সবচেয়ে সুন্দরী ও আকর্ষণীয় ১০ জন বন্ড গার্ল যারা দর্শক মাতিয়েছেন! সবচেয়ে সুন্দরী ও আকর্ষণীয় ১০ জন বন্ড গার্ল যারা দর্শক মাতিয়েছেন!

সবচেয়ে সুন্দরী ও আকর্ষণীয় ১০ জন বন্ড গার্ল যারা দর্শক মাতিয়েছেন!

জেমস বন্ড সিনেমা পৃথিবীর সব থকে জনপ্রিয় অ্যাকশন ও স্পাই সিনেমা। এই সিনেমার সিরিজগুলো যদিও দুর্ধর্ষ স্পাই এজেন্ট জেমস বন্ডের জন্য বিখ্যাত তবে বন্ডের নায়িকা গুলোও কিন্তু কম জনপ্রিয় নয়। জেমস বন্ড সিরিজের প্রায় বিশটিরও বেশী সিনেমা রিলিজ দেওয়া হয়েছে যার প্রতিটিতে এর নায়িকারা এনেছে চমক। আর প্রতিটিতেই রয়েছে আলাদা আলাদা বন্ড গার্ল! প্রত্যেকেই তাদের সৌন্দর্য ও প্রতিভা দিয়ে দর্শকদের করেছেন মুগ্ধ!

তাই সেরা ১০ জন বন্ড গার্ল নির্বাচন করা বেশ কষ্টসাধ্য। আজ ফাঁপরবাজে আমরা সেরা ১০ জন বন্ড গার্ল নির্বাচন করার চেষ্টা করেছি যারা তাদের সৌন্দর্য ও প্রতিভা দিয়ে সবচেয়ে বেশী দর্শক মাতিয়েছেন।

১. হেলি বেরি- ডাই অ্যানাদার ডে

হেলি বেরির এই তালিকায় প্রথমে থাকাটা প্রায় নিশ্চিত ছিলো বলা চলে। এমনিতেই হেলি বেরি অবশ্য সবচেয়ে প্রতিভাধর অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন বলা হয়। তিনি বন্ড সিরিজের ২০তম সিনেমা ডাই অ্যানাদার ডেতে অভিনয় করেছিলেন।

তিনি এই সিনেমায় অভিনয় করেন জিয়াসিনটা 'জিন্স' জনসন চরিত্রে অভিনয় করেন। সিনেমায় তিনিও একজন দুর্ধর্ষ স্পাই হিসেবে অভিনয় করেন। জিয়াসিনটা 'জিন্স' জনসন মূলত জেমস বন্ডকে সাহায্য করার জন্য ভিলেনের সাথে কাজ করে।

বন্ড সিনেমার জন্য যে ধরনের শরীর ও সৌন্দর্য দরকার তা হেলি বেরিই নির্ধারণ করেছেন বলা চলে। তার অভিনয়ও বন্ড সিনেমার এই সিরিজকে নিয়ে গেছে অন্য উচ্চতায়!

২. ডেনিস রিচার্ডস- দ্যা ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফ

 

ডেনিস রিচার্ডস তার গ্লামার ও সৌন্দর্যের জন্য বিখ্যাত। বন্ড সিনেমার ১৯ তম সিরিজ দ্যা ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফে তার অভিনয় নিয়ে যদিও সমালোচক ও দর্শকদের কিছু অংশ সমালোচনা করেছেন! তবুও বন্ড সিনেমার জন্য তার শরীর ও সৌন্দর্য একেবারেই নিখুঁত!

দ্যা ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফ সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন ডঃ ক্রিসমাস জোন্স চরিত্রে। শুধুমাত্র তাকে দেখার জন্য দ্যা ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফ সিনেমাটি দ্বিতীয়বার দেখেছেন এরকম দর্শক অনেক আছেন।

সে দিক থেকে সবচেয়ে আবেদনময়ী বন্ড গার্ল বলা চলে ডেনিস রিচার্ডসকে।

৩. লেই সেডউক্স- স্পেক্ট্রা

লেই সেডউক্স নতুন বন্ড গার্লদের মধ্যে একজন। নতুন হলেও তিনি কিন্তু খুব দ্রুতই সেরা দশ বন্ড গার্লের তালিকায় উঠে এসেছেন! লেই সেডউক্সও তার গ্লামার ও সৌন্দর্যের জন্য বিখ্যাত। তাছাড়া তিনি জেমস বন্ডের ২৪ তম সিরিজ স্পেক্ট্রায় অসাধারণ অভিনয় করেছেন।

লেই সেডউক্স একজন ফরাসী অভিনেত্রী। তিনি “ব্লু ইজ দ্যা ওয়ার্মেস্ট কালার” সিনেমায় লেসবিয়ান চরিত্রে অভিনয়ের জন্য জনপ্রিয় হয়েছিলেন।

৪. ইভা গ্রিন- ক্যাসিনো রোয়াল

ইভা গ্রিন “ওয়েস্টার লেন্ড” নামের চরিত্রে অভিনয় করেন ক্যাসিনো রোয়াল সিনেমায় এবং তিনি এই চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ব্যাপক জনপ্রিয় হন। “ওয়েস্টার লেন্ড” চরিত্রে তিনি এতোটাই আবেদনময়ী ছিলেন যে এম্পায়ার ম্যাগাজিনের সেরা আবেদনময়ী অভিনেত্রীর তালিকায় তিনি প্রথম হন সে বছর। ১০০ জন অভিনেত্রীর মধ্যে তিনি প্রথম হন সেবার!

