পর্দার নায়ক জেমস বন্ড দাম্পত্য জীবনেও হিরো পর্দার নায়ক জেমস বন্ড দাম্পত্য জীবনেও হিরো

পর্দার নায়ক জেমস বন্ড দাম্পত্য জীবনেও হিরো

পিয়ার্স ব্রুসনানকে চেনেন? সেই বিখাত ব্যাক্তি যিনি জেমস বন্ড চরিত্রটিকে নিয়ে গিয়েছিলেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। মেরিল স্ট্রিপের প্রেমিক হিসেবেও তিনি খাতি লাভ করেন কিন্তু তার যে কোন চলচ্চিত্রের চেয়ে সেরা হলো তার দাম্পত্য জীবনের গল্প। কিছুদিন আগে পিয়ার্স ব্রুসনান ও তার স্ত্রী তাদের দাম্পত্য জীবনের ২৫ বছর পূর্তি করেন। পশ্চিমা ধরনার জীবন সম্পর্কে যাদের ধারণা আছে তারা জানেন এখানে ২৫ বছর একসাথে মানে বিশাল কিছু।

আজকের আয়োজনে এই দম্পতির ভালোবাসার কথাগুলোই থাকছে।

 

পিয়ার্স ব্রুসনান কখনো তার অনুভূতি প্রকাশে স্ত্রী থেকে কোন কিছু লুকাননি। ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে তিনি ইন্সট্রাগ্রামে একটি ছবি দিয়েছিলেন এবং লিখেন, " Thank you for the love my love of these past 25 years, onwards.”

কেলি শাই একজন টিভি সাংবাদিক ছিলেন। ১৯৯৪ সালে কাবো সান লুকাসে The ‘Mamma Mia! Here We Go Again’ অনুষ্ঠানে  সংবাদদাতা হিসেবে কাজ করেন এবং এখানেই প্রথম তার পিয়ার্স ব্রুসনানের সাথে দেখা হয়। সাত বছর পর ২০০১ সালে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। আয়ারল্যান্ডের কাউন্টি মায়োর ৭৮৫ বছর পুরনো ওল্ড বালিন্টাবার অ্যাবেতে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

এই দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনে তারা এক অপরকে প্রচুর ভালোবাসা ও গুরুত্বপূর্ণ সময় দিয়েছেন। এই দম্পতির দুজন ছেলে রয়েছে ডিলান, ২১ এবং প্যারিস, ১৭। 

চলুন এই অনবদ্য দম্পতির কিছু অসাধারণ ছবি দেখে আসি।

 

অভিনেতা পিয়ার্স ব্রুসনান তার স্ত্রী কেলি শাই স্মিথের জন্য তার প্রেম প্রকাশ করতে কখনো ভয় পান নি।

source: internet

source: internet

 

১৯৯৪ সালে তাদের প্রথম সাক্ষাত হয়।

source: internet

source: internet

 

২০০১ সালে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

source: internet

source: internet

 

তাদের দুই সন্তান আছে, ডিলান ও প্যারিস যথাক্রমে ২১ ও ১৭ বছর বয়সী।

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

 

চারজন মিলে তাদের অসাধারণ ফ্যামিলি।

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

 

পিয়ার্স ব্রুসনান বলেন স্ত্রীর প্যাশনকে তিনি খুব পছন্দ করেন।

source: internet

source: internet

 

"তার শক্তি ছাড়া আমি বেঁচে থাকতে পারবো না। যখন কেলি আমার দিকে তাকায় , আমি দূর্বল হয়ে পড়ি।"

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

 

এই ২৫ বছরেও তাদের ভালোবাসা একটুও কমেনি, বরং বেড়েছে।

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

 

ব্রুসনানের মতে তাদের এই বিবাহের সফলতার কারণ হলো গুনগত সময়।

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

source: internet

 

কেমন লাগলো আপনাদের প্রিয় জেমস বন্ডের পর্দার আড়ালের ভালোবাসা কাহিনী? আমাদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের আয়োজন ভালো লাগলে লাইক, কমেন্ট, শেয়ারের মাধ্যমে আমাদের সাথেই থাকুন। আমাদের পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ।



জনপ্রিয়