বিখ্যাত এই নারীরা প্রমাণ করেছেন ৪০ বছর বয়সেও মা হওয়া সম্ভব!   বিখ্যাত এই নারীরা প্রমাণ করেছেন ৪০ বছর বয়সেও মা হওয়া সম্ভব!

বিখ্যাত এই নারীরা প্রমাণ করেছেন ৪০ বছর বয়সেও মা হওয়া সম্ভব!

অনেক মানুষ  বিজ্ঞানীদের গবেষণার এই সিদ্ধান্ত জেনে অবাক হবেন যে, একটি শিশু গর্ভে থাকার সর্বোত্তম সময় হল ৩০ বছর থেকে ৩৪ বছরের মধ্যে। এই বয়স সামাজিক অবস্থা এবং ভাল স্বাস্থ্যের জন্য নিখুঁত একটা সময়। যাইহোক, কিছু নারী ৩৫ বছর বয়সের পরেও সন্তান জন্ম দিতে পারে।

আজকে আমরা বিখ্যাত সেলিব্রেটিদের ৪০ বছর বয়সে মা হওয়ার ঘটনা আপনাদের সামনে উপস্থাপন করছি। তারা প্রমাণ করেছেন যে, ৪০ বছর বয়সেও মা হওয়া সম্ভব!

 

১. সুসান সারান্দন

© Retna/Photoshot/REPORTER   © AFP/EAST NEWS

© Retna/Photoshot/REPORTER © AFP/EAST NEWS

সুসান সারান্দনের ৩ সন্তান রয়েছে এবং তিনি তাদেরকে ৩৯, ৪২ এবং ৪৫ বছর বয়সে জন্মদান করেন। যখন তিনি তরুণী ছিলেন, তখন ডাক্তার বলেছিলেন যে তা গর্ভ অনুর্বর। তাই তিনি অনেক বছর ধরে জন্ম নিয়ন্ত্রণের পিল ব্যবহার করেন নি। কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে তিনি প্রেগন্যান্ট হয়ে যান এবং পরে আরো দ্বিতীয়বারের মতো। সুসান বলেন যে তিনি অনেক সুখী এবং কোন রোগ নির্ণয়ের থেকে আরো শক্তিশালী।

তার আকর্ষণীয় সন্তানদের দিকে তাকিয়ে দেখুন এবং ৭১ বছর বয়সেও সুসান এখনো অনেক সুন্দরী রয়েছেন।  

 

২. জেনিফার লোপেজ

© GZR, PacificCoastNews/EAST NEWS

© GZR, PacificCoastNews/EAST NEWS

আগে অভিনেত্রী হিসেবে জেনিফার লোপেজের এতো সহজ সময় ছিল না। তিনি অনেক দিন ধরেই  সন্তান নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু প্রকৃতির সহায় তিনি পান নি। তাকে টেস্ট টিউব বা ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন ব্যবহার করতে হয়েছিল। এই পদ্ধতিতে মানবদেহের বাইরে শুক্রাণুর দ্বারা ডিম্বাণু নিষিক্ত করে থাকেন। এই পদ্ধতির মাধ্যমে অনেক নিঃসন্তান নারী সন্তান লাভ করে থাকেন আবার অনেক নারী সারোগেসি বা নিজ গর্ভ ভাড়া দিয়ে তাতে অন্য দম্পতির নিষিক্ত ভ্রুণ (সন্তান) ধারণ ও লালন করেন। 

জেনিফারের প্রথম প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছিল, কিন্তু এখন তিনি বিস্ময়করভাবে ৩৮ বছর বয়সে টুইন সন্তানের জন্ম দেন।

 

৩. কেলি প্রেস্টন 

© ABACA/EAST NEWS

© ABACA/EAST NEWS

কেলি প্রেস্টন জন ট্রাভোল্টারের স্ত্রী। তিনি ৪৭ বছর বয়সে গর্ভবতী হন এবং এটা আসলেই একটা আশীর্বাদ ছিল। কারণ তার এক বছর আগে,  ট্রাভোল্টারের পরিবার একটা ভয়ানক ট্র্যাজেডির মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করছিলঃ তাদের একমাত্র পুত্র জেট মারা গিয়েছিল। 

কেলি তার সন্তানের জন্মের বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, "বেঞ্জামিন আমাদের পরিবারকে দ্বিতীয় জীবন দিয়েছে,"। 

 

৪. সেলিন ডিওন

© EAST NEWS   © Gilbert Flores/Broadimage/EAST NEWS

© EAST NEWS © Gilbert Flores/Broadimage/EAST NEWS

এই শিল্পী ৩৩ বছর বয়সে প্রথম সন্তান জন্ম দেন এবং তার ৪২ বছর বয়সে জমজ সন্তান হয়। এই শিল্পী ৬বার ভিট্রো ফার্টিলাইজেশনের মধ্য দিয়ে সন্তান নেওয়ার চেষ্টা করেন এবং তিনি সুস্থ জমজ সন্তান জন্মদান করেন। তিনি স্বীকার করেন যে, 'ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন মানসিক পর্যায়ে খুব কঠিন এবং আপনার সবসময় মনে রাখা উচিৎ যে একজন মা হওয়া কতটা ভাগ্যের ব্যাপার'।  

 

