সকালের ৮ টি অভ্যাস যা আপনার আজ থেকেই পরিহার করা উচিত!

সকালের ৮ টি অভ্যাস যা আপনার আজ থেকেই পরিহার করা উচিত! সকালের ৮ টি অভ্যাস যা আপনার আজ থেকেই পরিহার করা উচিত!

ঘুম থেকে উঠে আপনি কি করেন ? ধোঁয়া ওঠা এক কাপ কফি বা চা এ চুমুক দেন, দাঁত না মেজেই! গোসলের ঝামেলা বাদ দিয়ে চটপট মুখটা ধুয়ে নেন! সকালের তাড়াহুড়োই ঝটপট নাস্তা সারতে করনফ্লেক্স আর দুধই আপনার একমাত্র ভরসা!

কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন দিন শুরু করার জন্য এসব অভ্যাস আপনার শরীরের জন্য কতোটা উপযোগী বা স্বাস্থ্যসম্মত? আমরা না জেনেই বহুদিন থেকে এমন সব অভ্যাস গড়ে তুলেছি যা দিন শুরু করার জন্য মোটেও ঠিক নয়!  কিন্তু অভ্যাসবশত আমরা এসব ভুল দিনের পর দিন করেই যাচ্ছি!

ফাঁপরবাজ আজকে আপনাদের জানিয়ে দেবে এমনি কিছু অভ্যাসের কথা যা দিন শুরুর জন্য সঠিক ও স্বাস্থ্যসম্মত না হলেও অভ্যাসবশত আমরা বহুদিন থেকে লালন করে আসছি। সুন্দর স্বাস্থ্যসম্মত ও প্রাণবন্ত একটি দিন শুরু করার জন্য এসব অভ্যাস আজই বদলে ফেলুন!

১। গোসল না করে দিন শুরু করা।

© depositphotos © depositphotos

সকালের বাস্ততায় আমরা প্রায় গোসল করি না। কিন্তু সকালের গোসল আমাদের মস্তিষ্ককে ঠাণ্ডা রাখে এবং দ্রত বিভিন্ন সমস্যার সমাধান খুঁজতে ও নতুন নতুন আইডিয়া বের করতে সাহায্য করে। তাছাড়া সকালবেলা গোসল করলে তা আমাদের মনোযোগ বাড়িয়ে দেয় ও উদ্যমী করে তোলে।

২। গরম পানি দিয়ে গোসল করা।

© depositphotos © depositphotos

সকালবেলা গরম পানি দিয়ে গোসল করলে তা আমাদের অলস করে তোলে। অপরদিকে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করলে শরীর চাঙ্গা হয়ে উঠে। মন প্রফুল্ল থাকে এবং কাজে উদ্যম আসে। তাছাড়া ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করলে দেহ মন জুড়ে এক ধরনের সজীবতা কাজ করে।

৩। টয়লেটে বসে দীর্ঘক্ষণ মোবাইল ফোন ব্যবহার করা।

© depositphotos © depositphotos

সকালে উঠেই আমরা মুঠোফোনে নিউজ ফিড ও নোটিফিকেশন চেক করতে বসে যায়। কিন্তু এতে আমাদের সময়টা নষ্ট হয় নিজের কোন লাভ হয়না। তারথেকে এই সময়টা মেইল বক্স বা জব মার্কেট চেক করে ব্যয় করা যায়। সবথেকে ভাল হয় এই সময়টায় নিজের জন্য একটা ভাল নাস্তা তৈরি করা।

৪। কি পরব এই ভেবে সময় নষ্ট করা।

© depositphotos © depositphotos

সকালবেলা আমারা অনেকটা সময় নষ্ট করে ফেলি কি পরব না পরব এই ভেবে। এর একটি সহজ সমাধান হল ড্রেসের বিভিন্নতা কমিয়ে আনা অথবা রাতেই ঠিক করে ফেলা কোন ড্রেসটি পরব। আমরা বিভিন্নক্ষেতে পরার জন্য উপযোগী ড্রেসগুলো সেলফে বিভিন্ন তাকে সাজিয়েও আমাদের সময় বাঁচাতে পারি।

৫। সিরিয়াল বা খাদ্যশস্য দিয়ে প্রাতরাশ সারা।

© Brian/flickr   © PublicDomainImages/pixabay  © Brian/flickr © PublicDomainImages/pixabay

একজন স্বাস্থ্যসচেতন ব্যক্তি হিসেবে আপনার সকালের খাবারে বিভিন্ন খাদ্যশস্য রাখা স্বাস্থ্যকর মনে হতে পারে। কিন্তু আপনি জেনে অবাক হবেন এক পিস পিজ্জায় ৫০ গ্রাম খাদ্যশস্যের তুলনায় কম চিনি থাকে। তাই প্রাতরাশে খাদ্যশস্য এড়িয়ে চলাই বেশি স্বাস্থ্যকর।

৬। খাওয়ার পর দাঁত মাজা।

© pixabay © pixabay

আমরা ভাবি খাওয়ার পরে দাঁত মাজলে দাঁত বেশি সুস্থ থাকবে। কিন্তু এটা করা মোটেও ঠিক নয়। বিভিন্ন ধরনের ফল ও খাবার যেগুলোতে এসিড আছে, এসব খাবার দাতের এনামেলকে ভঙ্গুর করে তোলে। তাই খাবার খেয়ে পানি দিয়ে কুলকুচা করে আধা ঘণ্টা পর দাঁত মাজা শ্রেয়।

৭। সকালে ব্ল্যাক কফি খাওয়া।

© depositphotos  © depositphotos

সকালবেলা উঠেই ব্লাক কফি খাওয়া আমাদের মানসিক উত্তেজনা বাড়িয়ে দেয়। তাছাড়া এর ফলে গ্যাসটীকের সমস্যা হতে পারে। তাই সকালবেলার এই অভ্যাস দ্রুত পরিহার করা উচিত। না পারলে কফির সাথে দুধ বা ক্রিম মিশিয়ে পান করা শ্রেয়।

৮। ঘুম থেকে উঠে ঠিকমত বিছানা গোছানো।

© depositphotos  © depositphotos

সারারাত ঘুমানোর সময় আমাদের বিছানার চাদর ও কম্বল দেহের আদ্রতা শুষে নেয়। তাই সকালবেলা উঠেই আমাদের উচিত বিছানার চাদর ও কম্বল মেলে দেয়া। নাহলে চাদর ও কম্বলে ব্যাকটেরিয়া জমে দুর্গন্ধ ছড়াবে।

পোস্টটি শেয়ার করে অন্যদের জানিয়ে দিন এসব বদভ্যাসের কথা। আর লাইক ও কমেন্টের সাহায্যে আমাদের সাথে আপনার মতামত শেয়ার করুন।

Category : বিনোদন
Share This Post