ব্যর্থতা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন যেসব বলিউড সেলিব্রেটিরা!      ব্যর্থতা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন যেসব বলিউড সেলিব্রেটিরা!

ব্যর্থতা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন যেসব বলিউড সেলিব্রেটিরা!

এই বিখ্যাত বলিউড সেলিব্রেটিদের ক্যারিয়ারের শুরুটা হয়েছিল ফ্লপ সিনেমা দিয়ে। কিন্তু, ধীরে ধীরে নিজেদের সৌন্দর্য ও অভিনয় দক্ষতা দিয়ে সিনেমা জগতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তারা। ফ্লপ সিনেমা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা বলিউড সেলিব্রেটিদের সম্পর্কে জানবো আজকের আয়োজনে। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

উত্তম কুমার

উত্তম কুমার

উত্তম কুমার

দুই বাংলায় সমান জনপ্রিয় মহানায়ক উত্তম কুমারের প্রথম সিনেমা ‘দৃষ্টিদান’ মৃক্তি পায় ১৯৪৮ সালে। এর আগে ‘মায়াডোর’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করলেও, সেটি মুক্তি পায়নি। এরপর বেশ কিছু সিনেমা মুক্তি পেলেও ব্যবসাসফল না হওয়ায় ‘ফ্লপ মাস্টার’ খেতাবও পেতে হয়েছিল তুমুল জনপ্রিয় এই অভিনেতাকে! 

১৯৫৩ সালে উত্তম-সুচিত্রা জুটির ‘সাড়ে চুয়াত্তর’ মুক্তি পাওয়ার পর, উত্তম কুমারের ক্যারিয়ারে সাফল্যের পালক যোগ হতে শুরু করে। একের পর এক হিট সিনেমা এবং চমৎকার অভিনয় নৈপুণ্য প্রদর্শন করে বাঙালির হৃদয়ে আজীবনের জন্য 'মহানায়ক' হিসেবে স্থান করে নেন তিনি।

অমিতাভ বচ্চন

অমিতাভ বচ্চন

অমিতাভ বচ্চন

বর্তমানে বলিউডে তিনি 'বিগ বি' ও 'শাহেনশাহ' নামে পরিচিত। তিনি তার ক্যারিয়ারের যাত্রা শুরু করেছিলেন ১৯৭০ সালে মুক্তি পাওয়া ‘সাত হিন্দুস্থানী’ সিনেমা দিয়ে। যেটি ব্যবসাসফল তো ছিলই না, আলোচনারও বাইরে ছিল! কিন্তু, ১৯৭১ সালে রাজেশ খান্নার সাথে মুক্তি পাওয়া ‘আনন্দ’ সিনেমাটি ঘুরিয়ে দেয় তার ক্যারিয়ারের গতিপথ।

শ্রদ্ধা কাপুর

শ্রদ্ধা কাপুর

শ্রদ্ধা কাপুর

বর্তমান বলিউডের হার্টথ্রব অভিনেত্রীদের একজন অভিনেতা শক্তি কাপুর কন্যা শ্রদ্ধা কাপুর। ‘তিন পাত্তি’ সিনেমার দিয়ে বলিউড 'শাহেনশাহ' অমিতাভ বচ্চনের সাথে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে পথচলা শুরু করলেও, সিনেমাটি তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। কিন্তু, ‘আশিকি টু’ সিনেমায় তার নজর কাড়া অভিনয় দিয়ে দর্শক সমালোচকদের মন জয় করে নেন শ্রদ্ধা কাপুর।

মাধুরী দীক্ষিত

মাধুরী দীক্ষিত

মাধুরী দীক্ষিত

বলিউডে তার জনপ্রিয়তা এখনো অটুট রাখতে সক্ষম হয়েছেন আশির দশকের তুমুল জনপ্রিয় নায়িকা মাধুরী দীক্ষিত। কিন্তু, বলিউডে তার যাত্রা শুরু হয়েছিল ‘অবোধ’ নামের বেশ বাজেভাবে ফ্লপ হওয়া একটি সিনেমা দিয়ে। দীর্ঘ চার বছর অপেক্ষার পর, ১৯৮৪ সালে মুক্তি পাওয়া ‘তেজাব’ সিনেমা দিয়ে নিজের জাত চেনানোর পাশাপাশি, নিজের অভিনয় দক্ষতা দারুণভাবে ফুটিয়ে তুলেছিলেন তিনি।

রণবীর কাপুর

রণবীর কাপুর

রণবীর কাপুর

বলিউডের বিখ্যাত পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘সাওয়ারিয়া’ সিনেমার মাধ্যমে নায়ক হিসেবে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করলেও, এর আগে ‘ব্ল্যাক’ সিনেমায় একঝলক দেখা গিয়েছিল রণবীর কাপুরকে। 

সুপার ফ্লপ ‘সাওয়ারিয়া’ সিনেমা দিয়ে রণবীরের সাথে অভিষেক হয়েছিল সোনম কাপুরেরও। কিন্তু, সময় যত গড়িয়েছে নিজেদের আরো পরিণত করে বলিউডে নিজেদের আসন পাকাপোক্ত করেছেন রণবীর ও সোনম।

ক্যাটরিনা কাইফ

ক্যাটরিনা কাইফ

ক্যাটরিনা কাইফ

‘বুম’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে অভিনয় শুরু করেন মডেলিংয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করা লাস্যময়ী এই অভিনেত্রী। বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়া এই সিনেমার কারণে শুরুতেই নিজের শেষ দেখতে বসেছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ।

কিন্তু, ডুবন্ত ক্যাটরিনাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন বলিউডের মহৎ হৃদয়ের মানুষ ও প্রেমিক পুরুষ ভাইজান সালমান খান। সালমানের ছোঁয়ায় রাতারাতি বদলে যায় ক্যাটরিনার ভাগ্য। বর্তমানে বলিউডের অন্যতম সেরা নায়িকা তিনি।

সালমান খান

সালমান খান

সালমান খান

বলিউডে অনেকের ভাগ্য বদলে দিলেও, কঠোর পরিশ্রম ও অভিনয়শৈলী দিয়ে নিজের ভাগ্য নিজেকেই গড়ে নিতে হয়েছিল বলিউড 'ভাইজান' সালমান খানকে। ফ্লপ হওয়া ‘বিবি হো তো অ্যায়সি’ সিনেমায় পার্শ্বচরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে পথচলা শুরু করেন প্রভাবশালী এই অভিনেতা। কিন্তু, ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া’ সিনেমা দিয়ে নিজের জাত চেনাতে সময় নেননি তিনি। বাবা সেলিম খানের পরিচয়ে নয়, নিজ প্রচেষ্টায় নিজেকে অনন্যা এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন সালমান খান।

আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ...



জনপ্রিয়