অসাধারণ এই বাবারা সন্তানের জন্য অসাধ্য সাধন করেছে। অসাধারণ এই বাবারা সন্তানের জন্য অসাধ্য সাধন করেছে।

অসাধারণ এই বাবারা সন্তানের জন্য অসাধ্য সাধন করেছে।

আমরা ভেবে থাকি সন্তান লালন পালন ও বড় করায় মায়েদের অবদানই বেশী। কিন্তু আজকের এই বাবাদের সাথে পরিচয় হলে আপনাদের ধারণা বদলে যাবে। এই বাবারা রীতিমত সন্তানের জন্য অসাধ্য সব কাজ করেছে।

আজ আপনাদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো কিছু অসাধারণ বাবার সাথে যারা তাদের ব্যস্ত জীবনের ফাঁকে সন্তানের জন্য করেছেন অসাধারণ সব কাজ। যা দেখে যেকোনো বাবা অনুপ্রানিত হবে।

 

১। মেয়ের জন্য যাত্রা পথেই বাবা ব্যবস্থা করেছে হ্যালোইনের। তিনি প্লেনের সবার মাঝে চকলেট বিলি করেছেন যেন তার মেয়ে প্রতিটি হ্যালোইন রাতের মত এইবারও চকলেট সংগ্রহ করতে পারে।  

 

২। এক বাবা মেয়ের স্বপ্নের ট্রি হাউজ বানিয়ে দিয়েছে মেয়ের ঘরের মধ্যেই।

 

৩। এই বাবা প্রতি বছর নির্দিষ্ট দিনে মেয়েকে ডেটে নিয়ে যায় এবং ফুল কিনে বাড়ি ফেরে। শুধু তাই না তিনি মেয়েকে ড্রেস পছন্দ করতে সাহায্য করেন এবং প্রায় সময় ডেসার্ট খেতে বাইরে নিয়ে যায়।

 

৪। মেয়েকে নিয়ে বাইরে ঘুরতে যাওয়া এই বাবার সবথেকে প্রিয় শখ।

 

৫। প্রথম ছবিটা এই বাবার মেয়েকে নিয়ে স্কুলে যাওয়ার প্রথম দিনের ছবি। আর দ্বিতীয় ছবিটা তোলা হয়েছে মেয়ের স্কুলের শেষদিনে যেদিনও এই বাবা মেয়েকে স্কুলে পৌঁছে দিচ্ছিলেন।

 

৬। বাবা মেয়েকে চমকে দেয়ার জন্য প্রায় কাজ ফেলে অগোচরে তার স্কুলে ফুল দিয়ে আসে।

 

৭। মেয়ে সামলানোর দায়িত্বটা এই বাবা খুব ভালোভাবে পালন করে থাকেন।

 

৮। বাবা মেয়ের হ্যালোইনের আবদার মেটাতে অসাধারণ এই কস্টিউমটি বানিয়েছেন।

 

৯। মেয়েকে চমকে দেয়ার জন্য এই সাজে মেয়েকে নিয়ে নাচতে যাচ্ছেন বাবা। কারণ তিনি ভাবেন তার মেয়ের এখন উচিত প্রাপ্ত বয়স্ক কারো সাথে নাচতে যাওয়া এবং সময় কাটানো। যাতে তার মেয়ে আগ্রহী নয়।

 

১০। বাবা মেয়েকে কাঁধে নিয়ে প্রথম দিন স্কুলে গিয়েছিলেন। দ্বিতীয় ছবিটা মেয়ের স্কুলের শেষদিনের। ওই দিনও বাবা মেয়েকে কাঁধে করে স্কুলে রেখে আসেন।

 

১১। এটা কিন্তু একটা বাবার জন্য অসাধারণ মানানসই ড্রেস। মারমাইডের বাবা কতটা মমতাময়ী জানেন নিশ্চয়।

 

১২। হুট করে মেয়ে স্কুলে দুর্ঘটনায় পড়ায় সব ফেলে বাবা ছুটে এসেছেন।

 

১৩। “ আমার বাবা সব সময় কাজ নিয়ে খুব ব্যস্ত থাকেন। কিন্তু প্রতি বছর নাচের অনুষ্ঠানে আমাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য যেভাবেই হোক সময় বের করে ফেলেন। তার এমন চেহারার কারণ সে ছবি তুলতে পছন্দ করে না। ”

 

১৪। বাবা মেয়ের জন্য পুরো একটা নিনজা ওয়ারিওর কোর্স বানিয়েছেন নিজের বাসার আঙ্গিনায়।   

 



জনপ্রিয়