেয়ার করতে চান তাহলে আমাদের পেইজের ইনবক্সে যোগাযোগ করতে পারেন।

সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ!



জনপ্রিয়