মি. বিনের এই আকর্ষণীয় তথ্যগুলো আপনি হয়তো জানেন না    মি. বিনের এই আকর্ষণীয় তথ্যগুলো আপনি হয়তো জানেন না

মি. বিনের এই আকর্ষণীয় তথ্যগুলো আপনি হয়তো জানেন না

আপনি যদি রোয়ান অ্যাটকিনসনকে না চিনেন, তবে শুধু একটি নাম বললেই যথেষ্ট- তিনি হলেন মি. বিন। ১৯৫৫ সালের ৬ জানুয়ারি জন্ম নেওয়া এই মহান ইংরেজি কমেডিয়ান ব্যক্তিগত জীবনকে যতটা সম্ভব ব্যক্তিগত রাখার জন্য বিখ্যাত। আজকে আমরা ছোট বড় সবার প্রিয় মি. বিন সম্পর্কে কিছু আকর্ষণীয় তথ্য খুঁজে করার চেষ্টা করেছি। চলুন তাহলে রোয়ান অ্যাটকিনসন ওরফে মি. বিন সম্পর্কে নতুন কিছু জেনে নিই।   

 

২৫. চার ভাইয়ের মধ্যে সবচেয়ে ছোট ছেলে রোয়ান অ্যাটকিনসন, তার পিতার নাম এরিক অ্যাটকিনসন এবং মায়ের নাম এলা মে। তিনি ১৯৫৫ সালের ৬ই জানুয়ারি ইংল্যান্ডের কনসেটে জন্মগ্রহণ করেন।

www.moviestarspicture.com

www.moviestarspicture.com

 

২৪. ছোটবেলায় তিনি ভাঁড় ছিলেন, যখন তিনি প্রাক-কিশোর বয়সে পা দেন তখন তিনি স্ব-চেতনা গড়ে তোলেন এবং শান্ত হয়ে উঠেন।

writingasiplease.wordpress.com

writingasiplease.wordpress.com

২৩. তিনি একজন উচ্চশিক্ষিত ব্যক্তি, অ্যাটকিনসন নিউক্যাসল ইউনিভার্সিটি এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। স্কুলে থাকতে যখন তিনি চার্লি চ্যাপলিন সহ আরও কমেডি অভিনেতাদের মুভিগুলো দেখতেন, তখন নিজের অজান্তেই তাদের নকল করা শুরু করেছিলেন। 

www.bbc.co.uk

www.bbc.co.uk

 

২২. যখন তিনি ডারহাম ক্যাথেড্রাল স্কুলে পড়াশোনার জন্য ভর্তি হন, তখন তিনি টনি ব্লেয়ারের সহপাঠী ছিলেন।

english.pnn.ps

english.pnn.ps

 

২১. প্রধান অভিনেতা হিসাবে পরিচিত হওয়ার পরেও, তিনি বিবিসি রেডিও থ্রিতে দ্য অ্যাটকিনসন পিপল নামে পরিচিত কমেডি শোতে অভিনয় করতেন।

www.theworks.co.uk

www.theworks.co.uk

 

২০. তার ক্যারিয়ারের শুরুতে, অ্যাটকিনসন বেশ কয়েকটি শো এবং মুভিতে অভিনয় করেছিলেন, তবে তার লেখা স্কেচ কমেডি শো ‘নট দ্যা নাইট’ ও ‘ক্লোক নিউজ’ তাকে বিখ্যাত করে তোলে।

bridgingtheunbridgeable.com

bridgingtheunbridgeable.com

 

১৯. নট দ্য নাইন ও ক্লক এর সাফল্য তাকে জনপ্রিয় মধ্যযুগীয় সিটকম দ্য ব্ল্যাক অ্যাডারের প্রধান চরিত্র পেতে সহায়তা করে, সেখানে তিনি রিচার্ড কার্টিসের সহ-রচয়িতা ছিলেন।  

hex1a4.net

hex1a4.net

 

