লুকিয়ে থাকা যে এগারটি জায়গার গোপন রহস্য জনসাধারণের অজানা

 লুকিয়ে থাকা যে এগারটি জায়গার গোপন রহস্য জনসাধারণের অজানা লুকিয়ে থাকা যে এগারটি জায়গার গোপন রহস্য জনসাধারণের অজানা

আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বিশ্বের বিখ্যাত গোপনীয় জায়গাগুলো সম্পর্কে আমরা জানবো,  ব্যক্তিগতভাবে নয় তবে ইন্টারনেটকে ধন্যবাদ। কেননা যে জায়গাগুলো সম্পর্কে আমরা জেনেছি তার অনেক গোপন রহস্য  জনসাধারণের অজানা।

আমরা আপনাদের পৃথিবীর সর্বাধিক দর্শনীয় জায়গাগুলো একবার ঘুরে এবং বিষয়গুলো গভীরভাবে দেখার পরামর্শ দিচ্ছি, সেখানে কি আছে যা একবার দেখলে নজরে আসে না।

গুস্তাভ আইফেলের ব্যক্তিগত কামরা, প্যারিস, ফ্রান্স

আইফেল টাওয়ারের তৃতীয় তলায় মালিক মনসিউর আইফেলের নিজের কামরা ছিলো যেখানে  থমাস এডিসনের মতো সম্মানিত অতিথিদের অভিবাদন জানাতেন। আজকে সেখানে আইফেল এবং এডিসনের বসার জায়গাটি সকলের জন্য উন্মুক্ত।  

টাইমস স্কয়ারে শূন্য ভবন, নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র

এর মালিক প্রতি বছর প্রায় $২৩ মিলিয়ন ডলার আয় করা সত্ত্বেও,এতে পরিত্যক্ত অফিস এবং নীচ তলায় ওষুধের দোকান ছাড়া কিছু নেই। ১৯৯২ সালে ভবনটির মালিক দেউলিয়া হয়ে যায় এবং একটি বিজ্ঞাপন সংস্থাকে বিক্রি করে দেয়া হয়। তখন থেকে এই ভবনটি একটি দৈতাকার পর্দাওয়ালা বিলবোর্ড ছাড়া কিছুই না।

পরিত্যক্ত সিটি হল সাবওয়ে স্টেশন, নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র

নিউইয়র্ক সিটি হলের সাবওয়ে স্টেশনটি ১৯০৪ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত চালু ছিলো এবং নতুন ট্রেনের কারণে এটি বন্ধ হয়ে যায় যার গাড়িগুলো বড় হওয়ার কারণে সুড়ঙ্গে ঠিকমতো মোড় নিতে পারতো না। আপনি ৬ নাম্বার ট্রেনে করে এই সিটি হল দেখতে পারেন ফেরার সময় এটি এই স্টেশন দিয়ে যায়।    

মাউন্ট রাশমোর এবং তার গোপন চেম্বার, যুক্তরাষ্ট্র  

চারজন রাষ্ট্রপতির ভাস্কর্য ছাড়াও মাউন্ট রাশমোরে নিজস্ব গোপন কক্ষ আছে। এটির ভিতরে ১,২০০ পাউন্ড গ্রানাইট ক্যাপস্টোনের পিছনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র যেমন স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র নিরাপদে সংরক্ষিত আছে।

প্রধান বিচারপতির প্রাসাদে একটি কারাগার, ভেনিস, ইতালি 

ভেনিসের প্রধান বিচারপতির প্রাসাদের নীচে একটি কারাগার আছে যেখানে একবার কুখ্যাত গিয়াসোমো কাসানোভাকে আটকে রাখা হয়েছিল।পাইবোবি তার ৪০০ বছরের ইতিহাসের মধ্যে তিনিই একমাত্র ব্যক্তি ছিলেন যে এই কারাগার থেকে পালাতে সক্ষম হয়েছিলেন। কারাগারের অস্তিত্ব অনেকের কাছে পরিচিত কিন্তু ভ্রমণের জন্য আদর্শ স্থানের মধ্যে এটি অন্তর্ভুক্ত নয়।

