অনলাইনে আপনি যা করছেন তা সম্ভবত অবৈধ!    অনলাইনে আপনি যা করছেন তা সম্ভবত অবৈধ!

অনলাইনে আপনি যা করছেন তা সম্ভবত অবৈধ!

আপনি সম্প্রতি অনলাইনে কিছু অবৈধ কাজ করেছেন? নাহ? আপনি নিশ্চিত তো? ইন্টারনেট আইন বিভ্রান্তিকর এবং ক্রমাগত পরিবর্তিত হয়। অনলাইনে কোনটা বৈধ, কোনটা অবৈধ তা নিশ্চিত রাখা কঠিন। যদিও এটা একটা কমন সেন্সের ব্যাপার, তারপরেও অনেকে সমস্যায় নিজেকে জড়িয়ে ফেলে।

আজকে আমরা অনলাইনে আপনি যে কাজগুলো প্রায়শই করছেন, কিন্তু সেগুলো সম্ভবত অবৈধ সেইসব কাজের তালিকা সংগ্রহ করেছি।

 

১. টরেন্টিং

Source: https://www.express.co.uk/life-style/science-technology/917847/The-Pirate-Bay-Torrent-Warning-Download-UK

Source: https://www.express.co.uk/life-style/science-technology/917847/The-Pirate-Bay-Torrent-Warning-Download-UK

টরেন্টিংয়ের কাজ অবৈধ নয়, তবে আপনি যদি কপিরাইটযুক্ত কনটেন্টগুলো টরেন্টিং করেন তবে হ্যাঁ, এটি অবৈধ। হাজার হাজার টরেন্টিং এবং কপিরাইটযুক্ত কনটেন্ট চুরির জন্য মামলা হয়েছে।

   

২. সাইবার বুলিং

Source: https://www.rasmussen.edu/degrees/justice-studies/blog/is-cyberbullying-illegal/

Source: https://www.rasmussen.edu/degrees/justice-studies/blog/is-cyberbullying-illegal/

সাইবার বুলিং হচ্ছে অনলাইনে কোনো শিশুকে প্রলুব্ধ বা হেয় প্রতিপন্ন করা, ভয় দেখানো এবং মানসিক নির্যাতন করা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, প্রতিটি রাজ্যে সাইবার বুলিং প্রতিরোধ করার জন্য নিজস্ব ধরনের আইন রয়েছে। শাস্তিগুলোর মধ্যে রয়েছে স্কুল থেকে বহিষ্কার, হয়রানি জন্য ফৌজদারি অভিযোগ বা ক্ষতির জন্য মামলা করা যেতে পারে।  

 

৩. বেসরকারী টিভি স্ট্রিমিং সেবা  

 Source: https://www.businessinsider.com/are-streaming-sites-legal-2014-4

Source: https://www.businessinsider.com/are-streaming-sites-legal-2014-4

লাখ লাখ মানুষ অবৈধ অনলাইন স্ট্রিমিং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অবৈধভাবে টেলিভিশন শো এবং মুভি দেখে।

 

৪. ডিপ ওয়েব ব্যবহার করা

Source: https://lifehacker.com/things-you-can-do-on-the-dark-web-that-arent-illegal-1819790298

Source: https://lifehacker.com/things-you-can-do-on-the-dark-web-that-arent-illegal-1819790298

একটা সময় ছিল, যখন হাতে গোনা মাত্র কয়েকজন ডিপ ওয়েব সম্পর্কে জানতো। বর্তমানে প্রায় অনেকেই এই ওয়েব সম্পর্কে জানে। ডিপ ওয়েব ইন্টারনেটের এক অন্ধকার দুনিয়া। টেকনিক্যালি, এই ওয়েব সাইটে প্রবেশ করা অবৈধ নয় এবং এমনকি কয়েকজন সাংবাদিক এমন দেশের সাথে যোগাযোগ করার জন্য এটি ব্যবহার করেছেন, যেদেশে কঠিন ইন্টারনেট আইন রয়েছে। কিন্তু আপনি যদি ভুল সাইটে পড়ে যান তাহলে আপনি অনেক ঝামেলায় পড়তে পারেন।

 

৫. ফেক নাম ব্যবহার

Source: https://www.npr.org/sections/thetwo-way/2011/11/15/142356399/is-lying-on-the-internet-illegal