১৮. অ্যাটকিনসনের গাড়ির প্রতি গভীর আসক্তি রয়েছে। এমনকি একবার তিনি বলেন যে, ব্যক্তিগত সম্পর্কের পাশাপাশি তার জীবনের সেরা মুহূর্তগুলোর মধ্যে একটি হল লরি ৯(সেমি-ট্র্যাক) চালানোর জন্য একটা লাইসেন্স পাওয়া।

thevirtualpaperandink.wordpress.com

thevirtualpaperandink.wordpress.com

 

১৭.  তিনি বাল্যকালে তার পিতার ট্র্যাক্টর চালাতে পছন্দ করতেন এবং তখন থেকেই বড় গাড়ির প্রতি তার আসক্তি শুরু হয়েছিল।  

www.examiner.com 16

www.examiner.com 16

 

১৬. এছাড়াও তিনি মার্টিন, হন্ডা, অডি এমনকি এমসি ল্যারেন এফ 1 সহ দ্রুতগতির গাড়ির চমৎকার সংগ্রহের একজন গর্বিত মালিক।

toplowridersites.com

toplowridersites.com

 

১৫. কিন্তু একটি ব্র্যান্ড তিনি পছন্দ করেন না - সেটা হল পোর্শ। একবার তিনি বলেন, ‘আমার পোর্শ গাড়ির প্রতি একটা সমস্যা আছে। তাদের গাড়িগুলো চমৎকার-সেটা ঠিক আছে, কিন্তু আমি জানি যে আমি কখনোই এটা উপভোগ করতে পারবো না’। 

metro.co.uk

metro.co.uk

 

১৪. তার এমসি ল্যারেন এফ ওয়ান গাড়ী, অ্যাটকিনসন দুটি দুর্ঘটনার সাথে জড়িত। ২০১১ সালে ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনাটি বেশ গুরুতর ছিল- তার গাড়ি রাস্তার ভেজা উপরিভাগে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্লাইড কেটে একটি গাছের মধ্যে আকটে গিয়েছিল এবং তার কাঁধ ভেঙ্গে গিয়েছিল। তার গাড়ি খারাপভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল এবং এটি ব্রিটিশ ইতিহাসের প্রথম ঘটনা ছিল যেখানে বীমা কোম্পানী ১ মিলিয়ন পাউন্ড বিল করেছিল।

www.telegraph.co.uk

www.telegraph.co.uk

 

১৩. স্বাভাবিকভাবেই, তার ফিল্ম ক্যারিয়ারেও গাড়িগুলি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। মি. বিনের ছোট গাড়ির ছাদে চেয়ার বেঁধে গাড়ি চালানোর দৃশ্যটি সারা বিশ্বে পরিচিত।

healeyspecialists.com 12

healeyspecialists.com 12

 

১২. মাঝেমধ্যে, অ্যাটকিনসন ব্রিটিশ কার ম্যাগাজিনের জন্য কিছু লেখা লিখেন।

www.themediaant.com

www.themediaant.com

 

১১. প্রিন্স উইলিয়াম এবং কেট মিডল্টনের বিয়ের পাশাপাশি প্রিন্স চার্লস ও ক্যামিলার বিয়ের অনুষ্ঠানে তিনি অতিথি ছিলেন।

mychaoticlyfe.blogspot.com

mychaoticlyfe.blogspot.com

 

১০. ধর্মীয় ঘৃণার উদ্দীপনা নিয়ে নতুন আইন প্রণয়ন করার জন্য ব্রিটিশ লেবার সরকারের পরিকল্পনার প্রতি জনসমক্ষে বিরোধিতা করার জন্য তিনি পরিচিত। যুক্তরাজ্যের ধর্ম সংক্রান্ত একটি আইনের ত্রুটি আছে বলে তিনি সমালোচনা করেন।    

en.wikipedia.org

en.wikipedia.org

 

