ঘুম না আসলে যেসব জিনিস আপনি ট্রাই করে দেখবেন! ঘুম না আসলে যেসব জিনিস আপনি ট্রাই করে দেখবেন!

ঘুম না আসলে যেসব জিনিস আপনি ট্রাই করে দেখবেন!

১৯৬৪ সালে রান্ডি গার্ডনার ১১ দিন ২৫ মিনিট না ঘুমিয়ে জেগে থেকে বিশ্ব রেকর্ড করেন। তিনি দীর্ঘ সময় ঘুম ছাড়া থাকা মানুষের রেকর্ড গড়েন। এটি সত্যই একটা বিরল ঘটনা, কিন্তু আমাদের মধ্যে অনেকেই জীবনের বিভিন্ন সময়ে অনিদ্রায় ভোগে থাকেন। ভালো ঘুম না হলে সেটা শরীর ও মনকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করতে পারে এবং এই অবস্থা কিভাবে মোকাবেলা করতে হয় তা জানা গুরুত্বপূর্ণ।

আজকে আমরা অনিদ্রা মোকাবেলা করার এবং ঘুমের মান বৃদ্ধি করার জন্য কিছু কার্যকরি টিপস আপনাদের সামনে উপস্থাপন করছি।

 

সঠিকভাবে ঘুমানোর পোজ বাছাই করুন

© Depositphotos.com

© Depositphotos.com

আপনি যদি ঘুম না হওয়ার সমস্যার মুখোমুখি হন, তাহলে ঘুমানোর সঠিক পোজ বাছাই করুনঃ

- পিঠের উপর ভর দিয়ে ঘুমানো অর্থাৎ চিৎ হয়ে ঘুমানো অনিদ্রা মোকাবেলা করার দেরা উপায়গুলোর মধ্যে একটি। কারণ এটি আপনার মাথা, ঘাড় এবং মেরুদণ্ডকে নিরপেক্ষ অবস্থানে বিশ্রাম দেয়। যদিও ঘুমানোর এই অবস্থানটি জনপ্রিয় নয়, তবে বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত করেছেন যে এটি ভালো ঘুমের জন্য সর্বোত্তম পছন্দগুলোর মধ্যে একটি।

- পাশ ফিরে ঘুমানোর অবস্থানের ফলে শ্বাস প্রশ্বাস সীমিত হতে পারে এবং সকালে উঠে আপনি জয়েন্ট বা মেরুদণ্ডে ব্যথা অনুভব করতে পারেন। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে ৪১% লোকই হাঁটু বাঁকিয়ে পাশ ফিরে ঘুমানোটা পছন্দ করে। যদিও এই অবস্থানটি গর্ভবতী মহিলাদের জন্য সুপারিশ করা হয়, কিন্তু অন্যদের পক্ষে ঘুমানোর এই অবস্থান ভালো নাও হতে পারে।

- ভালো এবং শান্তিতে ঘুমানোর জন্য সবচেয়ে খারাপ অবস্থান সম্ভবত পেটের উপর ভর দিয়ে ঘুমানো অর্থাৎ, উপুড় হয়ে ঘুমানো। পেটের উপর থাকা অবস্থায় আপনার মেরুদণ্ডটি নিরপেক্ষ অবস্থানে রাখা কঠিন, যা আপনার মেরুদণ্ড এবং ঘাড়কে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করতে পারে।

 

আপনার পুরানো ম্যাট্রেস ফেলে দিন

© Depositphotos.com

© Depositphotos.com

একটি খারাপ ম্যাট্রেসের কারণেও আপনার ঘুমে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, আপনি যদি আপনার ম্যাট্রেস ৭ বছরেরও বেশী বছর ধরে ব্যবহার করেন, তাহলে ঘুমের সময় সেটি আপনার শরীরকে সঠিকভাবে সাপোর্ট দিচ্ছে কিনা তা পরীক্ষা করার সময় এসেছে।

বাজারে প্রচুর ম্যাট্রেস রয়েছে এবং আপনার শরীরের আকৃতি, আপনার স্বাস্থ্য সমস্যা এবং আপনার বাজেটের উপর নির্ভর করে আপনি সেরা বিকল্পটি বাছাই করতে পারেন।

 

নিজে নিজে ‘স্লিপি ডাস্ট’ রেসিপি তৈরি করার চেষ্টা করুন

aveda

aveda

আপনি যদি ঘুমাতে না পারেন বা রাতের মাঝখানে হঠাৎ জেগে উঠেন, তবে এই রেসিপিটি কাজে লাগানোর চেষ্টা করতে পারেন। এই রেসিপির জন্য আপনার কিছু ক্যান সুগার এবং লবণ লাগবে। চিনির মধ্যে শিথিল করার প্রভাব রয়েছে এবং লবণ অ্যাড্রেনালিনের মাত্রা পরিচালিত করতে সাহায্য করে। চিনি এবং লবণের মিশ্রণ আপনার জিহ্বার নিচে রাখুন এবং এটি আপনার ঘুমের সমস্যা সমাধানে সাহায্য করতে পারে।

