এন্ড্রয়েড টো টো কোম্পানির জরিপে 4g ইন্টারনেটে বাংলাদেশে সেরা নেটওয়ার্ক কোনটি?   এন্ড্রয়েড টো টো কোম্পানির জরিপে 4g ইন্টারনেটে বাংলাদেশে সেরা নেটওয়ার্ক কোনটি?

এন্ড্রয়েড টো টো কোম্পানির জরিপে 4g ইন্টারনেটে বাংলাদেশে সেরা নেটওয়ার্ক কোনটি?

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সোমবার রাত ৮টার দিকে বাংলাদেশে ফোরজি সেবা প্রথমবারের মত বাণিজ্যিক ভিত্তিতে চালু করেছে মোবাইল অপারেটর কোম্পানি গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংক। ৪জি নেটওয়ার্কে অত্যন্ত দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যায় বলে এতে এইচডি ভিডিও স্ট্রিম, অনলাইন টিভি, দ্রুততম ফাইল ডাউনলোড/আপলোড এবং ব্রাউজিং করা যায়।

পুরোপুরিভাবে 4G চালু হওয়ার পরে জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল এন্ড্রয়েড টো টো কোম্পানী চালিয়েছেন এক দারুণ জরিপ। বাংলাদেশের সবগুলো বিভাগের বিভিন্ন জেলায় তারা ভ্রমণ করেছেন এবং দেশের শীর্ষস্থানীয় তিন মোবাইল নেটওয়ার্কের 4G ইন্টারনেট স্পীড পরীক্ষা করেছেন। চলুন দেখে আসি স্পীড টেস্টে কে সেরা হতে পেরেছে!

যেসব স্থানে তারা স্পীড টেস্ট করেছেনঃ

আটটি বিভাগের ৩১ টি জেলাতে স্পীড টেস্ট করা হয়।

internet

internet

 

ঢাকা বিভাগঃ

ঢাকা বিভাগের ৪ টি জেলাতে তারা স্পীড টেস্ট চালিয়েছেন, সেগুলো হলো ঢাকা জেলা, নারায়ণগঞ্জ জেলা, গাজীপুর জেলা এবং মানিকগঞ্জ জেলা। ঢাকা বিভাগে রবি এবং বাংলালিংকের 4G নেটওয়ার্ক ছিল কিন্তু গ্রামীণফোন 3G নেটওয়ার্কের উপরে উঠতে পারেনি, তবে কয়েক জায়গাতে 4G পাওয়া যায়। তাই তাদের মতে ঢাকা বিভাগে রবিই সেরা 4G নেটওয়ার্ক। রবির স্পীড ২৭.৪৮ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৪.৯৯ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৬.৪৯ এমবিপিএস।

 

নারায়ণগঞ্জে স্পীড টেস্ট

নারায়ণগঞ্জে স্পীড টেস্ট

বিঃদ্রঃ এখানে এমবিপিএস মানে মেগাবাইট পার সেকেন্ড না, মেগাবিটস পার সেকেন্ড।

চট্টগ্রাম বিভাগঃ

চট্টগ্রাম বিভাগের ৬ টি জেলাতে স্পীড টেস্ট চালানো হয়েছে, যেগুলো হলো চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি, ফেনী এবং নোয়াখালী। চট্টগ্রাম বিভাগের সবখানেই রবি 4G নেটওয়ার্ক ধরে রাখতে সক্ষম হয়, গ্রামীণফোন কয়েক জায়গাতে 4G পেলেও তাদের 3G স্পীডও ছিল বেশ দারুণ, এখানে বাংলালিংক একেবারেই বাজে অবস্থা। রবির স্পীড ১৪.৩২ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৬.১৮ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৫.৭৪ এমবিপিএস।

চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানের ফলাফল

internet

internet

 