Source: https://www.npr.org/sections/thetwo-way/2011/11/15/142356399/is-lying-on-the-internet-illegal

যদিও এটা নির্বোধের মতো শুনায়, কিন্তু অস্পষ্টভাবে কথিত কম্পিউটার ফৌজ এবং অপব্যবহার আইন অনুসারে অনলাইনে আপনার ভুয়া নাম ব্যবহার করাটা অবৈধ।

 

৬. ফেক আইপি

Source: https://www.complex.com/pop-culture/2013/09/illegal-internet-things/

Source: https://www.complex.com/pop-culture/2013/09/illegal-internet-things/

আপনি আপনার আইপি লুকাতে পারেন, কিন্তু এটি কম্পিউটার ফ্রড এবং অপব্যবহার আইনের অধীনে অবৈধ। এতে অবশ্য আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই।  

 

৭. পিগিব্যাকিং

Source: https://www.legalmatch.com/law-library/article/wi-fi-connection-laws.html

Source: https://www.legalmatch.com/law-library/article/wi-fi-connection-laws.html

আপনি যদি আপনার প্রতিবেশীদের অসুরক্ষিত ওয়াইফাই ইন্টারনেট তাদের অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করেন তবে এটাকে পিগিব্যাকিং বলা হয় এবং এটি অবৈধ।

 

৮. উপার্জন ঘোষণা ছাড়া ইবেতে বিক্রি

source:unknown

source:unknown

 

৯. ট্রলিং

Source: https://blogs.findlaw.com/law_and_life/2014/10/are-you-an-internet-troll-legal-consequences-to-consider.html

Source: https://blogs.findlaw.com/law_and_life/2014/10/are-you-an-internet-troll-legal-consequences-to-consider.html

সাম্প্রতিক কালে ইন্টারনেট জুড়ে ট্রল করতে দেখা যায় এবং সম্ভবত মানুষেরা অন্য কাউকে নিয়ে ট্রল করে আনন্দ উপভোগ করে। যাইহোক, ট্রল যদি হয়রানি, উক্ত্যক্ত বা বিপর্যয় ডেকে নিয়ে আসে তাহলে সেটা অবৈধ।

 

১০. অ্যাড ব্লকার

Source: https://www.theregister.co.uk/2016/08/05/adblock_plus_chinese_ban/

Source: https://www.theregister.co.uk/2016/08/05/adblock_plus_chinese_ban/

অনেক দেশেই অ্যাড ব্লক করা অবৈধ না। অন্যদিকে, চীন তাদের ব্লগে বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করার বিরুদ্ধে বেরিয়ে এসেছে।

 

১১. জিফ এবং মেমে

Source: https://www.forbes.com/sites/propointgraphics/2016/04/30/animated-gifs-and-fair-use-what-is-and-isnt-legal-according-to-copyright-law/

Source: https://www.forbes.com/sites/propointgraphics/2016/04/30/animated-gifs-and-fair-use-what-is-and-isnt-legal-according-to-copyright-law/

কিছু জিআইএফ এবং মেমে পাবলিক ডোমেইন বা সৃষ্টিশীল কমন্স ইমেজ ব্যবহার করে, অনেকেই আবার কপিরাইটযুক্ত কনটেন্ট ব্যবহার করে যা টেকনিক্যালি অবৈধ।

 

১২. ‘সেভ ইমেজ এস’ ক্লিক করা

source: unknown

source: unknown

অবশ্যই কোন ছবি সংরক্ষণ করা অবৈধ নয়, তবে আপনি যদি কপিরাইটযুক্ত ছবি নিয়ে থাকেন তাহলে আপনি অবিশ্বস্ত হয়ে যাচ্ছেন। আপনার কাছে কেহন ছড়িয়ে দেওয়ার ক্ষমতা আছে এবং আপনি যে ছবির সাথে যা করেন তার উপর নির্ভর করে আপনি সমস্যায় পড়বেন কি পড়বেন না।

 

১৩. পাসওয়ার্ড শেয়ার করা

Source: https://www.forbes.com/sites/ciocentral/2016/08/23/why-sharing-passwords-is-now-illegal-and-what-this-means-for-employers-and-digital-businesses/#1caf7cf13a46