“ওয়েস্টার লেন্ড” চরিত্রটি ছিলো প্রথম বন্ড গার্লের চরিত্র যে কিনা জেমস বন্ডের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে! আর ইভা গ্রিন তার জীবনের সেরা অভিনয় করেছেন “ওয়েস্টার লেন্ড” চরিত্রকে ফুটিয়ে তুলতে! তাছাড়া জেমস বন্ড সিরিজের সেরা এই সিনেমাতিতে বাড়তি হিসেবে পাওনা ছিলো ইভা গ্রিনের অশাধরন সৌন্দর্য ও গ্লামার।

৫. ফেমকে জ্যানসন- গোল্ডেন আই

ফেমকে জ্যানসন জেমস বন্ডের সিরিজ গোল্ডেন আইতে “জেইনিয়া অনটোপ্প” নামের একটি চরিত্রে অভিনয় করেন। যদিও এই চরিত্রটি নেতিবাচক ছিলো তার পরও ফেমকে জ্যানসন এর অভিনয় ও সৌন্দর্যে দর্শকরা বুদ হয়ে ছিলেন।

সিনেমায় তার চরিত্রটি এতোটাই আকর্ষণীয় ও প্রলোভনসঙ্কুল ছিলো যে খোদ জেমস বন্ড তার প্রেমে পরা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারেননি।

৬. বেরিনিচ মারলোহি- স্কাইফল

আপনি হয়তোবা স্কাইফল সিনেমার সেই সুন্দরী নায়িকাকে কখনোই ভুলে যেতে পারবেন না! জেমস বন্ডের ২৩ তম সিরিজ স্কাইফলে বেরিনিচ মারলোহি অভিনয় করেছিলেন “সেভেরিন” চরিত্রে।

স্কাইফল সিনেমায় তার চরিত্রটি এতোটাই আবেদনময়ী ও রহস্যময় ছিলো যে দর্শক মুগ্ধ হয়ে তাকে দেখেছে। আর বেরিনিচ মারলোহি নিজেই স্বীকার করেছেন স্কাইফলে অভিনয় তার জীবন বদলে দিয়েছে!

৭. ক্লডিও আগার- ঠাণ্ডারবেল

আপনি কি জেমস বন্ড সিরিজের ঠাণ্ডারবেল সিনেমার সেই ফরাসী সুন্দরীর কথা মনে করতে পারছেন? ক্লডিও আগার নামের এই ফরাসী নায়িকা কিন্তু ঠাণ্ডারবেল সিনেমাকে হিট করার পেছনে বিশাল অবদান রেখেছিলেন।

যদিও সিনেমাটি ১৯৬৫ সালের প্রেক্ষাপটে তৈরি তবুও বর্তমানের সকল বন্ড গার্লের তুলনায় তার সৌন্দর্য ও গ্লামার একটুও কম ছিলো না। আর মিস ফ্রান্স হওয়া এই সুন্দরী কিন্তু বন্ড গার্লদের মধ্যে সব থেকে সুন্দর শরীর ও সৌন্দর্যের অধিকারীদের মধ্যে অন্যতম।ঠাণ্ডারবেলে তিনি অভিনয় করেন ডমিনিক 'ডমিনি' ডার্ভাল চরিত্রে।

৮. উরসুলা আন্দ্রে- ডঃ নো

যারা উরসুলা আন্দ্রেকে চেনেন না তাদের জন্য জানাচ্ছি, তিনি হচ্ছেন ইতিহাশের প্রথম বন্ড গার্ল! জেমস বন্ড সিরিজের প্রথম সিনেমা ডঃ নোতে তিনি অভিনয় করেন “হানি রাইডার” চরিত্রে।

সেই সময়ে তিনি একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রীতে পরিণত হন এই সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে। এই সুইস অভিনেত্রীর সাহসী বিকিনিতে অভিনয় সে সময় ব্যাপক জনপ্রিয় হয় ।

৯. মারিয়া গ্রাজিয়া কুইনোটা- দ্যা ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফ

মারিয়া গ্রাজিয়া কুইনোটা জেমস বন্ডের ১৯ তম সিরিজ দ্যা ওয়ার্ল্ড ইজ নট এনাফে অভিনয়ের মাধ্যমে ব্যাপক জনপ্রিয় হন।

ইতালিয়ান এই অভিনেত্রীকে সব চেয়ে আবেদনময়ী ও জনপ্রিয় বন্ড গার্লদের মধ্যে একজন ধরা হয়।

১০. শার্লি ইটন- গোল্ডফিঙ্গার

আমাদের এই তালিকার শেষ বন্ড গার্ল হচ্ছেন শার্লি ইটন। আপনারা যারা জেমস বন্ড সিনেমার ভক্ত তারা হয়তোবা জানেন তিনি জেমস বন্ড সিরিজের গোল্ডফিঙ্গার সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন।

গোল্ডফিঙ্গার সিনেমায় একটি দৃশ্য বেশ জনপ্রিয় হয়েছিলো! যে দৃশ্যে দেখা যায় শার্লি ইটনের পুরো শরীর সোনায় মোড়ানো রয়েছে!

তথ্যসুত্রঃ GROUND ZERO



জনপ্রিয়