খুলনা বিভাগঃ

খুলনা বিভাগের খুলনা, যশোর, কুষ্টিয়া এবং বাগেরহাট জেলায় স্পীড টেস্ট চালানো হয়। খুলনা বিভাগে রবি এবং বাংলালিক সমানে সমান লড়াই করেছে। দুইজনেরই 4G ছিল এবং স্থান অনুযায়ী বাংলালিঙ্ক এবং রবি নিজেদের সেরা প্রমাণ করেছে। গ্রামীণফোনের 3G নেটওয়ার্ক হলেও তাদের স্পীড খারাপ ছিল না। রবির স্পীড ১০.৫৩ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৬.৭৮ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৬.৯২ এমবিপিএস।

খুলনার স্পীড টেস্ট

খুলনার স্পীড টেস্ট

 

বরিশাল বিভাগ

বরিশাল বিভাগে বরিশাল জেলা, পটুয়াখালী জেলা, ভোলা জেলাতে স্পীড টেস্ট চালানো হয়। তুলনামূলকভাবে অন্যান্য বিভাগের চেয়ে বরিশালে নেটওয়ার্কের অবস্থা দুর্বল। রবি এখানে পুরোপুরি 4G নেটওয়ার্ক দিতে পারলেও স্পীড কোন নেটওয়ার্কেই আশা জাগানোর মত ছিল না। রবির স্পীড ৮.০৭ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৬.৪ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৫.২৬ এমবিপিএস।

বরিশালে স্পীড টেস্ট

বরিশালে স্পীড টেস্ট

 

সিলেট বিভাগ

সিলেট বিভাগের চারটি জেলাতে স্পীড টেস্ট চালানো হয়েছে। সিলেট জেলা, হবিগঞ্জ জেলা, মৌলভিবাজার জেলা এবং হবিগঞ্জ জেলাতে স্পীড টেস্ট চালানোর পরে দেখা গেলো রবির স্পীড ৭.৯২ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৭.১৫ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৩.৫৬ এমবিপিএস।

সিলেট বিভাগে স্পীড টেস্ট

সিলেট বিভাগে স্পীড টেস্ট

 

রাজশাহী বিভাগ

রাজশাহী, বগুড়া এবং পাবনা এই তিন জেলাতে স্পীড টেস্ট চালানো হয়। পুরো বিভাগজুড়ে কারো একচেটিয়া রাজত্ব দেখা যায়নি। তিন জেলাতে স্পীড টেস্ট চালানোর পরে দেখা গেলো রবির স্পীড ১০.৩৮ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৮.৬৮ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৪.৯৫ এমবিপিএস।

রাজশাহীতে স্পীড টেস্ট

রাজশাহীতে স্পীড টেস্ট

 

রংপুর বিভাগ

রংপুর বিভাগের দিনাজপুর, পঞ্চগড় এবং রংপুর জেলাতে করা হয় স্পীড টেস্ট। স্পীড টেস্ট শেষে দেখা গেছে  রবির স্পীড ৬.৭ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৪.৭৯ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৩.০৩ এমবিপিএস।

রংপুর বিভাগের স্পীড টেস্ট

রংপুর বিভাগের স্পীড টেস্ট

 

ময়মনসিংহ বিভাগ

এই বিভাগের ময়মনসিংহ, নেত্রকোণা এবং শেরপুর জেলাতে স্পীড টেস্ট করা হয়। স্পীড টেস্ট শেষে দেখা গেছে  রবির স্পীড ১৩.৮৩ এমবিপিএস, জিপির স্পীড ৮.৫৭ এমবিপিএস এবং বাংলালিঙ্কের স্পীড ৪.৯৭ এমবিপিএস।

ময়মনসিংহ বিভাগে স্পীড টেস্ট

ময়মনসিংহ বিভাগে স্পীড টেস্ট

সবগুলো বিভাগে যদি বিবেচনা করা হয় তবে রবি প্রায় ১০০% এলাকা 4G নেটওয়ার্কে আওতায় নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছে। সেইদিক বিবেচনা করলে জিপি এবং বাংলালিঙ্ক রবির চেয়ে অনেক পিছিয়ে। স্পীড এবং নেটওয়ার্ক কাভারেজ অনুযায়ী রবিকেই তারা সেরা 4G নেটওয়ার্ক বলেছেন। 



জনপ্রিয়