লাস ভেগাস স্ট্রিপের নিচে সুরঙ্গ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  

লাস ভেগাসের অন্যতম বিনোদনকেন্দ্রের রাস্তার নীচে বিস্তৃত টানেল এলাকা জুড়ে শত শত গৃহহীন মানুষদের আবাস। এটি পুরোপুরি অন্ধকার, কিন্তু একবার আপনি একটি টর্চলাইট জ্বালালে মানুষের উপস্থিতি লক্ষ্য করতে পারবেনঃ আসবাবপত্র, জামাকাপড় এবং দৈনন্দিন সব ধরনের জিনিসপত্র।      

এম্পায়ার স্টেট ভবনের ১০৩ তলা, নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র

সবাই জানে ভবনটির ১০২ তলায় একটি পর্যবেক্ষণ প্ল্যাটফর্ম আছে। আপনি ১০৩  তলা থেকেও তা উপভোগ করতে পারেন, যেখানে ছোট বারান্দাসহ একটি ছোট কক্ষ রয়েছে। যদিও এটা শুধুমাত্র স্টাফ এবং ভিআইপি মানুষদের জন্য খোলা।  

কার্ডিনাল বিবিনিয়ার বাথরুম, পোপ অ্যাপার্টমেন্ট, ভ্যাটিকান

১৫১৬ খ্রিস্টাব্দে রাফায়েল সান্তি এবং তার শিক্ষানবিশ দ্বারা সজ্জিত একটি বাথরুম, কার্ডিনাল বিবিবাসের অ্যাপার্টমেন্টের একটি অংশ। এটি আশ্চর্য বিষয় যে দেয়ালে আঁকা দৃশ্যগুলো দূর থেকে অনেক সুন্দর দেখায়।  

বাথরুমের প্রবেশপথটি কার্ডিনালের সাবেক বেডরুমে অবস্থিত যেখানে আজ পোপ বিশ্বের নেতাদের সাথে বৈঠক করেন।

সিন্ডারেলা দুর্গের গোপন অ্যাপার্টমেন্ট, ডিজনি ওয়ার্ল্ড, যুক্তরাষ্ট্র

কক্ষটি খুব ব্যয়বহুল হোটেলের মতো দেখাচ্ছে কিন্তু বিশ্বের সব অর্থ দিয়েও আপনি এক রাতের জন্য একে বুক করতে পারবেন না। আপনি এই সুযোগ জিততে পারেন, জানুয়ারিতে প্রতিদিন ডিজনি ওয়ার্ল্ডে এর জন্য লটারি হয়।

স্ট্যাচু অফ লিবার্টি এর মশালের মধ্যে একটি পর্যবেক্ষণ প্ল্যাটফর্ম, নিউইয়র্ক,  যুক্তরাষ্ট্র

১৯১৬ সাল পর্যন্ত মূর্তিটির মশালের শীর্ষের ভিতর একটা সিঁড়ি ছিল। কিন্তু ঐ বছরে এক বিস্ফোরণের কারণে মশালটি ক্ষতিগ্রস্থ হয় এবং চিরতরে পর্যটকদের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। ১৯৮৬ সালে নতুন একটা মশাল প্রতিস্থাপন করা সত্ত্বেও এটি  জনসাধারণের জন্য এখনও নিষিদ্ধ।

মন্দ আত্মার গুহা, নায়াগ্রা জলপ্রপাত, কানাডা

জলপ্রপাতের নীচে নামার রাস্তায় একটা ছোট মন্দ আত্মার গুহা আছে। ভারতীয় কিংবদন্তিতে বলা হয় অনেক বছর আগে এই গুহায় একটি মন্দ আত্মা আটকা পড়ে। তখন থেকে যারা এখানে ভ্রমণ করতে যাচ্ছে তারা প্রত্যেকেই অভিশপ্ত দুর্ভাগ্য জীবন কাটিয়েছে। আপনার যদি সাহস থাকে তাহলে এই গোপন জায়গায় ভ্রমণ করে আসতে পারেন !

ছবি ও তথ্য সংগ্রহঃ ব্রাইট সাইড

Share This Post