নতুন সম্পর্ক শুরু করার আগে যে ৮ বিষয় মাথায় রাখতে হবে   নতুন সম্পর্ক শুরু করার আগে যে ৮ বিষয় মাথায় রাখতে হবে

নতুন সম্পর্ক শুরু করার আগে যে ৮ বিষয় মাথায় রাখতে হবে

সম্পর্ক ভাঙ্গে, সম্পর্ক গড়ে। অনেক সময় নতুন সম্পর্ক শুরু হলে বিভিন্ন কারণে সম্পর্কে টানাপড়েন শুরু হয়। এক পর্যায়ে হাল ছেড়ে দিয়ে অনেকদিনের সম্পর্ক ছিন্ন করতে হয়। এমনটি যেন না হয় সেজন্য সম্পর্কের শুরুতেই সাবধানী হওয়া উচিত। মনে রাখতে হবে কিছু বিষয় যেগুলো দীর্ঘমেয়াদী ও সুষ্ঠু সম্পর্কের জন্য জরুরী।

১. অধিকার দেখানো

সম্পর্কের প্রথমেই কখনোই সঙ্গীর উপর অধিকার দেখাতে যাবেন না। এটি সুন্দর ও স্বাভাবিক সম্পর্ক গড়ে ওঠতে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায়। শুরুতেই একে অন্যকে জানুন, স্পেস দিন। দুইজন আনন্দময় সময় কাটান একসঙ্গে।

২. তাড়াহুড়ো করবেন না

তাড়াহুড়ো করবেন না

তাড়াহুড়ো করবেন না

সম্পর্কের শুরুতেই তাড়াহুড়ো করতে যাবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে। বরং সময় নিয়ে দুজনের ভালো লাগা, মন্দ লাগা নিয়ে আলোচনা করুন। মনে মিল হয় কিনা দেখুন। একসঙ্গে সময় কাটাতে চেষ্টা করুন। এতে করে স্বাভাবিকভাবেই সম্পর্ক গড়ে উঠবে, মজবুত হবে।

৩. জোর করবেন না

তাড়াহুড়ো করবেন না

তাড়াহুড়ো করবেন না

কখনোই কোনও বিষয়ে জোরজবরদস্তি করবেন না। সঙ্গীকে বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করা, বন্ধুদের সঙ্গে পরিচয় করা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে চাপ প্রয়োগ করবেন না।

৪. কথা শোনার অভ্যাস

এই অভ্যাসটা খুব জরুরী। শুধু নিজের মনের কথা জানালেই হবে না, অপর পক্ষের কথাও মনোযোগ দিয়ে শোনার অভ্যাস করুন। এতে নিজেদের বোঝাপড়া বাড়বে।

৫. আত্মসম্মানে আঘাত

সঙ্গীর আত্নসম্মানবোধে আঘাত করে এমন কোনও কাজ করবেন না। যেমন অন্যের সঙ্গে তুলনা করা, বন্ধুদের সামনে অপমান করা কিংবা তাকে ছোট করে কোনও কথা বলা।

৬. সততা অবলম্বন

যে কোনো ধরণের সম্পর্কেই সৎ থাকা খুব জরুরী। শুরুতেই আপনার সম্পর্কে সত্যগুলো সঙ্গীকে জানিয়ে দিবেন। নিজেকে বড় দেখাতে বা জাহির করতে ভুল তথ্য কিংবা চিন্তা শেয়ার করবেন না। এটি দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্কের ক্ষেত্রে বাঁধা সৃষ্টি করবে না হয়।

৭. মতামতকে শ্রদ্ধা করা

আপনার সঙ্গে সঙ্গীর মতামত ও চিন্তা ভাবনা সব বিষয়ে মিলবে না। প্রতিটি মানুষ যেমন আলাদা, তেমনি তাদের চিন্তাভাবনাও আলাদা। একসঙ্গে থাকার জন্য প্রত্যেকের মতামতকে সম্মান করতে হবে।

৮. ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ

সঙ্গীর ব্যক্তি স্বাধীনতা হরণ হয় এমন কাজ করবেন না। মনে রাখবেন, বন্দী অবস্থায় কেউ বেশিদিন থাকতে পারে না।

আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ...



জনপ্রিয়