চীনে নববর্ষ উদযাপন হয় ১৫ দিন ধরে....! চীনে নববর্ষ উদযাপন হয় ১৫ দিন ধরে....!

চীন সম্পর্কে এই বিস্ময়কর তথ্যগুলো খুব কম মানুষ ই জানেন!

চীন এমন একটি নাম যা পৃথিবীর সকল মানুষের কাছেই অতি পরিচিত। শুধুমাত্র অন্যতম প্রাচীন সভ্যতার কারণে নয় বরং চীনের শক্তিশালী অর্থনীতি আজ চীনকে সারা বিশ্বের কাছে সু পরিচিতি পেতে সাহায্য করেছে। বন্ধুরা আমরা বাজি ধরে বলতে পারি, আপনারা চীন সম্পর্কে এই তথ্যগুলো এই আর্টিকেলটি পড়ার আগে জানতেন না? চলুন বন্ধুরা চীন সম্পর্কে বেশ কিছু চমৎকার তথ্য জানা যাক।

১. সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ফুটবলের উৎপত্তি হয়েছিল চীনে

swedishnomad

swedishnomad

২২০০ বছর আগে আজকের জনপ্রিয় খেলা ফুটবলের উৎপত্তি চীনেই হয়েছিল। প্রথম দিকের ফুটবলটি ছিল চামড়া দিয়ে মোড়ানো একটি বল যার ভেতরে চুল এবং পালকে পরিপুর্ণ ছিল। তখন এই খেলাকে বলা হত "সু" "চু" যার অর্থ "পা" দিয়ে খেলার বল।

২. চীন হচ্ছে পৃথিবীর বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশ

Photo: TonyV3112 / Shutterstock.com

Photo: TonyV3112 / Shutterstock.com

১৪০ কোটিরও বেশি জনসংখ্যা থাকায়, চীনকে বলা হয় পৃথিবীর বৃহত্তম জনগোষ্ঠীর দেশ।

৩. চীনের এমন কিছু স্থান রয়েছে যেখানে সূর্যোদয় হতে সকাল ১০ টা ও বাজতে পারে

beautifulnow.is

beautifulnow.is

বিশাল এবং বিস্তৃত দেশ হওয়া সত্ত্বেও, চীনে একটি মাত্র টাইম জোন রয়েছে যার নাম - স্ট্যান্ডার্ড চাইনিজ টাইম। এর অর্থ হচ্ছে যে, চীনের পশ্চিমে সূর্যোদয় হতে সকাল ১০ তাও বাজতে পারে! যখন চীনের রাজধানীতে সকাল ৬ টা বাজে, চীনের পশ্চিমে অবস্থিত কাশগরে তখন ১০ টা বাজে।

৪. প্রবীণ অধিকার আইন

Photo: Shutterstock

Photo: Shutterstock

যদি আপনার বাবা মার বয়স ৬০ এর বেশি হয়, আপনি তাদের সাথে নিয়মিত সাক্ষাৎ করতে পারবেন না! এটা বেআইনি বলে গণ্য হয় চীনে। এটা সত্যি একটু অদ্ভুত যেখানে অন্যান্য দেশে বয়স্ক বাবা মাকে সন্তানরা ভুলে যায় এবং তাদের বৃদ্ধাশ্রমে পাঠায় সেখানে চীনে বাবা মার সাথে নিয়মিত সাক্ষাৎ করা নিষেধ যদি তাদের বয়স ৬০ এর বেশি হয়।

৫. পৃথিবীর বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ

The Financial Express

The Financial Express

২০১৪ সালে বিশেষজ্ঞরা দাবি করেন যে পৃথিবীর সবচাইতে বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ চীন। চায়না পৃথিবীর বৃহত্তম রপ্তানিকারক দেশ এবং বৃহত্তম অর্থনৈতিক হিসেবে বিবেচিত যখন ক্রয় শক্তির ক্ষমতার কথা বিবেচনা করা হয়। যদিও নামিক জিডিপির দিক দিয়ে চীন পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি।

৬. চীনের নতুন বছর উদযাপন ১৫ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হয়

