বল্টু জোকস!   বল্টু জোকস!

বল্টু জোকস! (২য় পর্ব)

জোকসঃ বল্টু যখন ইন্টারভিউতে ! 

বল্টু যখন ইন্টারভিউতে ! 

বল্টু যখন ইন্টারভিউতে ! 

বল্টু বেকার লোক। অনেকদিন ধরে চাকরির ইন্টারভিউ দিচ্ছে, কিন্ত হচ্ছেনা, এক অফিসে ইন্টারভিউ দিতে এসে পরিচিত ‘কুদ্দুস’ এর দেখা পেল। ঘটনাক্রমে তারা দুজনেই ওয়েটিং রুমে অপেক্ষারত। প্রথমে ইন্টারভিউ রুমে কুদ্দুস ... 

প্রশ্ন ১: মিস্টার কুদ্দুস, বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল কখন বলতে পারেন ?
কুদ্দুস: স্যার, হওয়ার কথা ছিল ১৯৫২ সালে, কিন্তূ হয়েছে ১৯৭১ সালে।

প্রশ্ন ২: বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবির নাম বলুন ?
কুদ্দুস: অনেকেই তো আছেন, নিদ্রিষ্ট করে কার নাম বলবো স্যার ?

প্রশ্ন ৩: ঢাকা শহরে যানজটের কারণ কি বলে আপনি মনে করেন ?
কুদ্দুস: এটাতো স্যার গবেষণার বিষয়।

কুদ্দুস ইন্টারভিউ শেষে চলে যাবার সময় বল্টু জানতে চাইলো কি কি প্রশ্ন করা হয়েছে। কুদ্দুস অন্য কোথাও যাবে তাই তিনটা প্রশ্নের উওর বল্টুকে বলে তাড়াতাড়ি চলে গেল। প্রশ্ন গুলো বলা হলো না।

এবার ইন্টারভিউ রুমে বল্টু…

প্রশ্ন ১: মিষ্টার বল্টু, আপনার জন্ম কত সালে ?
বল্টু: হওয়ার কথা ছিল ১৯৫২ সালে, কিন্তূ হয়েছি ১৯৭১ সালে।

প্রশ্ন ২: (প্রশ্নকর্তা অবাক হয়ে জিজ্ঞেস করলো) আপনার পিতার নাম কি ?
বল্টু: অনেকেই তো আছেন, নিদ্রিষ্ট করে কার নাম বলবো স্যার ?

প্রশ্ন ৩: (প্রশ্নকর্তা রেগে) আপনার মাথা ঠিক আছে ?
বল্টু: এটাতো স্যার গবেষণার বিষয়।

 

জোকসঃ রেডিওর দোকান এবং খদ্দের

রেডিওর দোকান এবং খদ্দের

রেডিওর দোকান এবং খদ্দের

রেডিওর দোকানে এক খদ্দের এসে রেগেমেগে বলল, এ রেডিওটা বিক্রির সময় আপনি চিরজীবনের গ্যারন্টি দিয়েছিলেন। কিন্তু দু বছরও তো গেল না।

মালিক হেসে বলল, চিরজীবনের গ্যারান্টি দিয়েছিলাম ঠিকই তখন আপনার স্বাস্থ্য খুবই খারাপ ছিল।

 

জোকসঃ  মা ও ডাক্তার 

মা ও ডাক্তার 

মা ও ডাক্তার 

ডাক্তার: আপনার ছেলের দাঁত তুলে দিয়েছি। এবার জলদি ৫০০ টাকা দিন।

মা: কিন্তু আপনার ফি তো ১০০ টাকা।

ডাক্তার: আপনার ছেলের চিৎকারে যে আমার আর চারটে রোগী ভেগে গেল, সেই টাকাটা কে দেবে, শুনি?

 

 

জোকসঃ ভিক্ষুক ও বল্টুর মধ্যে কথোপকথন

ভিক্ষুক ও বল্টুর মধ্যে কথোপকথন

ভিক্ষুক ও বল্টুর মধ্যে কথোপকথন

ভিক্ষুক : দশটা টাকা ভিক্ষা দেন স্যার, চা খাব।

বল্টু : চা তো পাঁচ টাকা। দশ টাকা চাও কেন?

ভিক্ষুক : বান্ধবীকে নিয়ে খাব স্যার।

বল্টু : বাহ, ভিক্ষুক হয়ে আবার বান্ধবী বানিয়েছ!

ভিক্ষুক : না স্যার, বান্ধবীই আমাকে ভিক্ষুক বানিয়েছে!

 

জোকসঃ বল্টু যখন পোষ্ট অফিসে 

চিঠি পোস্ট করতে পোস্ট অফিসে গেছে বল্টু।
কর্মকর্তা: চিঠিটা যদি দ্রুত পৌঁছাতে চান, খরচ পড়বে ৪০ টাকা। আর যদি স্বাভাবিক নিয়মেই পাঠাতে চান, তাহলে খরচ পড়বে ৫ টাকা।
বল্টু: সমস্যা নেই, আমার তেমন কোনো তাড়া নেই। প্রাপক তার জীবদ্দশায় চিঠিটা পেলেই হলো।
কর্মকর্তা: তাহলে আপনাকে ৪০ টাকাই দিতে হবে!

 

ছবিঃ ইন্টারনেট।



জনপ্রিয়