 

সন্ধ্যায় লেখালেখি করা অনুশীলন করুন

mayyogawellness

mayyogawellness

বিছানায় ঘুমাতে যাবার আগে, দিনে আপনার সাথে যে সমস্ত ইতিবাচক ঘটনা ঘটেছে সেগুলি লেখার জন্য নিজেকে ১৫ মিনিট সময় দিন। এই কৌশলটি আপনাকে ভাল জিনিসগুলিতে মনোনিবেশ করতে, আপনার চাপ এবং উদ্বেগ কমাতে এবং আপনার ঘুমের সময় এবং গুণমানকে উন্নত করতে সহায়তা করবে।

 

দুপুরের হালকা ঘুমটা লিমিটের মধ্যে রাখুন

© toychristopher / Imgur

© toychristopher / Imgur

দুপুরের হালকা ঘুম রাতের ঘুম নষ্ট করতে পারে। কিন্তু আপনি যদি দুপুরে হালকা ঘুম না করে থাকতে না পারেন তাহলে হালকা ঘুমিয়ে নিতে পারেন। তবে সেটা লিমিটের মধ্যে রাখুন। আপনি যদি রাতের ঘুমের রিস্ক নিতে না চান তাহলে সন্ধ্যা ৬টার আগে হালকা ঘুমিয়ে নিবেন এবং সেটা যেনো ২ ঘন্টার বেশী না হয়।

 

ঘড়িটি চোখের আড়ালে রাখুন

the_mrs_b_1015

the_mrs_b_1015

আপনি যদি ঘড়ির কাটার দিকে তাকিয়ে থাকেন, তাহলে এটি কেবল আপনার উত্তেজনা এবং উদ্বেগ বাড়িয়ে দেবে এবং আপনার ঘুমে বাধা সৃষ্টি করবে। আপনার ঘড়ি এবং অ্যালার্মকে এমন জায়গায় রাখুন যেখানে আপনি সেগুলো দেখতে না পারেন এবং আপনার শোবার ঘরে কোনও বিরক্তিকর শব্দ বা লাইট অফ করে শান্ত পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করুন।

 

যোগ ব্যায়াম করার চেষ্টা করুন

jogaportal

jogaportal

- আপনার মেরুদণ্ড সোজা করে আরামে বসুন। আপনার বৃদ্ধাঙ্গুল আপনার ডান নাসারন্ধ্রে এবং আপনার অনামিকা বাম নাসারন্ধ্রে রাখুন।

- আপনার ডান নাসারন্ধ্র বন্ধ করুন এবং বাম নাসারন্ধ্র দিয়ে সম্পূর্ণরূপে শ্বাস গ্রহণ করুন। ধীরে ধীরে ধরে রাখুন এবং পরে ডান নাসারন্ধ্র দিয়ে শ্বাস ফেলুন।

- পরে, বাম নাসারন্ধ্র দিয়ে শ্বাস নিন, শ্বাস ধরে রাখুন এবং বাম নাসারন্ধ্র দিয়ে শ্বাস ত্যাগ করুন। এভাবে বেশ কয়েকবার করুন।

 

অনিদ্রার বিরুদ্ধে যে খাবারগুলো লড়াই করে সেগুলো খান

carve.a.niche

carve.a.niche

আপনার শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের স্তর কম হলে ঘুম নাও হতে পারে। এই কারণে ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ শাকসবজি, বাদাম, অ্যাভাকাডো এবং স্নায়ুতন্ত্র ও পেশী শিথিল করা খাবারগুলো খান।

 

ঘুমিয়ে পড়ার পরিবর্তে জেগে থাকার চেষ্টা করুন।

© Bridget Jones's Baby / Miramax

© Bridget Jones's Baby / Miramax

এটা যদিও শুনতে অদ্ভুত মনে হয়, কিন্তু আপনি জেগে থাকার চেষ্টা করলে খুব সহজেই ঘুমিয়ে যেতে পারেন। এই কৌশলটি ঘুমানোর চেষ্টা করার সময় উদ্বেগ বোধ করার পরিবর্তে জাগ্রত থাকার উপর মনোযোগ নিবদ্ধ করে। তাই পরবর্তী সময়ে আপনার ঘুমের সমস্যা থাকলে, বই পড়ুন বা কিছু সুন্দর গান ছাড়ুন এবং পড়ার বা শোনার প্রক্রিয়াতে ফোকাস করুন এবং আপনি শীঘ্রই লক্ষ্য করতে পারবেন আপনি তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়েছেন।  



জনপ্রিয়