নিজের মনের কথা শুনুন নিজের মনের কথা শুনুন

নিজের মনের কথা শুনুন

সবাই আপনাকে বলছে কাজটা করুন। আপনারও নিজের উপর বিশ্বাস আছে কাজটা আপনি করতে পারবেন, কিন্তু আপনার মন আপনাকে বাঁধা দিচ্ছে। এই অনুভূতিটাকে বলা হয়ে থাকে গাঁট ফিলিংস। অনেকেই আপনাকে বলবে আপনি সিদ্ধান্ত নিতে কেন দেরী করছেন? সব আপনার মনের ভয়। এই সময় আপনি চিন্তিত হয়ে পড়েন, মনের কথা শুনবেন কিনা এই ভেবে। আর মনের ভিতর থেকে আসা কথাটার উপর ভরসা করবেন কিনা ?

আর এর উত্তরটা হচ্ছে, “হ্যাঁ”। আপনি অন্তরের কথা শুনুন।

 

১. কেন আমি আমার অন্তরের কথা শুনবো ?

source: Internet

source: Internet

আপনার অন্তর আসলে আপনাকে বলতে চায় আপনি কিছু ভুলে যাচ্ছেন। যেমন, আপনি চুলা জ্বালিয়ে তা বন্ধ করতে ভুলে গিয়েছেন। এটি এমন একটি অনুভূতি যা আপনাকে বলতে চায়, “আপনি কিছু ভুলে যাচ্ছেন” এবং আপনার সেটা মনে করা উচিত।

 

২. এই অনুভূতির ইতিহাসঃ

source: Internet

source: Internet

মানুষের মধ্যে প্রাক-ঐতিহাসিক যুগ থেকেই এই অনুভূতিটা রয়েছে। তখনো মানুষের মস্তিষ্কের সামনের অংশটির উন্নতি হয়নি। সে সময় তারা তাদের পূর্বের স্মৃতিকে কাজে লাগিয়ে বন্য পরিবেশে বন্য প্রাণীর হাত থেকে নিজেদের রক্ষা করতো। আর তখন থেকেই এই অনুভূতির উৎপত্তি হয়।   

 

৩. নিজের কথা শুনুনঃ

source: Internet

source: Internet

এটি এমন এক ধরনের অনুভূতি যা জীবনে সফলতা আনতে আপনাকে সাহায্য করবে। এই অনুভূতিটি আপনাকে প্রেরণা জোগাবে। তবে সব অনুভূতিই যে সঠিক তা কিন্তু বলছিনা। আপনি যদি ঠিকমত উপলব্ধি করতে পারেন, তাহলে এটি আপনার জন্য মঙ্গলজনক হবে।

 

৪. আপনার সুখই আপনার সাফল্যঃ

source: Internet

source: Internet

কেউ বলতে পারবেনা আপনার সুখ কোথায় আছে। শুধুমাত্র আপনিই বলতে পারবেন আপনার সুখ কোথায়। যদি আপনার সেই অনুভূতি আপনাকে বলে যে আপনি এতে খুশি হবেন, তাহলে সেটি করে অবশ্যই আপনি খুশি হবেন। তাই বেশী চিন্তিত না হয়ে নিজের উপর আস্থা রাখুন এবং কঠোর পরিশ্রম করুন । একদিন সফলতা আসবেই।

 

৫. অসুস্থতাঃ

source: Internet

source: Internet

আজকাল সবাই নিজেদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে অসচেতন হয়ে পড়ছেন। অনেকেই শারীরিক ভাবে অসুস্থ অনুভব করা সত্ত্বেও তেমন একটা গুরুত্ব দেন না। আপনার প্রিয়জনকে দেখে যদি আপনার মনে হয় তাকে ডাক্তারের কাছে নেয়া দরকার, অপেক্ষা করবেন না, নিয়ে যান। যদি সবকিছু ভালও থাকে তবু একটু চেক-আপ করালে ক্ষতি কি?

 

৬. অপরিচিত কাউকে দেখে অনুভূতিঃ

source: Internet

source: Internet

অনেক সময় আমরা মানুষ দেখে আন্দাজ করে থাকি যে, তিনি আমার কোন ক্ষতি করবেন কিনা। আপনাকে একজন অপরিচিত লোক কিছু খাওয়ার জন্য অফার করলো। আপনার লোকটিকে দেখে সুবিধার মনে হচ্ছে না। তাহলে ফিরিয়ে দিন তার অফার। হতে পারে লোকটি সম্পর্কে আপনার ধারণা ভুল। কিন্তু বর্তমান যুগে নিজেকে একটু নিরাপদ রাখাটাও দোষের কিছু নয়।

 

৭. বিপদের অনুভূতিঃ

source: Internet

source: Internet

মানুষের মস্তিষ্ক অত্যন্ত চালাক। এটি জানে কি করা এবং কোথায় যাওয়া উচিৎ নয়। ধরুন, আপনি একটি লম্বা মই বেয়ে অনেক উপরে চড়া শুরু করেছেন। আর আপনার অনুভূতি হচ্ছে যে আপনি হয়তো পড়ে যাবেন। তাহলে নেমে আসুন, যার এই অনুভূতি নেই তাকে চড়তে দিন। আপনি একটি সরু গলি দিয়ে হাঁটছেন আর আপনি বিপদের আশঙ্কা করছেন। তাহলে ফিরে আসুন আর বড় রাস্তা ধরে হাঁটুন।

 

নিজের মনের কথা শোনাটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আপনাদের আই আয়োজন কেমন লাগলো আমাদের জানাতে ভুলবেন না।

আমাদের আয়োজন ভালো লাগলে লাইক, কমেন্ট, শেয়ারের মাধ্যমে আমাদের সাথেই থাকুন। আমাদের পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ। 



জনপ্রিয়