Photo: testing / Shutterstock.com

Photo: testing / Shutterstock.com

প্রথমত চীন এবং ইউরোপ ও আমেরিকার নতুন বছর উদযাপন একই তারিখে হয় না। চীনে বছরের প্রথম দিনটি সাধারণত নতুন চন্দ্র উদয়ের ওপর নির্ভর করে যা ঘটে থাকে ২১ জানুয়ারি এবং ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে, এজন্যই এক বছরের সাথে অন্য বছরের নববর্ষ উদযাপন চীনে মিলে না।

৭. পৃথিবীর বৃহত্তম আর্মি বাহিনী রয়েছে চীনে

Photo: Hung Chung Chih / Shutterstock.com

Photo: Hung Chung Chih / Shutterstock.com

আপনার কি মনে হয় যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীর বৃহত্তম আর্মি বাহিনীর দেশ? উত্তর- না। পরাক্রমশালী চীনের ২১,৮৩,০০০ সুন্দর বিশাল আর্মি বাহিনী রয়েছে যারা আদেশ এর সাথে সাথে যে কোন দেশের উপর আক্রমণ করার কথা দ্বিতীয় বার ভাববে না। এ সংখ্যাটি যুক্তরাষ্ট্রের সক্রিয় সৈন্য সংখ্যার চেয়ে ১০ লাখ বেশি।

৮. ২০২০ সাল নাগাদ ধারণা করা হচ্ছে নারীদের চেয়ে চাইনিজ পুরুষদের সংখ্যা ৩০-৪০ মিলিয়ন বেশি হবে

DramaPanda

DramaPanda

বিগত কয়েক দশক যাবৎ এক সন্তান নীতির কারণে চীন এই বড় সমস্যাটিতে ভুগছে। একক সন্তান নীতির কারণে বেশিরভাগ পিতা-মাতাই মেয়ে শিশু গ্রহণ না করে ছেলে শিশু গ্রহণ করেছেন।আহা! বেচারাদের বউ পেতে অগ্নি পরীক্ষা দিতে হবে!

৯. চীনের রেল লাইন গুলো এত দীর্ঘ এবং বিস্তৃত যে তারা পুরো বিশ্বকে কমপক্ষে দু'বার পেঁচানো সম্ভব

Photo: Shutterstock

Photo: Shutterstock

চীন আয়তনের দিক দিয়ে পৃথিবীর ৪র্থ বৃহত্তম দেশ, কিন্তু পুরো দেশজুড়ে রেলপথগুলো অনেক বিস্তৃত। প্রকৃতপক্ষে, চীনের রেল পথ গুলো এতটাই বিস্তৃত যে পুরো পৃথিবী কে একবার না দুইবার পেঁচানো সম্ভব।

১০. প্রতি পাঁচ দিনে একটি গগনচুম্বী অট্টালিকা তৈরি হয়

Photo: Shutterstock

Photo: Shutterstock

পৃথিবীতে চীনের মত অন্য কোন দেশ এত দ্রুত গতিতে বেড়ে উঠছে না। অবকাঠামোগত উন্নয়ন এত দ্রুত হচ্ছে যে, চীনের কোথাও না কোথাও প্রতি ৫ দিনে অন্তত একটি গগনচুম্বী অট্টালিকা নির্মিত হচ্ছে। ৩৬৫ দিন বা ১ বছরে চীনে কমপক্ষে ৭৩ টা আকাশচুম্বী দালান গড়ে ওঠে।

১১. পৃথিবীর প্রতি ৫ জন মানুষের মধ্যে ১ জন চাইনিজ

Photo: Shutterstock

Photo: Shutterstock

যদি আপনি মনে করেন চাইনিজ ভাষা শেখা একদমই নিষ্প্রয়োজন, তাহলে একবার ভবিষ্যতের কথা ভাবুন! বর্তমানে পৃথিবীতে মোট জনগোষ্ঠীর ২০% চাইনিজ। শক্তিশালী অর্থনৈতিক তাদের হাতে, সুতরাং আজ কিংবা কাল ইংরেজি ভাষার মতোই গুরুত্ব দিয়ে চাইনিজ ভাষা শিখতে হবে পৃথিবীর অন্যান্য ভাষাভাষীদের।