Source: https://www.forbes.com/sites/ciocentral/2016/08/23/why-sharing-passwords-is-now-illegal-and-what-this-means-for-employers-and-digital-businesses/#1caf7cf13a46

পাসওয়ার্ড শেয়ার করা নিরাপত্তায় ঝুঁকি থাকে এবং অবৈধ।

 

১৪. প্যারডি অ্যাকাউন্ট

source: unknown

source: unknown

এটা সবসময় অবৈধ না হলেও, এটার জরিমানার বিধান রয়েছে এবং কিছু টুইটাই ব্যবহারকারীরা এটির বিরুদ্ধে যাচ্ছে। এটি বিশেষ করে তাদের জন্য যারা আসলেই ভুয়া বা প্যারডি হিসাবে তাদের অ্যাকাউন্টকে লেবেলযুক্ত করে না।

 

১৫. আন্ডার এইজ একাউন্ট

Source: https://www.thoughtco.com/does-facebook-have-age-restrictions-3367671

Source: https://www.thoughtco.com/does-facebook-have-age-restrictions-3367671

চিল্ড্রেনস অনলাইন প্রাইভেসি প্রোটেকশন অ্যাক্ট অনুসারে, ১৩ বছরের কম বয়সী শিশুদের তাদের পিতামাতার অনুমতি ছাড়া অনলাইন অ্যাকাউন্ট থাকতে পারবে না।

 

১৬. পেওয়াল বাইপাস করা

Source: https://motherboard.vice.com/en_us/article/nz7w7k/a-canadian-news-site-just-won-11470-because-someone-bypassed-its-paywall

Source: https://motherboard.vice.com/en_us/article/nz7w7k/a-canadian-news-site-just-won-11470-because-someone-bypassed-its-paywall

প্রত্যেকেই ফ্রিতে খবর এবং সাংবাদিকতা চায়, দিনশেষে সংবাদপত্র এবং নিউজ সাইটগুলো ব্যবসায় পরিণত হয় যা দিয়ে অর্থ উপার্জিত হয়। আপনি যদি তাদের পেওয়াল বাইপাস করেন, তাহলে আপনি কার্যত চুরি করছেন।

 

১৭. ইউটিউবে কপিরাইটযুক্ত বিষয়বস্তু আপলোড করা

Source: https://thenextweb.com/apps/2014/12/08/youtube-now-warns-exactly-will-happen-upload-copyrighted-music/

Source: https://thenextweb.com/apps/2014/12/08/youtube-now-warns-exactly-will-happen-upload-copyrighted-music/

কপিরাইটযুক্ত কনটেন্ট ইউটিউবে আপলোড করলে সেই ভিডিও সরিয়ে দেওয়া যেতে পারে এবং কপিরাইট হোল্ডার যদি চায় তাহলে আপনার বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবে। আপনার যদি মনিটাইজ এবং ক্লেইম ফেয়ার ব্যবহার না করেন, তাহলে নিজেকে রক্ষা করা কঠিন হতে পারে।

 

১৮. সফটওয়্যার কপি করা

Source: unknown

Source: unknown

এটা বাদবাকি তালিকা থেকে সম্ভবত স্পষ্টত। এটার অবৈধতা অধিকারের উপর নির্ভর করে। কারণ কিছু কিছু সফটওয়্যার বন্টন করতে অনুমিত প্রদান করে থাকে।

 

১৯. চীনায় সমালোচনা করা

source; unknown

source; unknown

চীনে, বাস্তব জীবনে বা অনলাইনে সরকারের সমালোচনা করতে পারে না। যদি করে থাকে তাহলে তাকে কারাদন্ড দেওয়া হয়।

 

২০. খুনি ভাড়া করা

source: unknown

source: unknown

আপনি সম্ভবত এটা কখন করতে যান নি, কিন্তু আমাদের মনে হয়েছে আপনাকে স্মরণ করিয়ে দেওয়া উচিৎ। আপনি অনলাইন বলেন বা বাস্তব জীবনে বলেন, একজন খুনি ভাড়া করা স্পষ্টভাবে অবৈধ।

 

আমাদের আজকের আয়োজন আপনাদের কেমন লেগেছে? কমেন্টে শেয়ার করে জানান। 

 



জনপ্রিয়