৯. তার জীবনের বেশির ভাগ সময় তিনি কিছুটা তোতলানভাবে কথা বলেন, যার কারণে তিনি তার ব্যক্তি জীবনে স্বল্পভাষী হিসেবে পরিচিত এবং তিনি ইন্টারভিউ দিতে পছন্দ করেন না। আর মি. বিনে চরিত্রে খুব কমই কথা বলেন।

youthexperia.blogspot.com

youthexperia.blogspot.com

 

৮. তিনি জেমস বন্ডের একজন ভক্ত এবং ১৯৮৩ সালে ‘নেভার সে নেভার অ্যাগেইন’ জেমস বন্ড মুভিতে তিনি শেন কনেরির সাথে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পান।

www.007museum.com

www.007museum.com

 

৭. তার কর্মজীবনের আগে, তিনি অভিনেত্রী লেসলি অ্যাশের সাথে ডেট করেছিলেন এবং মি.বিনের সম্পূর্ণ আটপৌরে বৈশিষ্ট্য সত্ত্বেও তিনি কিছু গভীর রোমান্টিক অনুভূতি দেখিয়েছিলেন, পরে তিনি বাড়ি কিনে রোয়ান ও আশ গাছগুলি লাগিয়েছিলেন।  

writingasiplease.wordpress.com

writingasiplease.wordpress.com

 

৬. ১৯৯০ সালে, অ্যাটকিনসন বিবিসি মেকআপ আর্টিস্ট সুনেত্রা শাস্ত্রীকে বিয়ে করেন, যার সাথে ১৯৮০ শতকের দিকে দেখা হয়েছিল। তাদের দুইটি সন্তান রয়েছে- বেঞ্জামিন এবং লিলি। ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে অ্যাটকিনসন এবং শাস্ত্রীর বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।

www.bornrich.com

www.bornrich.com

 

৫. শাস্ত্রীর সাথে প্রথম ডেটের সময়, অ্যাটকিনসন কেচাপ পাস করে দেওয়ার কথা ছাড়া তেমন কোন কথা বলেননি।  

www.zimbio.com 4

www.zimbio.com 4

 

৪. তার অসাধারণ ফিল্ম ক্যারিয়ারের সময়, তিনি উল্লেখযোগ্য অর্থ উপার্জন করেন। তার বর্তমান সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৮৫ মিলিয়ন পাউন্ড (প্রায় ১৩০ মিলিয়ন ডলার)।

www.dailymail.co.uk

www.dailymail.co.uk

 

৩. ২০০১ সালে ছুটি কাটানোর জন্য কেনিয়া যাওয়ার সময় পাইলট অজ্ঞান হয়ে গেলে, তার পরিবার সহ বিমানটি নিচে নামতে শুরু করে। পাইলট জেগে উঠার আগে অ্যাটকিনসন বিমানটি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছিলেন এবং পরে বিমানটি নিরাপদে অবতরণ করেছিল।

facts30.blogspot.com

facts30.blogspot.com

 

২. অ্যাটকিনসন তার পরিবারের গোপনীয়তা রক্ষা করতেন এবং তাদের সন্তান জন্ম না নেওয়া পর্যন্ত তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুরাও জানতে পারতেন না যে তার স্ত্রী গর্ভবতী।

moviepilot.com

moviepilot.com

 

১. মূলত, তার সর্বাধিক বিখ্যাত ভূমিকা মি. বিনের নাম মি. হোয়াইট ছিল। পরে এটি পরিবর্তিত হয়ে মি. কলিফ্লাওয়ার হয় এবং অবশেষে মি. বিন নামে শেষ হয়। ২০১২ সালের নভেম্বরে রোয়ান অ্যাতকিনসন ডেইলি টেলিগ্রাফকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মি. বিন চরিত্রে আর হাজির না হওয়ার ঘোষণা দেন।

www.kapanlagi.com

www.kapanlagi.com

 

আমাদের আজকের আয়োজন আপনাদের কেমন লেগেছে? কমেন্টে শেয়ার করে জানান। আমাদের আয়োজন যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে সাথেই থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। 

 



জনপ্রিয়