১২. ওয়েং, লি এবং ঝান হচ্ছে চীনের সবচাইতে বেশি ব্যবহৃত উপনাম

CNN.com

CNN.com

চীনের প্রতি ৫ জন লোকের একজনের নাম এর সাথে আপনি ওয়েং, লি এবং ঝান উপ নাম গুলো দেখতে পাবেন যেগুলো মূলত চীনে প্রথম নাম হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

৫ টি মজাদার তথ্য-

১. চীনের ৩৫ মিলিয়ন লোকজন এখনো গুহায় বসবাস করে।

Ripley's Believe It or Not!

Ripley's Believe It or Not!

২. চায়নার মূল ভূখণ্ড এবং ম্যাকাও এর সাথে একটি সংযোগ সেতু রয়েছে যেখানে ডান হাতে চালিত গাড়িগুলোকে বাঁ হাতে অন্যদিকে বা হাতে চালিত গাড়ি গুলোকে ডান হাতে চালাতে হয়।

ABC

ABC

৩. খাবার সময় থুথু ফেলা, হাই তোলা, ঢেকুর তোলা চীন দেশে একদম স্বাভাবিক আচরণ।

The Mirror

The Mirror

৪. আইসক্রিম ইতালিতে আবিষ্কৃত হয়নি বরং আজ থেকে ৪,০০০ বছর আগে চীনে আবিষ্কৃত হয়।

Taste

Taste

৫. অসংখ্য চাইনিজ সম্রাট নিজেদেরকে ড্রাগন এর বংশধর বলে দাবি করেন।

Medium

Medium

অন্যান্য-

১. চীনের জাতীয় খেলা হিসেবে টেবিল টেনিস প্রচলিত রয়েছে

China Daily

China Daily

২. পৃথিবীর অর্ধেক শুকর বসবাস করে চীনে

rediff.com

rediff.com

 

৩. কাগজের মুদ্রা আবিষ্কৃত হয়েছিল এখানেই

The Chinese Quest

The Chinese Quest

৪. চীনের জাতীয় পশু বিশাল আকৃতির পান্ডা

Sciencing

Sciencing

৫. ১০০ মিলিয়নেরও অধিক জনগোষ্ঠী প্রতিদিন ১ ডলারেরও কম খরচ করে খাদ্য গ্রহণ করে

yelp.com

yelp.com

৬. প্রতিবছর ৪৫ বিলিয়নেরও বেশি চপস্টিক ব্যবহার করা হয়

MRCTV

MRCTV

৭. চীনের ভাষা পৃথিবীর সবচাইতে প্রাচীন ভাষা যা আজও লিখিত রূপে ব্যবহৃত হচ্ছে

twitter.com

twitter.com

৮. প্রতিবছর রুচিকর খাবার হিসেবে চীনে ৪০ লাখ বিড়াল ভক্ষণ করা হয়ে থাকে

YouTube

YouTube

৯. '৮' সংখ্যাটিকে চীনে শুভ সংখ্যা হিসেবে বিবেচনা করা হয়   

thechinesequest.com

thechinesequest.com

১০. ১/৩ ভাগ জনগোষ্ঠী মান্দারিন ভাষায় কথা বলতে পারে না যা দেশের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে স্বীকৃত

BBC

BBC

১১. লাল রঙকে সুখের প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয় এজন্যই বেশিরভাগ উৎসবে চীনে লাল রং এর অধিক ব্যবহার হয়ে থাকে

Reader's Digest

Reader's Digest

১২. পৃথিবীর সবচাইতে বেশি টমেটো উৎপাদন হয় চীনে

Le Monde diplomatique - English edition

Le Monde diplomatique - English edition

সুপ্রিয় বন্ধুরা, চীন সম্পর্কে কোন তথ্য গুলো আপনার মনে ধরেছে, কোন বক্সে জানানোর অনুরোধ রইল। সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ....



জনপ্রিয়