এই ৮টি জিনিস সম্পর্কে আমরা শুনেছি কিন্তু কখনো দেখি নি!   এই ৮টি জিনিস সম্পর্কে আমরা শুনেছি কিন্তু কখনো দেখি নি!

এই ৮টি জিনিস সম্পর্কে আমরা শুনেছি কিন্তু কখনো দেখি নি!

এমন কতকগুলো শব্দ রয়েছে, যেগুলো আমরা প্রতিনিয়ত খবরে শুনছি বা নিজেরাও ব্যবহার করছি, কিন্তু সেগুলো দৃষ্টিগোচর নয়। আমরা কেবলমাত্র সেগুলো কেমন হতে পারে তা আইডিয়া করতে পারি। 

তাই আজকে আমরা কিছু রহস্যজনক জিনিসের স্বচ্ছতা আপনাদের সামনে তুলে ধরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। চলুন তাহলে পরিচিত কিন্তু অদেখা কিছু জিনিস একনজর দেখে আসি!  

 

১. কালো বাক্স

© Jmb/wikipedia   © Lentokonefani/wikipedia

© Jmb/wikipedia © Lentokonefani/wikipedia

বিপরীতভাবে, আজকাল একটি কালো বাক্স সাধারণত একটা কমলা বলয়ের হয়ে থাকে। এটির নাম কেন ব্ল্যাক বক্স হয়েছে তার কয়েকটি ভার্সন রয়েছেঃ

- প্রথম ফ্লাইট রেকর্ডার কালো এবং আয়তক্ষেত্রাকার ছিল।

- তাদের গূঢ় শক্তির কারণে: তাদের সামগ্রী প্রায় প্রত্যেকের কাছে গোপন থাকে।  

- একটা বিমান বিধ্বস্তের পর কালো কালি ঢেকে প্রথম রেকর্ডার ব্যবহৃত হতো।

 

২. ডিএনএ

© qimono/pixabay   © pedsovet/Valery Chernukhin

© qimono/pixabay © pedsovet/Valery Chernukhin

প্রত্যেকেরই ধারণা আছে যে  ডিএনএ পেঁচালো আকৃতির মতো দেখতে। কিন্তু শুধুমাত্র কয়েকজন লোকই জানে যে অণুর দৈর্ঘ্যের কারণে এটি খালি চোখে দেখা যায়। এটা করার জন্য আপনাকে একটি নির্দিষ্ট সমাধান প্রস্তুত করতে হবে। ডিএনএ সুতার মতো হতে পারে যা ছবির মতো শুকিয়ে যাওয়া একটি তন্তুযুক্ত পদার্থের মতো হতে পারে।  

 

৩. বৃহদাকার হাতি

© Dantheman9758/wikimedia   © Jayu/wikipedia

© Dantheman9758/wikimedia © Jayu/wikipedia

এই প্রাণীগুলো বিশাল দাঁত এবং শুঁড়সহ বিপুল পশমযুক্ত ছিল। এই বিশাল আকৃতির প্রাণীগুলো ম্যামথের আগে আমাদের গ্রহে বাস করতো। প্রকৃতপক্ষে, এগুলো দেখতে অনেকটা ম্যামথগুলোর ্মতো এবং সাধারণ মানুষ এই দুই স্তন্যপায়ীদের নিয়ে বিভ্রান্ত হতে পারে। 

 

৪. জিব্রালটার

© Volina/depositphotos   © Steve/wikimedia

© Volina/depositphotos © Steve/wikimedia

জিব্রাল্টার স্পেনের সাথে সীমান্ত ভাগ করে নেওয়ার আইবেরিয়ান উপদ্বীপের দক্ষিণে সমুদ্রের উপর অবস্থিত একটা ব্রিটিশ এলাকা।  এটা বেশ আকর্ষণীয় জায়গাঃ এটা শুধুমাত্র ২.৬ বর্গ মাইল এলাকাজুড়ে বিস্তৃত, যেখানে আপনি ইংরেজি বলতে পারেন, পাউন্ডে অর্থ প্রদান করতে পারেন এবং জিব্রাল্টারের স্ট্রেটের বাইরে আফ্রিকা দেখতে পারেন। জিব্রাল্টার ইউরোপের একমাত্র স্থান যেখানে বানরেরা বনে বাস করে। 

