বিস্ময়কর হাতের সেতু!   বিস্ময়কর হাতের সেতু!

বিস্ময়কর হাতের সেতু!

কোনো গাড়ি চলাচল করে না সেতুটিতে। শুধু কার স্টেশনে ওঠার জন্য পথচারীরা দারুণ সুন্দর সেতুটি ব্যবহার করে থাকেন। ভিয়েতনামের এই সেতুকে সম্প্রতি সংস্কার করে নতুন রূপ দেওয়া হয়েছে। সেতুটি সোনালি রঙের। আর এতেই সামাজিক মাধ্যমে বিশ্বের সবচেয়ে অদ্ভুত সেতু হিসেবে এটি প্রচার পেয়েছে!

তবে এই পর্যটন এলাকাটি মোটেই নতুন নয়। ১৯১৯ সালে তৈরি। সে সময় ফরাসি ঔপনিবেশ ছিল ভিয়েতনাম। বর্তমানে সেই পুরনো সময়ের রূপটিই যেন নতুন করে নিয়ে আসা হয়েছে এ এলাকায়। সোনালি রঙের হওয়ায় সেতুটি ‘গোল্ডেন ব্রিজ’ নামে পরিচিত।

সারা বিশ্ব থেকেই পর্যটকরা আসেন ভিয়েতনামে। তাদের অনেকেই সেতুটিকে দেখতে যাচ্ছেন। অবাক হচ্ছেন এর নির্মাণশৈলী দেখে। হিল স্টেশন হিসেবে পাহাড়ের উপরে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটি তৈরি করা হয়। বিশাল দুটি পাথুরে রঙের হাতের ওপর দাঁড়িয়ে আছে সেতুটি। আর এ কারণে ‘হ্যান্ড অফ গড’ বলছেন অনেকেই।

ঘন জঙ্গলের মধ্য দিয়ে বেরিয়ে এসেছে কংক্রিটের প্রকাণ্ড দুটি হাত। দুই হাত ধরে রেখেছে সোনালি রঙের সেতু, সেতুর উপর দর্শক-পর্যটকের দল। নতুনভাবে সংস্কারের পর গত জুন মাসে ডানাং এর কাছে এই সেতুটি খুলে দেওয়া হয়।

ফরাসি উপনিবেশের স্মৃতি হিসেবে বর্তমানে এলাকাটিকে সেই উপনিবেশের রেপ্লিকা হিসেবেই গড়ে তোলা হয়েছে। ফরাসি স্টাইলের দুর্গ, ক্যাথিড্রাল, বাগান সবটা মিলে অসম্ভব নান্দনিক হয়ে উঠেছে এই অঞ্চলটি।

আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ...



জনপ্রিয়