৫. হ্যালি বেরি

© RF/Coleman-Rayner 2017/EAST NEWS   © Coleman-Rayner /EAST NEWS

© RF/Coleman-Rayner 2017/EAST NEWS © Coleman-Rayner /EAST NEWS

এই অভিনেত্রীকে দেখে কখনো বয়স হয়েছে বলে মনে হয় না এবং এটা শুধুমাত্র তার আকর্ষণীয় চেহারার বেলাতেই নয়। হ্যালি বেরি তার ৪১ বছর বয়সে প্রথম মা হন এবং তার ৪৭ বছর বয়সে দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম হয়, যা তার জন্য একটা বড় সারপ্রাইজ ছিল।  

 

৬. কিম বেসিংগার

© Lumeimages/Sipa USA/East News   © 2350 / Balawa Pics/EAST NEWS

© Lumeimages/Sipa USA/East News © 2350 / Balawa Pics/EAST NEWS

কিম বেসিংগারের একমাত্র কন্যা রয়েছে, নাম আয়ারল্যান্ড বেলডুইন। এই আকর্ষণীয় নারীদের দিকে তাকিয়ে থাকলে এটা বিশ্বাস করা কঠিন হয় যে, তাদের দুজনের মধ্যে ৪১ বছর বয়সের ব্যবধান রয়েছে।

আয়ারল্যান্ড বেলডুইন একজন ম্যাগাজিন মডেল এবং মাঝেমধ্যে তিনি সিনেমায় অভিনয় করেন। 

 

৭. গ্যেন স্টেফানি

© Cathy Gibson, PacificCoastNews/EAST NEWS   © Instagram/East News

© Cathy Gibson, PacificCoastNews/EAST NEWS © Instagram/East News

চিরকালের তরুণ বিদ্রোহী গ্যেন স্টেফানি প্রথম মা হন প্রায় ৪০ বছরের কাছাকাছি বয়সে। তিনি তৃতীয়বারের মতো মা হন ৪৫ বছর বয়সে। ছবিতে তার সন্তাদের সাথে তাকে অনেক সুন্দর দেখাচ্ছে, মনেই হয় না তিনি তাদের মা!

 

৮. সালমা হায়েক 

© NPA/The Grosby Group/EAST NEWS

© NPA/The Grosby Group/EAST NEWS

সালমা হায়েকের মতে, তিতি অনেকদিন ধরেই সন্তান নেওয়ার চেষ্টা করছিলেন কিন্তু চিকিৎসার কারণে নিতে পাচ্ছিলেন না। অবশেষে তার বয়স যখন ৪১ বছর তখন তিনি সন্তান নিতে সফল হন। 

গর্ভধারণ অনেক কষ্টের ছিল। তার ৫০ পাউন্ড ওজন বেড়ে গিয়েছিল, কিন্তু পরে তিনি আগের ওজন বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছিলেন। 

৯. ম্যাডোনা 

© DIGITAL/EROTEME.CO.UK/East News   © Brent N. Clarke/Invision/AP/Fotolink

© DIGITAL/EROTEME.CO.UK/East News © Brent N. Clarke/Invision/AP/Fotolink

এই পপ কুইনের প্রথম সন্তান হয় তার ৩৬ বছর বয়সে এবং তার বয়স যখন ৪১ বছর তখন তার ছেলের জন্ম হয়। এছাড়াও তিনি আফ্রিকা থেকে ৪ জন সন্তান দত্তক নিয়ে লালনপালন করছেন। ম্যাডোনা বলেন যে, 'আমি মা হওয়ার আগে অনেক স্বার্থপর ছিলাম, কিন্তু একজন মা হওয়াটা আমার আচরণকে পুরোপুরি পরিবর্তিত করেছে'।

 

১০. মারিয়া ক্যারি

© Mike Blake/pictures.reuters

© Mike Blake/pictures.reuters

মারিয়া ক্যারি ৪১ বছর বয়সে প্রথম মা হন এবং এটা তার জন্য এতো সহজ ছিল না। তার গর্ভাবস্থায় উচ্চ রক্তচাপ এবং গর্ভাবস্থার ডায়াবেটিস ছিল। তারপরেও তিনি একজন মা হতে পেরেছেন। দুর্ভাগ্যবশত, মারিয়ার সেই সন্তানদের পিতার সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। 

 

১১. মনিকা বেলুচি

bellabelluccifans

bellabelluccifans

এই অভিনেত্রীর বন্ধ্যাত্বের লক্ষণ নির্ণয় করা হয়েছিল, কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে তিনি ৩৯ বছর বয়সে প্রেগন্যান্ট হন। তার প্রথম কন্যার সময় এখন ১৩ বছর হয়েছে। তার দ্বিতীয় কন্যার জন্ম হয় তার ৪৫ বছর বয়সে। তিনি বলেন, যখন তিনি তার প্রেগন্যান্টের কথা জানতে পারেন তখন তিনি ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন। কারণ এই বয়সে গর্ভধারণ অনেক ঝুঁকিপূর্ণ। ভাগ্যক্রমে তার সন্তান সুষ্ঠুভাবে জন্ম লাভ করেছিল। 

 

৪৫ বছর বয়সে সন্তান নেওয়াটা অনেক ঝুঁকিপূর্ণ, কিন্তু একজন মা তার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। কারণ এই বয়সে গর্ভধারণের সময় অনেক কিছুই হতে পারে।  কিন্তু আমরা মনে করি যে প্রত্যেক ব্যক্তি এমন একটা উদাহরণ নিয়ে আসতে পারে, যেখানে সবাই মনে করে সে কখনো মা হতে পারে না! 



জনপ্রিয়