 

৫. বিটকয়েন

© BTC Keychain

© BTC Keychain

আরো সুনির্দিষ্ট হয়ে নিই, বিটকয়েন হলো এমন এক ধরনের মুদ্রা যা শুনে মনে হবে কয়েন, কিন্তু বাস্তবে এর কোন অস্তিস্ত্ব নেই। এটি ইলেক্ট্রোনিক্যালি আপনার ফোন, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ বা যেকোনো স্টোরেজ মিডিয়াতে সেভ থাকে, অর্থাৎ এটা একটা ডিজিটাল মুদ্রা। 

বিটকয়েন লেনদেনের জন্য কোন ধরনের অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান, নিয়ন্ত্রনকারী প্রতিষ্ঠান বা নিকাশ ঘরের প্রয়োজন হয় না। বিটকয়েনের সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় অনলাইনে একটি উন্মুক্ত সোর্স সফটওয়্যারের মাধ্যমে। বিটকয়েন মাইনারের মাধ্যমে যে কেউ বিটকয়েন উৎপন্ন করতে পারে। এটা দিয়ে কোন পণ্য কেনা হলে বিক্রেতার অ্যাকাউন্ট পাঠানো হয় এবং বিক্রেতা পরবর্তীতে বিটকয়েন সঙ্গে পুনরায় পণ্য কিনতে পারে, অন্যদিকে সমান পরিমাণ বিটকয়েন ক্রেতার লেজার থেকে কমিয়ে দেওয়া হয়। প্রতি চার বছর পর বিটকয়েনের মোট সংখ্যা পুনঃনির্ধারণ করা হয় যাতে করে বাস্তব মুদ্রা সামঞ্জস্য রাখা যায়।

 

৬. হাতির লেজ

© CallMeKudu/reddit

© CallMeKudu/reddit

একটা হাতির লেজ উল্লেখ করলে, অনেকের হয়তো মনে হতে পারে এটা অনেক পাতলা এবং অবিশ্বাস্য। তবে হাতির লেজ যেমনটা দেখা গেছে তা হলো- এটা অনেক ক্ষুদ্র শক্ত লোম দিয়ে আবৃত থাকে যা একটা ব্রাশের মতো দেখতে। আফ্রিকান ব্রেসলেট তৈরি করতে এই লোম ব্যবহার করা হয়। 

 

৭. লার্জ হ্যাড্রন কোলাইডার 

© alpinethread/flickr   © Maximilien Brice (CERN)/wikimedia

© alpinethread/flickr © Maximilien Brice (CERN)/wikimedia

বিশ্বের বৃহত্তম গবেষণামূলক কেন্দ্রটি সুইজারল্যান্ডের জেনেভা শহরের কাছে এবং ফ্রান্স-সুইজারল্যান্ড সীমান্তে অবস্থিত। লার্জ হ্যাড্রন কলাইডার বা বৃহৎ হ্যাড্রন সংঘর্ষক পৃথিবীর বৃহত্তম ও সবচেয়ে শক্তিশালী কণা ত্বরক এবং মানবনির্মিত বৃহত্তম যন্ত্র। এটা প্রায় ১৭৫ মিটার নীচে ২৭ কিলোমিটার ব্যাসের একটি সুড়ঙ্গের মধ্যে স্থাপন করা হয়েছে। তাই এটা উপর থেকে দেখা যায় না। 

 

৮. লাইসেন্স অ্যাডোব পণ্য

© pro79file/pikabu

© pro79file/pikabu

যদিও এটা কেউই দেখতে পায় না। (আমরা কোনকিছু পরোক্ষভাবে প্রকাশ করছি না)।  

 

আমাদের আজকের আয়োজন আপনাদের কেমন লেগেছে? কোন বিষয়টি দেখে আপনি সবচেয়ে বেশী বিস্মিত হয়েছেন? কমেন্টে আমাদের শেয়ার করে জানান। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। 



জনপ্রিয়