এই বাচ্চাটির জন্মদাগ তাকে বানিয়ে দিল ছোট সুপারহিরো!   এই বাচ্চাটির জন্মদাগ তাকে বানিয়ে দিল ছোট সুপারহিরো!

এই বাচ্চাটির জন্মদাগ তাকে বানিয়ে দিল ছোট সুপারহিরো!

চার মাস আগে যখন নাতালি জ্যাকসন জন্মগ্রহণ করে তখন তার পিতা-মাতা তাকে দেখে উদ্বিগ্ন হয়েছিলেন। যদিও ডাক্তার বলেছিলেন যে, মেয়েটি পুরোপুরি সুস্থ এবং তার মুখের এক তৃতীয়াংশ একটি কালো জন্মদাগ নিয়ে সে জন্মেছিল। ধারণা করা হচ্ছে এই দাগ মেয়ের বেড়ে উঠার সাথে সাথে বৃদ্ধি পাবে।

এই নবজাতক মেয়েটি অতিদ্রুত তার পিতা-মাতার ভালবাসা জয় করতে পেরেছিল এবং নাতালি আসলেই একজন ‘ছোট সুপারহিরো’ নামে আখ্যায়িত হয়েছিল। তার জন্মদাগ ব্যাটম্যান এবং রবিন স্টাইল মাস্কের মতো। তার পিতা-মাতা জানতেন যে, মেয়েটিকে ভবিষ্যতে কিছু কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে তারপরও তারা মেয়ের এই আঁচিল বা জন্মদাগ সরানোর জন্য অস্বীকৃতি জানান এবং তার অনন্য আর ভিন্ন এই চেহারাকে সাগ্রহে গ্রহণ করেন।

মেয়েটির মা ল্যাসি বলেন, ‘তার এই চিহ্নের মানে হল তার জীবন তাকে যে পরিস্থিতিতেই রাখুক না কেন সে দৃঢ় হতে যাচ্ছে’। ‘মানুষজন আমাদের বলে তার জন্মদাগ কত চমৎকার এবং সুন্দর কিন্তু আমরা বেশী একমত হতে পারিনি’।

যখন মেয়েটির বয়স এক সপ্তাহ হয়, তখন তাকে একজন চক্ষুরোগের চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল এটা জানার জন্য যে, এই জন্মদাগের কারণে তার দৃষ্টিতে কোন ক্ষতিকর প্রভাব ফেলবে কিনা। তাকে আরো ভিন্ন ভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শকদের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ভবিষ্যতে এই জন্মদাগ ম্যালানোমা(ত্বকে ক্যানসারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফর্ম) হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি করতে পারা সত্ত্বেও, এটি একজন পিতা-মাতা হিসেবে নিশ্চিত হওয়া দরকার ছিল যে সবকিছু ঠিকঠাক আছে।

তার পুরো পরিবার, তার দুইভাইসহ যাদের বয়স ৭ এবং ৪ তারা এই সুন্দর ‘সুপারহিরো’ শিশুকে নিয়ে খুশি হতে পারেনি কিন্তু তারা যেকোন অবস্থায় মেয়েটির পাশে থাকার জন্য উদ্যত হয়।

আজকে আমরা ব্যাটম্যান স্টাইলের আঁচিল নিয়ে জন্মগ্রহণ করা একটি মেয়েশিশুর  গল্প আপনাদের সামনে উপস্থাপন করছি। 

এ হচ্ছে নাতালি জ্যাকসন, চারমাসের একটি মেয়ে যে তার মুখের এক তৃতীয়াংশ অংশ একটি আঁচিল(জন্মদাগ) নিয়ে জন্মগ্রহণ করেন। 

© Lacey

© Lacey

© Lacey

© Lacey

 

তার পিতামাতা তাকে প্রথম দেখে ভয়ে চমকিত হয়ে গিয়েছিলেন।

© Lacey

© Lacey

 

কিন্তু তারা খুব শীঘ্রই ভয়কে জয় করে নবজাত শিশুর জন্য তাদের ভালবাসার জেগে উঠলো।

© Lacey

© Lacey

 

নাতালিকে তার ব্যাটম্যান স্টাইলের জন্মদাগ দেখে প্রকৃতপক্ষে একটি ‘ছোট সুপারহিরো’র উপাধিতে অখ্যায়িত করা যেতেই পারে।

© Lacey

© Lacey

 

তার পিতামাতা মেয়েটিকে ভবিষ্যতে কিছু কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে জেনেও এই জন্মদাগ সরানোর জন্য অস্বীকৃতি জানান এবং তারা মেয়ের এই অনন্য এবং ভিন্ন চেহারাকে সাদরে গ্রহণ করেন।

© Lacey

© Lacey

 

এই জন্মদাগ তার দৃষ্টিতে কোন সমস্যা সৃষ্টি করবে না।

© Lacey

© Lacey

 

তবে ভবিষ্যতে এই জন্মদাগ ম্যালানোমা(ত্বকে ক্যানসারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফর্ম) হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি করতেও পারে।

© Lacey

© Lacey

 

এই চিহ্নের অর্থ হল সে যে কোন কঠিন পরিস্থিতিতেও নিজেকে দৃঢ় এবং অটল রাখতে পারবে। তার ভাইয়ের সাথে তোলা ছবি।

© Lacey

© Lacey

 

মায়ের সাথে 'ছোট সুপারহিরো' নাতালি জ্যাকসন।

© Lacey

© Lacey

 

যেকোন অবস্থায়, যেকোন পরিস্থিতিতে নাতালির পাশে থাকার জন্য পরিবারের সদস্যরা প্রস্তুত।  

© Lacey

© Lacey

 



জনপ্রিয়